আওয়ামী লীগ মন্ত্রী সংখ্যা কত? ...

আওয়ামী লীগ মন্ত্রী - বাংলাদেশের মন্ত্রিসভা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নির্বাহী বিভাগের প্রধান প্রতিষ্ঠান। আইনসভায় প্রণীত আইনের আলোকে মন্ত্রিসভা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সরকারের নীতি ও সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করে এবং সম্পাদিত কার্যাবলীর জন্য সম্মিলিতভাবে জাতীয় সংসদের নিকট দায়বদ্ধ থাকে। বাংলাদেশের সংবিধানের ৭০নং অনুচ্ছেদ প্রধানমন্ত্রীর হাতে অনিয়ন্ত্রণীয় অপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্ষমতা ন্যস্ত করেছে বলে সমালোচনা রয়েছে। বাংলাদেশের বিশতম মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যতীত মন্ত্রিসভার পূর্ণ মন্ত্রী ২৪ জন, প্রতিমন্ত্রী ১৯ জন ও উপমন্ত্রী হলেন ৩ জন। ৩০শে ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর ৬ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গঠিত মন্ত্রিসভার মন্ত্রীদের নাম ঘোষণা করে। ৭ জানুয়ারি নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যগণ শপথ নেন। মহানগর আওয়ামী লীগ এর কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, মন্ত্রিসভায় বান্দরবান থেকে বীর বাহাদুর উশৈসিংকে পার্বত্যবিষয়ক মন্ত্রী, চট্টগ্রাম থেকে ড. হাছান মাহমুদকে তথ্যমন্ত্রী, সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদকে ভূমিমন্ত্রী ও মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলকে শিক্ষা উপমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়ায় তাদের সংবর্ধনা দেয়া হবে। এছাড়া এদিন চট্টগ্রাম থেকে নির্বাচিত ১৬জন সংসদ সদস্যকেও সংবর্ধনা দেয়া হবে। শনিবার (১৯ জানুয়ারি) কমিটির সভায় ‍এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সভা সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নে এবং দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা বেগবান করতে দলীয় সংহতি ও ঐক্য প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সফল করতে ওয়ার্ড, থানার আওতাধীন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সভায় চট্টগ্রাম গণহত্যা দিবস উপলক্ষে ২৪ জানুয়ারি সকাল ৯টায় আদালত ভবনের প্রবেশমুখে স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা নিবেদন ও আলোচনা সভা, ২৫ জানুয়ারি বর্ধিত সভা, ৩১ জানুয়ারি বিকেল ৩টায় লালদীঘি ময়দানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের স্মরণসভা আয়োজনের কর্মসূচিও নেয়া হয়। স্মরণসভায় প্রধান অতিথি থাকবেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। থিয়েটার ইনস্টিটিউট হলে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। বক্তব্য দেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। মেয়র বলেন, ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নগরের ৩টি আসন সহ সংশ্লিষ্ট আরো ৩টি আসন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দেওয়ায় নেতাকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। নির্বাচন পরবর্তী কার্যনির্বাহী কমিটির প্রথম সভায় দলীয় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৯ জানুয়ারি লালদীঘি মাঠে ৪ জন মন্ত্রী সহ ১৬ জন সংসদ সদস্যকে সংবর্ধনা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সভায় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ এর সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, শফিকুল ইসলাম ফারুক, হাসান মাহমুদ শমসের, অ্যাডভোকেট ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, হাজী মোহাম্মদ হোসেন, হাজী জহুর আহমেদ, দেবাশীষ গুহ বুলবুল, ইঞ্জিনিয়ার মানস রক্ষিত, আবদুল আহাদ, জালাল উদ্দিন ইকবাল, আবু তাহের, ডা. ফয়সল ইকবাল চৌধুরী, শহিদুল আলম, জহর লাল হাজারী সহ নির্বাহী সদস্যরা।
Romanized Version
আওয়ামী লীগ মন্ত্রী - বাংলাদেশের মন্ত্রিসভা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নির্বাহী বিভাগের প্রধান প্রতিষ্ঠান। আইনসভায় প্রণীত আইনের আলোকে মন্ত্রিসভা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সরকারের নীতি ও সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করে এবং সম্পাদিত কার্যাবলীর জন্য সম্মিলিতভাবে জাতীয় সংসদের নিকট দায়বদ্ধ থাকে। বাংলাদেশের সংবিধানের ৭০নং অনুচ্ছেদ প্রধানমন্ত্রীর হাতে অনিয়ন্ত্রণীয় অপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্ষমতা ন্যস্ত করেছে বলে সমালোচনা রয়েছে। বাংলাদেশের বিশতম মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যতীত মন্ত্রিসভার পূর্ণ মন্ত্রী ২৪ জন, প্রতিমন্ত্রী ১৯ জন ও উপমন্ত্রী হলেন ৩ জন। ৩০শে ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর ৬ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গঠিত মন্ত্রিসভার মন্ত্রীদের নাম ঘোষণা করে। ৭ জানুয়ারি নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যগণ শপথ নেন। মহানগর আওয়ামী লীগ এর কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, মন্ত্রিসভায় বান্দরবান থেকে বীর বাহাদুর উশৈসিংকে পার্বত্যবিষয়ক মন্ত্রী, চট্টগ্রাম থেকে ড. হাছান মাহমুদকে তথ্যমন্ত্রী, সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদকে ভূমিমন্ত্রী ও মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলকে শিক্ষা উপমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়ায় তাদের সংবর্ধনা দেয়া হবে। এছাড়া এদিন চট্টগ্রাম থেকে নির্বাচিত ১৬জন সংসদ সদস্যকেও সংবর্ধনা দেয়া হবে। শনিবার (১৯ জানুয়ারি) কমিটির সভায় ‍এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সভা সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী ইশতেহার বাস্তবায়নে এবং দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা বেগবান করতে দলীয় সংহতি ও ঐক্য প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সফল করতে ওয়ার্ড, থানার আওতাধীন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সভায় চট্টগ্রাম গণহত্যা দিবস উপলক্ষে ২৪ জানুয়ারি সকাল ৯টায় আদালত ভবনের প্রবেশমুখে স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা নিবেদন ও আলোচনা সভা, ২৫ জানুয়ারি বর্ধিত সভা, ৩১ জানুয়ারি বিকেল ৩টায় লালদীঘি ময়দানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের স্মরণসভা আয়োজনের কর্মসূচিও নেয়া হয়। স্মরণসভায় প্রধান অতিথি থাকবেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। থিয়েটার ইনস্টিটিউট হলে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী। বক্তব্য দেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। মেয়র বলেন, ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নগরের ৩টি আসন সহ সংশ্লিষ্ট আরো ৩টি আসন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দেওয়ায় নেতাকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। নির্বাচন পরবর্তী কার্যনির্বাহী কমিটির প্রথম সভায় দলীয় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৯ জানুয়ারি লালদীঘি মাঠে ৪ জন মন্ত্রী সহ ১৬ জন সংসদ সদস্যকে সংবর্ধনা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সভায় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ এর সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, শফিকুল ইসলাম ফারুক, হাসান মাহমুদ শমসের, অ্যাডভোকেট ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, হাজী মোহাম্মদ হোসেন, হাজী জহুর আহমেদ, দেবাশীষ গুহ বুলবুল, ইঞ্জিনিয়ার মানস রক্ষিত, আবদুল আহাদ, জালাল উদ্দিন ইকবাল, আবু তাহের, ডা. ফয়সল ইকবাল চৌধুরী, শহিদুল আলম, জহর লাল হাজারী সহ নির্বাহী সদস্যরা। Awami League Mantri - Bangladesher Mantrisabha Ganaprajatantri Bangladesh Sorcerer Nirbahi Bibhager Pradhan Pratisthan Ainasabhay Pranit Ainer Aloke Mantrisabha Pradhanamantrir Netritbe Sorcerer Niti O Siddhanta Bastabayan Kare Evan Sampadit Karjabalir Janya Sammilitbhabe Jatiya Sansader Nikat Dayabaddha Thake Bangladesher Sangbidhaner 70nang Anuchchhed Pradhanamantrir Hate Aniyantraniya Apratidwandwi Xamata Nyasta Karechhe Ble Samalochna Rayechhe Bangladesher Bishatam Mantrisabhay Pradhanamantri Shekh Hasina Byatit Mantrisabhar Purna Mantri 24 John Pratimantri 19 John O Upamantri Halen 3 John 30she Disembar 2018 Tarikhe Bangladesher Ekadash Jatiya Sansad Nirbachaner Par 6 Januyari 2019 Tarikhe Mantriparishad Bibhag Theke Shekh Hasinar Netritbe Gathit Mantrisabhar Mantrider NAM Ghoshna Kare 7 Januyari NATUN Mantrisabhar Sadasyagan Shapath Nen Mahanagar Awami League Aare Karjanirbahi Kamitir Sabhay A Siddhanta Neya Hayechhe Ble Janan Sangathaner Bharaprapta Sabhapati Mahtab Uddin Choudhury Tini Baleno Mantrisabhay Bandaraban Theke Bir Bahadur Ushaisinke Parbatyabishayak Mantri Chattagram Theke D Hachhan Mahmudke Tathyamantri Saifujjaman Choudhury Jabedake Bhumimantri O Mahibul HASAN Choudhury Naofelke Siksha Upamantrir Dayitba Deyay Tader Sangbardhana Dea Habe Echhara Aydin Chattagram Theke Nirbachit 16jan Sansad Sadasyakeo Sangbardhana Dea Habe Shanibar 19 Januyari Kamitir Sabhay ‍A Byapare Siddhanta Grahan Kara Hayechhe Subha Sutre Jaana Gechhe Pradhanamantri Shekh Hasinar Nirbachani Ishatehar Bastabayne Evan Desher Unnayan Agrajatra Baghban Karate Daliya Sanghati O Aikya Pratishthar Udyog Neya Hachchhe Sangbardhana Anushthan Safal Karate Ward Thanar Aotadhin Ong O Sahajogi Sangathaner Neta Karmider Prastuti Grahaner Nirdeshana Dea Hayechhe Sabhay Chattagram Ganahatya Dibas Upalakshe 24 Januyari Sakal 9tay Adalat Bhabaner Prabeshmukhe Smritistambhe Shraddha Nibedan O Alochana Subha 25 Januyari Bardhit Subha 31 Januyari Bikel 3tay Laldighi Mayadane Bangladesh Awami League Aare Sabek Sadharan Sampadak O Janaprashasan Mantri Prayat Sayyad Asharaful Isalamer Smaranasabha Ayojner Karmasuchio Neya Hya Smaranasabhay Pradhan Atithi Thakben Setumantri Obaydul Kader Theatre Institute Hale Anushthit Sabhay Sabhaptitba Curren Mahtab Uddin Choudhury Baktabya Than Mahanagar Awami Liger Sadharan Sampadak City Meyar Aa Jaw Mo Nachhir Uddin Meyar Baleno 30 Disembar Anushthit Ekadash Jatiya Sansad Nirbachane Nagarer 3ti Asana Huh Sangshlishta Aro 3ti Asana Pradhanamantri Shekh Hasinake Upahar Deway Netakarmider Prati Kritagyata Prakash Karachhi Nirbachan Parabarti Karjanirbahi Kamitir Pratham Sabhay Daliya Bibhinna Karmasuchi Grahan Kara Hayechhe Aare Madhye 29 Januyari Laldighi Mathe 4 John Mantri Huh 16 John Sansad Sadasyake Sangbardhana Their Siddhanta Niyechhi Sabhay Upasthit Chhilen Mahanagar Awami League Aare Huh Sabhapati Advocates Sunil Kumar Sarkar Advocates Ibrahim Hossain Choudhury Babool Koshadhyaksh Abaduch Chhalam Sampadakamandalir Sadasya Noman Al Mahmud Shafik Adanan Choudhury HASAN Mahmud Hasni Shafikul Islam Farook HASAN Mahmud Shamaser Advocates Ifatekhar Saimul Choudhury Chandan Dhar Mashiur Rahaman Choudhury Hazy Mohammad Hossain Hazy Jahur Ahmeda Debashish Guha Bulbul Engineer Manas Rakshit Abadul Ahed Jalal Uddin Iqbal Abu Taher Da Fayasal Iqbal Choudhury Shahidul Alam Zahur Lal Hajari Huh Nirbahi Sadasyara
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


৩০শে ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ৩০০টি আসনের মধ্যে ২৫৯টি আসন লাভ করে এককভাবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে। ৩ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে নির্বাচিত সংসদ সদস্যগণ বাংলাদেশ সরকারের আইনপ্রণেতা হিসেবে শপথগ্রহণ করেন। শেখ হাসিনা একাদশ জাতীয় সংসদের সংসদ নেতা নির্বাচিত হন। ৬ জানুয়ারি মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গঠিত মন্ত্রীসভার মন্ত্রীদের নাম ঘোষণা করে। ৭ জানুয়ারি নতুন মন্ত্রীসভার সদস্যগণ শপথ নেন।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যতীত এ মন্ত্রীসভার পূর্ণ মন্ত্রী ২৪ জন, প্রতিমন্ত্রী ১৯ জন ও উপমন্ত্রী হলেন ৩ জন।প্রধানমন্ত্রীসহ মোট ৪৭ সদস্যের মন্ত্রীসভার ৪৪ জন সরাসরি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়েছেন এবং ৩ জনকে টেকনোক্র্যাট কোটায় দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে। টেকনোক্র্যাট কোটায় ৩ জনের মধ্যে ইয়াফেস ওসমান ও মোস্তাফা জব্বার পূর্ণ মন্ত্রীর এবং শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। হাসিনার তৃতীয় মন্ত্রীসভার আওয়ামী লীগের মন্ত্রী ২৫ জন মন্ত্রী, ৯ জন প্রতিমন্ত্রী ও ২ জন উপমন্ত্রী চতুর্থমন্ত্রীসভা থেকে বাদ পরেছেন এবং এ মন্ত্রীসভায় ২৭ জন প্রথমবারেরমত মন্ত্রীত্ব গ্রহণ করেন।
Romanized Version
৩০শে ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ৩০০টি আসনের মধ্যে ২৫৯টি আসন লাভ করে এককভাবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে। ৩ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে নির্বাচিত সংসদ সদস্যগণ বাংলাদেশ সরকারের আইনপ্রণেতা হিসেবে শপথগ্রহণ করেন। শেখ হাসিনা একাদশ জাতীয় সংসদের সংসদ নেতা নির্বাচিত হন। ৬ জানুয়ারি মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গঠিত মন্ত্রীসভার মন্ত্রীদের নাম ঘোষণা করে। ৭ জানুয়ারি নতুন মন্ত্রীসভার সদস্যগণ শপথ নেন।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যতীত এ মন্ত্রীসভার পূর্ণ মন্ত্রী ২৪ জন, প্রতিমন্ত্রী ১৯ জন ও উপমন্ত্রী হলেন ৩ জন।প্রধানমন্ত্রীসহ মোট ৪৭ সদস্যের মন্ত্রীসভার ৪৪ জন সরাসরি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়েছেন এবং ৩ জনকে টেকনোক্র্যাট কোটায় দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে। টেকনোক্র্যাট কোটায় ৩ জনের মধ্যে ইয়াফেস ওসমান ও মোস্তাফা জব্বার পূর্ণ মন্ত্রীর এবং শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। হাসিনার তৃতীয় মন্ত্রীসভার আওয়ামী লীগের মন্ত্রী ২৫ জন মন্ত্রী, ৯ জন প্রতিমন্ত্রী ও ২ জন উপমন্ত্রী চতুর্থমন্ত্রীসভা থেকে বাদ পরেছেন এবং এ মন্ত্রীসভায় ২৭ জন প্রথমবারেরমত মন্ত্রীত্ব গ্রহণ করেন।30she Disembar 2018 Tarikhe Bangladesher Ekadash Jatiya Sansad Nirbachan Anushthit Hay Nirbachane Bangladesh Awami League 300ti Asaner Madhye 259ti Asana Love Kare Ekakabhabe Sankhyagarishthata Arjan Kare 3 Januyari 2019 Tarikhe Nirbachit Sansad Sadasyagan Bangladesh Sorcerer Ainapraneta Hisebe Shapathagrahan Curren Shekh Hasina Ekadash Jatiya Sansader Sansad Neta Nirbachit Hahn 6 Januyari Mantriparishad Bibhag Theke Shekh Hasinar Netritbe Gathit Mantrisabhar Mantrider NAM Ghoshna Kare 7 Januyari NATUN Mantrisabhar Sadasyagan Shapath Nen Pradhanamantri Shekh Hasina Byatit A Mantrisabhar Purna Mantri 24 John Pratimantri 19 John O Upamantri Halen 3 John Pradhanamantrisah Mot 47 Sadasyer Mantrisabhar 44 John Sarasari Ekadash Jatiya Sansad Nirbachaner Madhyame Nirbachit Hayechhen Evan 3 Janake Teknokryat Kotay Dayitba Pradan Kara Hayechhe Teknokryat Kotay 3 Janer Madhye Iyafes Osman O Mostafa Jabbar Purna Mantrir Evan Shekh Mohammad Abadullah Pratimantrir Dayitba Pene Hasinar Tritiya Mantrisabhar Awami Liger Mantri 25 John Mantri 9 John Pratimantri O 2 John Upamantri Chaturthamantrisabha Theke Baad Parechhen Evan A Mantrisabhay 27 John Prathamabareramat Mantritba Grahan Curren
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Awami League Mantri Sonkha Koto,How Many Awami League Ministers Are?,


vokalandroid