আইন অনুযায়ী কি করা উচিত? ...

যে সব বাচ্চার ৫ বছর পূর্ণ হয়নি, 'হিন্দু মাইনরিটি অ্যান্ড গার্জিয়ানশিপ অ্যাক্ট, ১৯৫৬ এর ৬ ধারা অনুযায়ী মায়ের কাছে থাকবে৷ ভারতীয় বিবাহ বিচ্ছেদ (সংশোধনী) আইন, 2001 এর আগে বা পরে কিনা, স্বামীর বা স্ত্রী কর্তৃক জেলা আদালতে পেশ করা একটি পিটিশনের ভিত্তিতে সম্ভাব্য যে কোনও বিবাহ সুবিধাপ্রাপ্ত হতে পারে, যে কারণে এই অনুষ্ঠান সভ্যতার বিবাহের, প্রতিবাদী (i) ব্যভিচার করেছে; অথবাঅন্য ধর্মের রূপান্তর দ্বারা খৃস্টান হতে সীমাবদ্ধ; অথবা অবিলম্বে মনস্তাত্ত্বিক মনমোহন করা হয়েছে অবিলম্বে দুই বছরের কম সময়ের জন্য আইন অনুযায়ী এর যৌক্তিকতা রয়েছে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, ভূমি সংক্রান্ত তথ্যের জন্য সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর সঙ্গে তৃতীয় পক্ষ হিসেবে প্রসঙ্গ অন্য রকম না চাইলে, ভারত সরকারের নির্দিষ্ট তালিকা অনুযায়ী তফশিলি জাতি ও উপজাতিভুক্ত বাদে যারা অনগ্রসর শ্রেণি হিসাবে চিহ্নিত তাদেরই এই আইন বাল্যবিবাহ নিষিদ্ধকরণ আইন ২০০৬. | আইন অনুযায়ী ২১ বছরের বয়সের যে কোন ছেলে এবং ১৮ বছর. বয়সের কম যে কোনাে মেয়েই অপ্রাপ্তবয়স্ক বলে বিবেচিত হবে।
Romanized Version
যে সব বাচ্চার ৫ বছর পূর্ণ হয়নি, 'হিন্দু মাইনরিটি অ্যান্ড গার্জিয়ানশিপ অ্যাক্ট, ১৯৫৬ এর ৬ ধারা অনুযায়ী মায়ের কাছে থাকবে৷ ভারতীয় বিবাহ বিচ্ছেদ (সংশোধনী) আইন, 2001 এর আগে বা পরে কিনা, স্বামীর বা স্ত্রী কর্তৃক জেলা আদালতে পেশ করা একটি পিটিশনের ভিত্তিতে সম্ভাব্য যে কোনও বিবাহ সুবিধাপ্রাপ্ত হতে পারে, যে কারণে এই অনুষ্ঠান সভ্যতার বিবাহের, প্রতিবাদী (i) ব্যভিচার করেছে; অথবাঅন্য ধর্মের রূপান্তর দ্বারা খৃস্টান হতে সীমাবদ্ধ; অথবা অবিলম্বে মনস্তাত্ত্বিক মনমোহন করা হয়েছে অবিলম্বে দুই বছরের কম সময়ের জন্য আইন অনুযায়ী এর যৌক্তিকতা রয়েছে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, ভূমি সংক্রান্ত তথ্যের জন্য সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর সঙ্গে তৃতীয় পক্ষ হিসেবে প্রসঙ্গ অন্য রকম না চাইলে, ভারত সরকারের নির্দিষ্ট তালিকা অনুযায়ী তফশিলি জাতি ও উপজাতিভুক্ত বাদে যারা অনগ্রসর শ্রেণি হিসাবে চিহ্নিত তাদেরই এই আইন বাল্যবিবাহ নিষিদ্ধকরণ আইন ২০০৬. | আইন অনুযায়ী ২১ বছরের বয়সের যে কোন ছেলে এবং ১৮ বছর. বয়সের কম যে কোনাে মেয়েই অপ্রাপ্তবয়স্ক বলে বিবেচিত হবে। Je Sab Bachchar 5 Bachhar Purna Hayani Hindu Minority And Garjiyanship Act 1956 Aare 6 Dhara Anujayi Mayer Kachhe Thakber Bhartiya Vivah Bichchhed Sangshodhani Ain 2001 Aare Age Ba Pare Qina Swamir Ba Stri Kartrik Jela Adalate Paes Kara Ekati Pitishner Bhittite Sambhabya Je Konao Vivah Subidhaprapta Hate Pare Je Karne AE Anushthan Sabhyatar Bibaher Pratibadi Byabhichar Karechhe Athabaanya Dharmer Rupantar Dwara Khristan Hate Simabaddha Athaba Abilambe Manastattbik Manmohan Kara Hayechhe Abilambe Dui Bachharer Com Samayer Janya Ain Anujayi Aare Jauktikata Rayechhe Udaharan Hisebe Bala Jay Bhoomi Sankranta Tathyer Janya Sahakari Commissioner Bhoomi Aare Sange Tritiya Pax Hisebe Prasanga Anya Rakam Na Chaile Bharat Sorcerer Nirdishta Talika Anujayi Tafashili JATI O Upajatibhukta Bade Jara Anagrasar Shreni Hisabe Chihnit Taderai AE Ain Balyabibah Nishiddhakaran Ain 2006 | Ain Anujayi 21 Bachharer Bayaser Je Koun Chhele Evan 18 Bachhar Bayaser Com Je Konae Meyei Apraptabayask Ble Bibechit Habe
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


মেয়েদের বিয়ের ন্যূনতম বয়স ১৮-ই থাকছে। তবে মা-বাবা চাইলে ১৬ বছরেও বিয়ে হতে পারে। বিয়ের বয়স ১৮ থেকে ১৬ করার পরিকল্পনা তীব্রভাবে সমালোচিত হওয়ার পর সরকার এই নতুন কৌশল অনুযায়ী কথা ভাবছে। মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় ইতিমধ্যে এ বিষয়ে একটি আইন অনুযায়ী খসড়া তৈরি করেছে। বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন, ২০১৪ নামে আইন অনুযায়ী এই খসড়া মতামতের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানোও হয়েছে। খসড়ায় উল্লেখ আছে, ‘যুক্তিসংগত কারণে মা-বাবা বা আদালতের সম্মতিতে ১৬ বছর বয়সে কোনো নারী বিয়ে করলে সেই ক্ষেত্রে তিনি “অপরিণত বয়স্ক” বলে গণ্য হবেন না।’ খসড়া আইনটির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ১৮ ডিসেম্বর যে অনুশাসন দিয়েছেন, তাতে বলা হয়েছে, ‘বিয়ের বয়স ১৮, তবে পিতামাতা বা আদালতের সম্মতিতে ১৬ বছর সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য হবে। সামাজিক সমস্যা কম হবে।’ তবে শিশু ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ এবং নারী ও শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করেন এমন ব্যক্তিরা সরকারের এই ভাবনার সঙ্গে একমত নন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিশু বিশেষজ্ঞ ও জাতীয় অধ্যাপক এম আর খান প্রথম আলোকে বলেন, ১৮ বছর বয়সের আগে কারও বিয়ে হওয়া উচিত নয়। ১৮ বছরের আগে কেউ বিচার, বুদ্ধি-বিবেচনাবোধসম্পন্ন হতে পারে না। তা ছাড়া ১৮ বছর না হলে একজন ভোটও দিতে পারছে না। আর নিজের পায়ে না দাঁড়িয়ে বিয়ে করলে কেউ কোনো অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে পারবে না। গত ১২ জানুয়ারি আইন মন্ত্রণালয়ে যে খসড়াটি মতামতের জন্য পাঠানো হয়েছে, তাতেও প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনের কথা উল্লেখ আছে। খসড়ায় বলা হয়েছে, অপরিণত বয়স্ক বা ‘মাইনর’ বলতে পুরুষ হলে অন্যূন ২১ এবং নারী হলে অন্যূন ১৮ বছর বয়সী কোনো ব্যক্তিকে বোঝাবে। তবে যুক্তিসংগত কারণে মা-বাবা বা আদালতের সম্মতিতে অন্যূন ১৬ বছর বয়সী কোনো নারী বিয়ে করলে সে ক্ষেত্রে সে অপরিণত বয়স্ক বলে গণ্য হবে না। শিশু আইন, শিশুনীতিসহ বিভিন্ন আইন ও নীতি এবং জাতিসংঘের শিশু অধিকার সনদসহ বিভিন্ন সনদ অনুসমর্থন করে সরকার ১৮ বছরের কম বয়সীদের শিশু হিসেবে সংজ্ঞায়িত করেছে। তাহলে নতুন খসড়া এর সঙ্গে সাংঘর্ষিক কি না, এ প্রশ্ন করা হলে মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা বয়সের ব্যাপারে সিদ্ধান্তে এসে গেছি। বিয়ের ন্যূনতম বয়স ১৮ হবে। কিন্তু বিয়ে ছাড়া কেউ প্রেগন্যান্ট (অন্তঃসত্ত্বা) হয়ে গেলে কী হবে?’ তাঁর মতে, প্রতিবন্ধী নারীসহ অন্যান্য ক্ষেত্রেও বিশেষ ব্যবস্থা অনুযায়ী হবে। বিশ্বের উন্নত দেশেও অভিভাবকদের সম্মতিতে এ ধরনের বিয়ের কথা বলা আছে। সব দিক বিবেচনা করে তাঁরা সূক্ষ্মভাবে আইনটি করতে চান বলে জানান। প্রতিমন্ত্রীর এই বক্তব্যের সঙ্গে একমত নন জাতিসংঘের সনদ নারীর প্রতি সকল প্রকার বৈষম্য বিলোপ বা সিডও কমিটির সাবেক চেয়ারপারসন এবং বেসরকারি সংগঠন উইমেন ফর উইমেনের নির্বাহী কমিটির সদস্য সালমা খান। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, একটি মেয়ে ধর্ষণের শিকার হলে তাকে ধর্ষকের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া সরকারের কাজ নয়। এখন অনেক মেয়ে ধর্ষণের শিকার হলে তার প্রতিকার চাইছে। বিষয়টি এখন আর এমন নয় যে ধর্ষণের কথা মুখেই আনা যাবে না। তাই সরকারকে স্বচ্ছ একটি আইন করতে হবে। ভারতে কোন বিবাহিত নারী বা পুরুষ যদি অন্য কারো সাথে পরকীয়া সম্পর্ক করেন - তাহলে তা আর ফৌজদারি অপরাধ বলে গণ্য হবে না বলে রায় দিয়েছে সেদেশের সুপ্রিম কোর্ট। বাংলাদেশে পরকীয়া সংক্রান্ত আইন অনুযায়ী ঠিক কি বলা হয়েছে? আইনি সহায়তা প্রতিষ্ঠান আইন ও সালিশ কেন্দ্রের একজন আইনজীবী নীনা গোস্বামীর কাছে এ প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, এ সংক্রান্ত আইন খুব বেশি নেই। তবে ৪৫৭ ধারায় বলা হয়েছে যে কোন বিবাহিত ব্যক্তি যদি অন্য কোন বিবাহিত নারীর সাথে জেনেশুনে যৌন সম্পর্ক করে তাহলে তা ব্যভিচার বলে গণ্য হবে। এ ক্ষেত্রে সেই পুরুষটির পাঁচ বছরের কারাদন্ড, অর্থদন্ড বা উভয় দন্ডের বিধান আছে। তবে যে নারীর সাথে ব্যভিচার করা হয়েছে - তার ক্ষেত্রে আইনে কোন শাস্তির বিধান নেই, ব্যভিচারকারী নারী ও পুরুষ উভয়ের শাস্তির কথাও বলা নেই। নীনা গোস্বামী বলেন, তবে এর অপপ্রয়োগ হয়ে থাকে, অনেক সময় অজ্ঞতার কারণেও ব্যভিচারের ঘটনায় নারীকেও আসামী করা হয়েছে এমন দেখা গেছে।
Romanized Version
মেয়েদের বিয়ের ন্যূনতম বয়স ১৮-ই থাকছে। তবে মা-বাবা চাইলে ১৬ বছরেও বিয়ে হতে পারে। বিয়ের বয়স ১৮ থেকে ১৬ করার পরিকল্পনা তীব্রভাবে সমালোচিত হওয়ার পর সরকার এই নতুন কৌশল অনুযায়ী কথা ভাবছে। মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় ইতিমধ্যে এ বিষয়ে একটি আইন অনুযায়ী খসড়া তৈরি করেছে। বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন, ২০১৪ নামে আইন অনুযায়ী এই খসড়া মতামতের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানোও হয়েছে। খসড়ায় উল্লেখ আছে, ‘যুক্তিসংগত কারণে মা-বাবা বা আদালতের সম্মতিতে ১৬ বছর বয়সে কোনো নারী বিয়ে করলে সেই ক্ষেত্রে তিনি “অপরিণত বয়স্ক” বলে গণ্য হবেন না।’ খসড়া আইনটির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ১৮ ডিসেম্বর যে অনুশাসন দিয়েছেন, তাতে বলা হয়েছে, ‘বিয়ের বয়স ১৮, তবে পিতামাতা বা আদালতের সম্মতিতে ১৬ বছর সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য হবে। সামাজিক সমস্যা কম হবে।’ তবে শিশু ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ এবং নারী ও শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করেন এমন ব্যক্তিরা সরকারের এই ভাবনার সঙ্গে একমত নন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিশু বিশেষজ্ঞ ও জাতীয় অধ্যাপক এম আর খান প্রথম আলোকে বলেন, ১৮ বছর বয়সের আগে কারও বিয়ে হওয়া উচিত নয়। ১৮ বছরের আগে কেউ বিচার, বুদ্ধি-বিবেচনাবোধসম্পন্ন হতে পারে না। তা ছাড়া ১৮ বছর না হলে একজন ভোটও দিতে পারছে না। আর নিজের পায়ে না দাঁড়িয়ে বিয়ে করলে কেউ কোনো অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে পারবে না। গত ১২ জানুয়ারি আইন মন্ত্রণালয়ে যে খসড়াটি মতামতের জন্য পাঠানো হয়েছে, তাতেও প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনের কথা উল্লেখ আছে। খসড়ায় বলা হয়েছে, অপরিণত বয়স্ক বা ‘মাইনর’ বলতে পুরুষ হলে অন্যূন ২১ এবং নারী হলে অন্যূন ১৮ বছর বয়সী কোনো ব্যক্তিকে বোঝাবে। তবে যুক্তিসংগত কারণে মা-বাবা বা আদালতের সম্মতিতে অন্যূন ১৬ বছর বয়সী কোনো নারী বিয়ে করলে সে ক্ষেত্রে সে অপরিণত বয়স্ক বলে গণ্য হবে না। শিশু আইন, শিশুনীতিসহ বিভিন্ন আইন ও নীতি এবং জাতিসংঘের শিশু অধিকার সনদসহ বিভিন্ন সনদ অনুসমর্থন করে সরকার ১৮ বছরের কম বয়সীদের শিশু হিসেবে সংজ্ঞায়িত করেছে। তাহলে নতুন খসড়া এর সঙ্গে সাংঘর্ষিক কি না, এ প্রশ্ন করা হলে মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা বয়সের ব্যাপারে সিদ্ধান্তে এসে গেছি। বিয়ের ন্যূনতম বয়স ১৮ হবে। কিন্তু বিয়ে ছাড়া কেউ প্রেগন্যান্ট (অন্তঃসত্ত্বা) হয়ে গেলে কী হবে?’ তাঁর মতে, প্রতিবন্ধী নারীসহ অন্যান্য ক্ষেত্রেও বিশেষ ব্যবস্থা অনুযায়ী হবে। বিশ্বের উন্নত দেশেও অভিভাবকদের সম্মতিতে এ ধরনের বিয়ের কথা বলা আছে। সব দিক বিবেচনা করে তাঁরা সূক্ষ্মভাবে আইনটি করতে চান বলে জানান। প্রতিমন্ত্রীর এই বক্তব্যের সঙ্গে একমত নন জাতিসংঘের সনদ নারীর প্রতি সকল প্রকার বৈষম্য বিলোপ বা সিডও কমিটির সাবেক চেয়ারপারসন এবং বেসরকারি সংগঠন উইমেন ফর উইমেনের নির্বাহী কমিটির সদস্য সালমা খান। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, একটি মেয়ে ধর্ষণের শিকার হলে তাকে ধর্ষকের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া সরকারের কাজ নয়। এখন অনেক মেয়ে ধর্ষণের শিকার হলে তার প্রতিকার চাইছে। বিষয়টি এখন আর এমন নয় যে ধর্ষণের কথা মুখেই আনা যাবে না। তাই সরকারকে স্বচ্ছ একটি আইন করতে হবে। ভারতে কোন বিবাহিত নারী বা পুরুষ যদি অন্য কারো সাথে পরকীয়া সম্পর্ক করেন - তাহলে তা আর ফৌজদারি অপরাধ বলে গণ্য হবে না বলে রায় দিয়েছে সেদেশের সুপ্রিম কোর্ট। বাংলাদেশে পরকীয়া সংক্রান্ত আইন অনুযায়ী ঠিক কি বলা হয়েছে? আইনি সহায়তা প্রতিষ্ঠান আইন ও সালিশ কেন্দ্রের একজন আইনজীবী নীনা গোস্বামীর কাছে এ প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, এ সংক্রান্ত আইন খুব বেশি নেই। তবে ৪৫৭ ধারায় বলা হয়েছে যে কোন বিবাহিত ব্যক্তি যদি অন্য কোন বিবাহিত নারীর সাথে জেনেশুনে যৌন সম্পর্ক করে তাহলে তা ব্যভিচার বলে গণ্য হবে। এ ক্ষেত্রে সেই পুরুষটির পাঁচ বছরের কারাদন্ড, অর্থদন্ড বা উভয় দন্ডের বিধান আছে। তবে যে নারীর সাথে ব্যভিচার করা হয়েছে - তার ক্ষেত্রে আইনে কোন শাস্তির বিধান নেই, ব্যভিচারকারী নারী ও পুরুষ উভয়ের শাস্তির কথাও বলা নেই। নীনা গোস্বামী বলেন, তবে এর অপপ্রয়োগ হয়ে থাকে, অনেক সময় অজ্ঞতার কারণেও ব্যভিচারের ঘটনায় নারীকেও আসামী করা হয়েছে এমন দেখা গেছে। Meyeder Biyer Nyunatam Bayas 18 E Thakchhe Tove MA Baba Chaile 16 Bachhareo Biye Hate Pare Biyer Bayas 18 Theke 16 Karar Parikalpana Tibrabhabe Samalochit Hwar Par Sarkar AE NATUN Kaushal Anujayi Katha Bhabchhe Mahila O Shishubishayak Mantranalay Itimadhye A Bishye Ekati Ain Anujayi Khasara Tairi Karechhe Balyabibah Nirodh Ain 2014 Name Ain Anujayi AE Khasara Matamter Janya Ain Mantranalye Pathanoo Hayechhe Khasaray Ullekh Ache ‘juktisangat Karne MA Baba Ba Adalter Sammatite 16 Bachhar Bayase Kono Nari Biye Karale Sei Xetre Tini “aparinat Bayask” Ble Ganya Haben Na ’ Khasara Ainatir Bishye Pradhanamantri Shekh Hasina Gata 18 Disembar Je Anushasan Diyechhen Tate Bala Hayechhe ‘biyer Bayas 18 Tove Pitamata Ba Adalter Sammatite 16 Bachhar Sakaler Kachhe Grahanajogya Habe Samajik Samasya Com Habe ’ Tove Sishu O Strirog Bisheshagya Evan Nari O Sishu Adhikar Niye Kaj Curren Eman Byaktira Sorcerer AE Bhabnar Sange Ekamat Non A Bishye Jante Chaile Sishu Bisheshagya O Jatiya Adhyapak M Are Khan Pratham Aloke Baleno 18 Bachhar Bayaser Age Karao Biye Hwa Uchit Nay 18 Bachharer Age Keu Bichar Buddhi Bibechnabodhasampanna Hate Pare Na Ta Chhara 18 Bachhar Na Hale Ekajan Bhotao Dite Parchhe Na Are Nizar Paye Na Danriye Biye Karale Keu Kono Anyayer Biruddhe Pratibad Karate Parbe Na Gata 12 Januyari Ain Mantranalye Je Khasarati Matamter Janya Pathano Hayechhe Tateo Pradhanamantrir Anushasner Katha Ullekh Ache Khasaray Bala Hayechhe Aparinat Bayask Ba ‘mainaro Volte Purush Hale Anyun 21 Evan Nari Hale Anyun 18 Bachhar Bayasi Kono Byaktike Bojhabe Tove Juktisangat Karne MA Baba Ba Adalter Sammatite Anyun 16 Bachhar Bayasi Kono Nari Biye Karale Say Xetre Say Aparinat Bayask Ble Ganya Habe Na Sishu Ain Shishunitisah Bibhinna Ain O Niti Evan Jatisangher Sishu Adhikar Sanadasah Bibhinna Canada Anusamarthan Kare Sarkar 18 Bachharer Com Bayasider Sishu Hisebe Sanggyayit Karechhe Tahle NATUN Khasara Aare Sange Sangharshik Ki Na A Prashna Kara Hale Mahila O Shishubishayak Pratimantri MEHER Afaroj Chumki Pratham Aloke Baleno ‘amara Bayaser Byapare Siddhante Ese Gechhi Biyer Nyunatam Bayas 18 Habe Kintu Biye Chhara Keu Pregnant Antahsattba Haye Gele Key Habe ’ Tanr Mate Pratibandhi Narisah Anyanya Xetreo Vishesha Byabastha Anujayi Habe Bishwer Unnat Desheo Abhibhabakader Sammatite A Dharaner Biyer Katha Bala Ache Sab Dik Bibechana Kare Tanra Sukshmabhabe Ainati Karate Sun Ble Janan Pratimantrir AE Baktabyer Sange Ekamat Non Jatisangher Canada Narir Prati Sakal Prakar Baishamya Bilop Ba Sidao Kamitir Sabek Cheyarparasan Evan Besarakari Sangathan Uimen For Uimener Nirbahi Kamitir Sadasya SALMA Khan Pratham Aloke Tini Baleno Ekati Meye Dharshaner Shikar Hale Take Dharshaker Sange Biye Dewa Sorcerer Kaj Nay Ekhan Anek Meye Dharshaner Shikar Hale Taur Pratikar Chaichhe Bishayati Ekhan Are Eman Nay Je Dharshaner Katha Mukhei Ana Jabe Na Tai Sarakarke Swachchh Ekati Ain Karate Habe Bharte Koun Bibahit Nari Ba Purush Jodi Anya Karo Sathe Parakiya Sampark Curren - Tahle Ta Are Faujdari Aparadh Ble Ganya Habe Na Ble Ray Diyechhe Sedesher Supreme Court Bangladeshe Parakiya Sankranta Ain Anujayi Thik Ki Bala Hayechhe Aini Sahayata Pratisthan Ain O Salish Kendrer Ekajan Ainajibi Neena Goswamir Kachhe A Prashna Kara Hale Tini Baleno A Sankranta Ain Khub Bedshee Nei Tove 457 Dharay Bala Hayechhe Je Koun Bibahit Byakti Jodi Anya Koun Bibahit Narir Sathe Jeneshune Jaun Sampark Kare Tahle Ta Byabhichar Ble Ganya Habe A Xetre Sei Purushtir Paanch Bachharer Karadand Arthadand Ba Ubhay Dander Bidhan Ache Tove Je Narir Sathe Byabhichar Kara Hayechhe - Taur Xetre Aine Koun Shastir Bidhan Nei Byabhicharkari Nari O Purush Ubhayer Shastir Kathao Bala Nei Neena Goswami Baleno Tove Aare Apaprayog Haye Thake Anek Samay Agyatar Karneo Byabhicharer Ghatanay Narikeo Asami Kara Hayechhe Eman Dekha Gechhe
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Ain Anujayi Ki Kora Uchit,What Should Be Done By Law?,


vokalandroid