অনীশ দেব সম্পর্কে আলোচনা করো । ...

অনীশ দেব. Onish Dev জন্ম ২২ অক্টোবর ১৯৫১, কলকাতায়। স্কুলের পড়াশোনাঃ হিন্দু স্কুল। সাম্মানিক পদার্থবিজ্ঞানে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক এবং ফলিত পদার্থবিজ্ঞানে বি. টেক, এম.টেক. ও পিএইচ.ডি.। পেয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি স্বর্ণপদক ও একটি রৌপ্যপদক।এপ্রিলের শেষ সপ্তাহের এক নিরিবিলি দুপুরে কল্পবিশ্বের তিন সদস্য দীপ ঘোষ, বিশ্বদীপ দে ও সুপ্রিয় দাস মুখোমুখি হয়েছিলেন বাংলা কল্পবিজ্ঞানের দুই প্রথিতযশা সাহিত্যিক অনীশ দেব ও সৈকত মুখোপাধ্যায়ের। সঙ্গে ছিলেন কল্পবিজ্ঞানের আরেক মনোযোগী পাঠক শৌভিক চক্রবর্তী। আড্ডার মধ্যে দিয়ে কোথা দিয়ে যে কেটে গেল অনেকটা সময়, বোঝাই গেল ।দেখা যায় না, শোনা যায় - অনীশ দেব অনীশ দেবের জন্ম ২২ অক্তোবর ১৯৫১,কলকাতায় | পদার্থ বিজ্ঞানে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্মানিক স্নাতক এবং ফলিত পদার্থ বিজ্ঞানে বি.টেক ,এম.টেক, পিই এইজ ডি | বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি স্বর্ণ ও একটি রৌপপদক পেয়েছেন | কর্মজীবন : কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের রিডার |
Romanized Version
অনীশ দেব. Onish Dev জন্ম ২২ অক্টোবর ১৯৫১, কলকাতায়। স্কুলের পড়াশোনাঃ হিন্দু স্কুল। সাম্মানিক পদার্থবিজ্ঞানে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক এবং ফলিত পদার্থবিজ্ঞানে বি. টেক, এম.টেক. ও পিএইচ.ডি.। পেয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি স্বর্ণপদক ও একটি রৌপ্যপদক।এপ্রিলের শেষ সপ্তাহের এক নিরিবিলি দুপুরে কল্পবিশ্বের তিন সদস্য দীপ ঘোষ, বিশ্বদীপ দে ও সুপ্রিয় দাস মুখোমুখি হয়েছিলেন বাংলা কল্পবিজ্ঞানের দুই প্রথিতযশা সাহিত্যিক অনীশ দেব ও সৈকত মুখোপাধ্যায়ের। সঙ্গে ছিলেন কল্পবিজ্ঞানের আরেক মনোযোগী পাঠক শৌভিক চক্রবর্তী। আড্ডার মধ্যে দিয়ে কোথা দিয়ে যে কেটে গেল অনেকটা সময়, বোঝাই গেল ।দেখা যায় না, শোনা যায় - অনীশ দেব অনীশ দেবের জন্ম ২২ অক্তোবর ১৯৫১,কলকাতায় | পদার্থ বিজ্ঞানে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্মানিক স্নাতক এবং ফলিত পদার্থ বিজ্ঞানে বি.টেক ,এম.টেক, পিই এইজ ডি | বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি স্বর্ণ ও একটি রৌপপদক পেয়েছেন | কর্মজীবন : কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের রিডার | Aneesha Deb Onish Dev Janma 22 Aktobar 1951 Kalakatay Skuler Parashonah Hindu School Sammanik Padarthabigyane Kolkata Bishwabidyalayer Snatak Evan Falit Padarthabigyane Be Take M Take O PH Di Peyechhen Bishwabidyalayer Duti Swarnapadak O Ekati Raupyapadak Epriler Sesh Saptaher Ec Niribili Dupure Kalpabishwer Tin Sadasya Deepa Ghosh Biswadeep They O Supriya Das Mukhomukhi Hayechhilen Bangla Kalpabigyaner Dui Prathitajasha Sahityik Aneesha Deb O Saikat Mukhopadhyayer Sange Chhilen Kalpabigyaner Arek Manojogi Pathak Souvik Chakravorti Addar Madhye Diye Kotha Diye Je Kete Gel Anekata Samay Bojhai Gel Dekha Jay Na Shona Jay - Aneesha Deb Aneesha Debar Janma 22 Aktobar 1951 Kalakatay | Padartha Bigyane Kolkata Bishwabidyalayer Sammanik Snatak Evan Falit Padartha Bigyane Be Take M Take PE Eij Di | Bishwabidyalayer Duti Swarna O Ekati Raupapadak Peyechhen | Karmajiban : Kolkata Bishwabidyalayer Falit Padartha Bigyan Bibhager Ridar |
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


অনীশ দেব সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হল , কল্পবিজ্ঞানের আড্ডায় – অনীশ দেব ও সৈকত মুখোপাধ্যায়ের মুখোমুখি ।এপ্রিলের শেষ সপ্তাহের এক নিরিবিলি দুপুরে কল্পবিশ্বের তিন সদস্য দীপ ঘোষ, বিশ্বদীপ দে ও সুপ্রিয় দাস মুখোমুখি হয়েছিলেন বাংলা কল্পবিজ্ঞানের দুই প্রথিতযশা সাহিত্যিক অনীশ দেব ও সৈকত মুখোপাধ্যায়ের। সঙ্গে ছিলেন কল্পবিজ্ঞানের আরেক মনোযোগী পাঠক শৌভিক চক্রবর্তী। আড্ডার মধ্যে দিয়ে কোথা দিয়ে যে কেটে গেল অনেকটা সময়, বোঝাই গেল না। কেমন করে নতুনরা কল্পবিজ্ঞান লিখবেন সে আলোচনার পাশাপাশি উঠে এল বিশ্বশ্রেষ্ঠ কল্পবিজ্ঞান লেখকদের কথা। উঠে এল হারিয়ে যাওয়া ‘আশ্চর্য’ ম্যাগাজিনের প্রসঙ্গ, অধুনাবিস্মৃত সিদ্ধার্থ ঘোষ, দিলীপ রায়চৌধুরী থেকে হাল আমলের সাহিত্যিকদের নামও। সেই মনোজ্ঞ আলোচনা রইল ‘কল্পবিশ্ব’-র পাঠকদের জন্য। অনীশঃ সবার আগে তাকে ভালো পাঠক হতে হবে। অনেক অনেক সায়েন্স ফিকশন পড়া উচিত তার। বাংলা তো পড়তেই হবে, এর সঙ্গে ইংরেজিও পড়তে হবে। অন্য কোনও ভাষা থেকে ইংরেজিতে খুব ভালো অনুবাদ পেলে সেটাও পড়ে নিতে হবে। পড়তে পড়তে সে নিজেই বুঝতে পারবে কী করে একটা ভালো লেখা লিখতে হয়। কিন্তু দুঃখের বিষয়, আজকালকার অনেক লেখককেই দেখি তারা নিজের লেখা নিয়ে বলতেই বেশি ব্যস্ত। অথচ অন্যের লেখা পড়ার অভ্যেস তাদের একেবারেই নেই। হয়তো বাংলা সাহিত্যের কিছু ক্লাসিক রচনা পড়েছে, ব্যাস ওইটুকুই। অথচ পড়াটা একজন লেখকের খুব দরকার। এরপর যেটার কথা বলব সেটা হল কল্পনাপ্রবণতা। যে লেখক যত বেশি কল্পনা করতে পারবেন, তিনি তত শক্তিশালী লেখক হয়ে উঠতে পারবেন। আর সবশেষে বলব ভাষা অর্থাৎ সরস্বতীর কথা। ভাষাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে বই পড়তেই হয়। পড়তে পড়তে শেখা যায়। কিন্তু আসল অনুশীলন হয় লিখতে লিখতে। লিখতে লিখতে ভাষা গ্রো করে। আমার নিজের কত পুরোনো লেখা এখন আর আমার একদম পছন্দ হয় না। চাইলে সেগুলো থেকেও বই হতে পারে, কিন্তু আমি চাই না সেই লেখাগুলো আর পাঠক পড়ুক। তাই বই হতে দিইনি। অনীশ দেব হ্যাঁ, ঠিকই। উনি খুব মজা করেছিলেন মঙ্গল নিয়ে। দেখা গেল, পৃথিবী থেকে মঙ্গলে গিয়ে একটা বাড়িতে নক করছে, এক ভদ্রমহিলা বেরিয়ে এসে বলছে, কী ব্যপার? উত্তরে ‘পৃথিবী থেকে আসছি’ শুনে তিনি ভাবলেশহীন হয়ে বললেন, ‘হ্যাঁ, তো কী হয়েছে?’ এমন একটা ব্যাপার যেন, ভিখারি ভিক্ষা করতে এসেছে, আর তাকে বলা হচ্ছে, ‘মাফ করো ভাই।’ (হাসি) এটা কিন্তু উনি মজা করে লিখেছিলেন। বইটা অসম্ভব ভালো বই। এ প্রসঙ্গে বলতে পারি, এইচ জি ওয়েলসের ‘ইনভিজিবল ম্যান’-এও কিন্তু একটা সমস্যা আছে। একজন লোক অদৃশ্য হলে তার রেটিনায় কোনও প্রতিফলন হবে না। ফলে সে অন্ধ হয়ে যাবে। এটা কি ওয়েলস জানতেন না? ভালো করেই জানতেন। কিন্তু লেখার সময় তিনি বুঝেছিলেন, এটা দেখালে প্লটের মজাটা নষ্ট হবে। সুতরাং তিনি সেটাকে সযত্নে পরিহার করেছিলেন। যদিও ভুলে গেলে চলবে না এটা তিনি যখন লিখছেন, তখন তিনি বিখ্যাত লেখক। কাজেই তাঁকে যেটা মানায় সেটা অন্যদের মানায় না। আমাদের কিন্তু মাথায় রাখতে হবে, যেন বিজ্ঞানটাকে আমরা ভুল না লিখি।
Romanized Version
অনীশ দেব সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হল , কল্পবিজ্ঞানের আড্ডায় – অনীশ দেব ও সৈকত মুখোপাধ্যায়ের মুখোমুখি ।এপ্রিলের শেষ সপ্তাহের এক নিরিবিলি দুপুরে কল্পবিশ্বের তিন সদস্য দীপ ঘোষ, বিশ্বদীপ দে ও সুপ্রিয় দাস মুখোমুখি হয়েছিলেন বাংলা কল্পবিজ্ঞানের দুই প্রথিতযশা সাহিত্যিক অনীশ দেব ও সৈকত মুখোপাধ্যায়ের। সঙ্গে ছিলেন কল্পবিজ্ঞানের আরেক মনোযোগী পাঠক শৌভিক চক্রবর্তী। আড্ডার মধ্যে দিয়ে কোথা দিয়ে যে কেটে গেল অনেকটা সময়, বোঝাই গেল না। কেমন করে নতুনরা কল্পবিজ্ঞান লিখবেন সে আলোচনার পাশাপাশি উঠে এল বিশ্বশ্রেষ্ঠ কল্পবিজ্ঞান লেখকদের কথা। উঠে এল হারিয়ে যাওয়া ‘আশ্চর্য’ ম্যাগাজিনের প্রসঙ্গ, অধুনাবিস্মৃত সিদ্ধার্থ ঘোষ, দিলীপ রায়চৌধুরী থেকে হাল আমলের সাহিত্যিকদের নামও। সেই মনোজ্ঞ আলোচনা রইল ‘কল্পবিশ্ব’-র পাঠকদের জন্য। অনীশঃ সবার আগে তাকে ভালো পাঠক হতে হবে। অনেক অনেক সায়েন্স ফিকশন পড়া উচিত তার। বাংলা তো পড়তেই হবে, এর সঙ্গে ইংরেজিও পড়তে হবে। অন্য কোনও ভাষা থেকে ইংরেজিতে খুব ভালো অনুবাদ পেলে সেটাও পড়ে নিতে হবে। পড়তে পড়তে সে নিজেই বুঝতে পারবে কী করে একটা ভালো লেখা লিখতে হয়। কিন্তু দুঃখের বিষয়, আজকালকার অনেক লেখককেই দেখি তারা নিজের লেখা নিয়ে বলতেই বেশি ব্যস্ত। অথচ অন্যের লেখা পড়ার অভ্যেস তাদের একেবারেই নেই। হয়তো বাংলা সাহিত্যের কিছু ক্লাসিক রচনা পড়েছে, ব্যাস ওইটুকুই। অথচ পড়াটা একজন লেখকের খুব দরকার। এরপর যেটার কথা বলব সেটা হল কল্পনাপ্রবণতা। যে লেখক যত বেশি কল্পনা করতে পারবেন, তিনি তত শক্তিশালী লেখক হয়ে উঠতে পারবেন। আর সবশেষে বলব ভাষা অর্থাৎ সরস্বতীর কথা। ভাষাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে বই পড়তেই হয়। পড়তে পড়তে শেখা যায়। কিন্তু আসল অনুশীলন হয় লিখতে লিখতে। লিখতে লিখতে ভাষা গ্রো করে। আমার নিজের কত পুরোনো লেখা এখন আর আমার একদম পছন্দ হয় না। চাইলে সেগুলো থেকেও বই হতে পারে, কিন্তু আমি চাই না সেই লেখাগুলো আর পাঠক পড়ুক। তাই বই হতে দিইনি। অনীশ দেব হ্যাঁ, ঠিকই। উনি খুব মজা করেছিলেন মঙ্গল নিয়ে। দেখা গেল, পৃথিবী থেকে মঙ্গলে গিয়ে একটা বাড়িতে নক করছে, এক ভদ্রমহিলা বেরিয়ে এসে বলছে, কী ব্যপার? উত্তরে ‘পৃথিবী থেকে আসছি’ শুনে তিনি ভাবলেশহীন হয়ে বললেন, ‘হ্যাঁ, তো কী হয়েছে?’ এমন একটা ব্যাপার যেন, ভিখারি ভিক্ষা করতে এসেছে, আর তাকে বলা হচ্ছে, ‘মাফ করো ভাই।’ (হাসি) এটা কিন্তু উনি মজা করে লিখেছিলেন। বইটা অসম্ভব ভালো বই। এ প্রসঙ্গে বলতে পারি, এইচ জি ওয়েলসের ‘ইনভিজিবল ম্যান’-এও কিন্তু একটা সমস্যা আছে। একজন লোক অদৃশ্য হলে তার রেটিনায় কোনও প্রতিফলন হবে না। ফলে সে অন্ধ হয়ে যাবে। এটা কি ওয়েলস জানতেন না? ভালো করেই জানতেন। কিন্তু লেখার সময় তিনি বুঝেছিলেন, এটা দেখালে প্লটের মজাটা নষ্ট হবে। সুতরাং তিনি সেটাকে সযত্নে পরিহার করেছিলেন। যদিও ভুলে গেলে চলবে না এটা তিনি যখন লিখছেন, তখন তিনি বিখ্যাত লেখক। কাজেই তাঁকে যেটা মানায় সেটা অন্যদের মানায় না। আমাদের কিন্তু মাথায় রাখতে হবে, যেন বিজ্ঞানটাকে আমরা ভুল না লিখি। Aneesha Deb Samparke Bistarit Alochana Kara Hall , Kalpabigyaner Adday – Aneesha Deb O Saikat Mukhopadhyayer Mukhomukhi Epriler Sesh Saptaher Ec Niribili Dupure Kalpabishwer Tin Sadasya Deepa Ghosh Biswadeep They O Supriya Das Mukhomukhi Hayechhilen Bangla Kalpabigyaner Dui Prathitajasha Sahityik Aneesha Deb O Saikat Mukhopadhyayer Sange Chhilen Kalpabigyaner Arek Manojogi Pathak Souvik Chakravorti Addar Madhye Diye Kotha Diye Je Kete Gel Anekata Camay Bojhai Gel Na Keymon Kare Natunara Kalpabigyan Likhben Say Alochnar Pashapashi Uthe L Bishwashreshtha Kalpabigyan Lekhakader Katha Uthe L Hariye Jawa ‘ashcharjo Myagajiner Prasanga Adhunabismrit Sidharth Ghosh Dilip Raychaudhuri Theke Hel Amaler Sahityikader Namao Sei Manogya Alochana Rail ‘kalpabishwo Ra Pathakader Janya Anishah Sawaar Age Take Valu Pathak Hate Habe Anek Anek Science Fikashan Para Uchit Taur Bangla Toh Paratei Habe Aare Sange Ingrejio Parate Habe Anya Konao Bhasha Theke Ingrejite Khub Valu Anubad Pele Setao Pare Nite Habe Parate Parate Say Nijei Bujhte Parbe Key Kare Ekata Valu Lekha Likhte Hya Kintu Duhkher Vysya Ajakalkar Anek Lekhakakei Dekhi Tara Nizar Lekha Niye Balatei Bedshee Byasta Athos Anyer Lekha Parar Abhyes Tader Ekebarei Nei Hayato Bangla Sahityer Kichhu Classic Rachana Parechhe Byas Oitukui Athos Parata Ekajan Lekhker Khub Darakar Erapar Jetar Katha Balab SATA Hall Kalpanaprabanata Je Lekhak Jat Bedshee Kalpana Karate Paraben Tini Tata Shaktishali Lekhak Huye Uthate Paraben Are Sabasheshe Balab Bhasha Arthat Saraswatir Katha Bhashake Niyantrane Anate By Paratei Hya Parate Parate Shekha Jay Kintu Asal Anushilan Hya Likhte Likhte Likhte Likhte Bhasha Grow Kare Amar Nizar Kat Purono Lekha Ekhan Are Amar Ekadam Pachhanda Hya Na Chaile Segulo Thekeo By Hate Pare Kintu Aami Chai Na Sei Lekhagulo Are Pathak Paruk Tai By Hate Diini Aneesha Deb Hyan Thikai Uni Khub Majaa Karechhilen Mangal Niye Dekha Gel Prithibi Theke Mangale Giye Ekata Barite Knock Karachhe Ec Bhadramahila Beriye Ese Balachhe Key Byapar Uttare ‘prithibi Theke Asachhio Shune Tini Bhableshhin Huye Balalen ‘hyan Toh Key Hayechhe ’ Eman Ekata Byapar Jen Bhikhari Bhiksha Karate Esechhe Are Take Bala Hachchhe ‘maf Karo Bhai ’ Hasi Etah Kintu Uni Majaa Kare Likhechhilen Baita Asambhab Valu By A Prasange Volte Pari H G Oyelser ‘invisible Myano Ave Kintu Ekata Samasya Ache Ekajan Loka Adrishya Hale Taur Retinay Konao Pratifalan Habe Na Fale Say Unde Huye Jabe Etah Ki Oyelas Janten Na Valu Karei Janten Kintu Lekhar Camay Tini Bujhechhilen Etah Dekhale Plater Majata Nashta Habe Sutarang Tini Setake Sajatne Parihar Karechhilen Jadio Bhule Gele Chalabe Na Etah Tini Jakhan Likhchhen Takhan Tini Bikhyat Lekhak Kajei Tanke Jeta Manay SATA Anyader Manay Na Amader Kintu Mathay Rakhte Habe Jen Bigyanatake Amara Bhool Na Likhi
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Aneesha Dev Somporke Alochana Karo ,Discuss About Anish Dev.,


vokalandroid