আইন যাতে ...

তথ্য জানার অধিকার আইন, ২০০৫ রতের সংসদের দ্বারা গৃহীত একটি আইন, যাতে নাগরিকগণ লোক-কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণের অধীনে থাকা তথ্য যাতে সহজে লাভ করতে পারে তারবাবে আইন যাতে ব্যবহারিক পদ্ধতি এটা প্রবর্তন করা হয়েছে। এই আইনটি জম্মু এবং কাশ্মীর বাদে ভারতের সব রাজ্য এবং আইন যাতে কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চলে প্রযোজ্য। তথ্য জানার অধিকার সংক্রান্ত জম্মু এবং কাশ্মীরের 'জম্মু এবং কাশ্মীর তথ্য জানার অধিকার, ২০০৯' শীর্ষক একটি নিজ আইন আছে। এই আইনের অধীনে নাগরিকগণ লোক-কর্তৃপক্ষর (সহজ অর্থে, কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের বিভাগসমূহ, রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্ক, বীমা প্রতিষ্ঠান, সরকারী পুঁজি লাভ করা বেসরকারী সংস্থা আদির) নিয়ন্ত্রণের অধীনে থাকা তথ্য নির্দিষ্ট মাসুলের বিনিময়ে জানতে পারে। এই আইনটি ২০০৫ সালের ১৫ জুন সংসদে গৃহীত হয়েছিল এবং সেই বছরে ১৩ অক্টোবর থেকে পূর্ণ কার্যকরী হয়েছিল।'সরকারী গোপনীয়তা আইন, ১৯২৩ এবং এরকম কয়েকটি আইন নাগরিকের তথ্য লাভ করার ক্ষেত্রে যে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করেছিল, সেসব 'তথ্য জানার অধিকার আইন, ২০০৫' নাকচ করে দেয়।
Romanized Version
তথ্য জানার অধিকার আইন, ২০০৫ রতের সংসদের দ্বারা গৃহীত একটি আইন, যাতে নাগরিকগণ লোক-কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণের অধীনে থাকা তথ্য যাতে সহজে লাভ করতে পারে তারবাবে আইন যাতে ব্যবহারিক পদ্ধতি এটা প্রবর্তন করা হয়েছে। এই আইনটি জম্মু এবং কাশ্মীর বাদে ভারতের সব রাজ্য এবং আইন যাতে কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চলে প্রযোজ্য। তথ্য জানার অধিকার সংক্রান্ত জম্মু এবং কাশ্মীরের 'জম্মু এবং কাশ্মীর তথ্য জানার অধিকার, ২০০৯' শীর্ষক একটি নিজ আইন আছে। এই আইনের অধীনে নাগরিকগণ লোক-কর্তৃপক্ষর (সহজ অর্থে, কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য সরকারের বিভাগসমূহ, রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্ক, বীমা প্রতিষ্ঠান, সরকারী পুঁজি লাভ করা বেসরকারী সংস্থা আদির) নিয়ন্ত্রণের অধীনে থাকা তথ্য নির্দিষ্ট মাসুলের বিনিময়ে জানতে পারে। এই আইনটি ২০০৫ সালের ১৫ জুন সংসদে গৃহীত হয়েছিল এবং সেই বছরে ১৩ অক্টোবর থেকে পূর্ণ কার্যকরী হয়েছিল।'সরকারী গোপনীয়তা আইন, ১৯২৩ এবং এরকম কয়েকটি আইন নাগরিকের তথ্য লাভ করার ক্ষেত্রে যে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করেছিল, সেসব 'তথ্য জানার অধিকার আইন, ২০০৫' নাকচ করে দেয়।Tathya Janar Adhikar Ain 2005 Rater Sansader Dwara Grihit Ekati Ain Jate Nagrikagan Loka Kartripaksher Niyantraner Adhine Thaka Tathya Jate Sahaje Love Karate Pare Tarbabe Ain Jate Byabaharik Paddhati Etah Prabartan Kara Hayechhe AE Ainati Jammu Evan Kashmir Bade Bharter Sab Rajya Evan Ain Jate Kendriya Shasit Anchale Prajojya Tathya Janar Adhikar Sankranta Jammu Evan Kashmirer Jammu Evan Kashmir Tathya Janar Adhikar 2009 Sheershak Ekati Nij Ain Ache AE Ainer Adhine Nagrikagan Loka Kartripakshar Suhaj Arthe Kendriya Evan Rajya Sorcerer Bibhagasamuh Rashtrayatba Bank Bima Pratisthan Sarakari Punji Love Kara Besarakari Sanstha Adira Niyantraner Adhine Thaka Tathya Nirdishta Masuler Binimaye Jante Pare AE Ainati 2005 Saler 15 June Sansade Grihit Hayechhil Evan Sei Bachhare 13 Aktobar Theke Purna Karjakari Hayechhil Sarakari Gopniyta Ain 1923 Evan Erakam Kayekati Ain Nagriker Tathya Love Karar Xetre Je Pratibandhakatar Srishti Karechhil Sesab Tathya Janar Adhikar Ain 2005 Nakach Kare Dey
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

কিভাবে পাকিস্তানের বাসিন্দারা ভারতের দেশাত্মবোধক গান করেন যাতে অভিনন্দনকে বিভ্রান্ত হয়? ...

শুক্রবারই নিজের মাটিতে পা দিয়েছেন ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। বুধবার পাকিস্তানের মাটিতে তাঁর মিগ–২১ বিমানটি ভেঙে পড়েছিল। তারপরই পাক সেনার হাতে বন্দী হতে হয়েছিল অভিনন্দনকে। পাকিস্जवाब पढ़िये
ques_icon

More Answers


নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’ আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’ হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’
Romanized Version
নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’ আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়—সেটি খেয়াল রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি, আইসিটি আইন সংশোধন করে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হচ্ছে। সেখানে আমরা যতটুকু জেনেছি, ৫৭ ধারাকে বিভিন্নভাবে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’ হয়েছে। এই আইন যাতে সাংবাদিকদের পেশাগত বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, মানুষের স্বাভাবিক মত প্রকাশে বাধা হয়ে না দাঁড়ায়।’ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আইসিটি বিষয়ে সাংবাদিকেদর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এই সাংবাদিক নেতা বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই, নতুন এই আইনের মধ্যে কি বিষয়গুলো আছে। সেই আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কি বিধি-বিধান আছে। অপপ্রয়োগের মধ্যে কি সম্ভাবনা আছে। সেজন্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমাদের সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে— যেহেতু আইনটিতে গণমাধ্যমকর্মীদের সম্পর্ক রয়েছে; তাই সাংবাদিক, সিনিয়র সম্পাদক ও সাংবাদিকতার শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে।’ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজনে কর্মশালায় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্ব করেন। বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন ও সাংবাদিক নেতারা এসময় বক্তব্য রাখেন। মনজুরুল আহসান বুববুল আরও বলেন, ‘আইসিটি আইন যখন প্রণয়ন হয়, তখন সেখানে বলা হয়েছিল— সন্ত্রাস ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হয়েছে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে অপপ্রয়োগ হয়েছে। আমাদের আপত্তি ছিল অপপ্রয়োগ নিয়ে। আমরা মনে করি বাংলাদেশে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য নতুন ডিজিটাল আইন অপরিহার্য। রাষ্ট্রের, জনগণের নিরাপত্তার জন্য; জঙ্গি তৎরপতা দমনের জন্য আধুনিক প্রযুক্তিগত নিরাপত্তাসহ যেকোনও আইনকে সাংবাদিক সমাজ স্বাগত জানায়।’ NATUN Digital Nirapatta Ain Jate Sangbadikder Peshagat Kaje Badha Huye Na Danray—seti Kheyal Rakhar Janya NATUN Digital Nirapatta Ain Jate Sangbadikder Peshagat Kaje Badha Huye Na Danray—seti Kheyal Rakhar Janya Ahban Janiyechhen Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Sabhapati Manajurul Ahsan Bulbul Tini Baleno ‘amara Jante Perechhi ICT Ain Sangshodhan Kare NATUN Digital Nirapatta Ain Kara Hachchhe Sekhane Amara Jatatuku Jenechhi 57 Dharake Bibhinnabhabe Chhariye Chhitiye Dewa Hayechhe AE Ain Jate Sangbadikder Peshagat Badha Huye Na Danray Manusher Swabhabik Matt Prakashe Badha Huye Na Danray ’ Sombar 29 Januyari Dupure Kaksabajar Presaklabe ICT Vise Sangbadikedar Prashikshan Karmashalay Pradhan Atithir Baktabye Tini Esab Katha Baleno AE Sangbadik Neta Baleno ‘amara Dekhte Chai NATUN AE Ainer Madhye Ki Bishayagulo Ache Sei Ain Prayoger Xetre Ki Bidhi Bidhan Ache Apaprayoger Madhye Ki Sambhabana Ache Sejanya Sangbadikder Pax Theke Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Pax Theke Amader Suspashta Baktabya Hachchhe— Jehetu Ainatite Ganamadhyamakarmider Sampark Rayechhe Tai Sangbadik Siniyar Sampadak O Sangbadiktar Shikshakader Sange Alochana Karate Habe ’ Bangladesh Federal Sangbadik UNION O Kaksabajar Sangbadik UNION Ayojane Karmashalay Kaksabajar Sangbadik Yuniyner Sabhapati Abu Taherer Sabhaptitba Curren Biefaiujer Mahaschib Omar Farook Kaksabajar Jela Prashasak Mo Ali Hossain O Sangbadik Netara Esamay Baktabya Rakhen Manajurul Ahsan Bubbul RO Baleno ‘ICT Ain Jakhan Pranayan Hya Takhan Sekhane Bala Hayechhil— Santras O Jatiya Nirapattar Janya Kara Hayechhe Kintu Amara Dekhechhi Je ICT Ainer 57 Dhara Sangbadikder Biruddhe Dharabahikbhabe Apaprayog Hayechhe Amader Apatti Chhil Apaprayog Niye Amara Money Kari Bangladeshe Jatiya Nirapattar Janya NATUN Digital Ain Apariharjya Rashtrer Janaganer Nirapattar Janya Jangi Ttrapata Damaner Janya Adhunik Prajuktigat Nirapattasah Jekonao Ainake Sangbadik Samaj Swaagat Janay ’ Ahban Janiyechhen Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Sabhapati Manajurul Ahsan Bulbul Tini Baleno ‘amara Jante NATUN Digital Nirapatta Ain Jate Sangbadikder Peshagat Kaje Badha Huye Na Danray—seti Kheyal Rakhar Janya Ahban Janiyechhen Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Sabhapati Manajurul Ahsan Bulbul Tini Baleno ‘amara Jante Perechhi ICT Ain Sangshodhan Kare NATUN Digital Nirapatta Ain Kara Hachchhe Sekhane Amara Jatatuku Jenechhi 57 Dharake Bibhinnabhabe Chhariye Chhitiye Dewa Hayechhe AE Ain Jate Sangbadikder Peshagat Badha Huye Na Danray Manusher Swabhabik Matt Prakashe Badha Huye Na Danray ’ Sombar 29 Januyari Dupure Kaksabajar Presaklabe ICT Vise Sangbadikedar Prashikshan Karmashalay Pradhan Atithir Baktabye Tini Esab Katha Baleno AE Sangbadik Neta Baleno ‘amara Dekhte Chai NATUN AE Ainer Madhye Ki Bishayagulo Ache Sei Ain Prayoger Xetre Ki Bidhi Bidhan Ache Apaprayoger Madhye Ki Sambhabana Ache Sejanya Sangbadikder Pax Theke Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Pax Theke Amader Suspashta Baktabya Hachchhe— Jehetu Ainatite Ganamadhyamakarmider Sampark Rayechhe Tai Sangbadik Siniyar Sampadak O Sangbadiktar Shikshakader Sange Alochana Karate Habe ’ Bangladesh Federal Sangbadik UNION O Kaksabajar Sangbadik UNION Ayojane Karmashalay Kaksabajar Sangbadik Yuniyner Sabhapati Abu Taherer Sabhaptitba Curren Biefaiujer Mahaschib Omar Farook Kaksabajar Jela Prashasak Mo Ali Hossain O Sangbadik Netara Esamay Baktabya Rakhen Manajurul Ahsan Bubbul RO Baleno ‘ICT Ain Jakhan Pranayan Hya Takhan Sekhane Bala Hayechhil— Santras O Jatiya Nirapattar Janya Kara Hayechhe Kintu Amara Dekhechhi Je ICT Ainer 57 Dhara Sangbadikder Biruddhe Dharabahikbhabe Apaprayog Hayechhe Amader Apatti Chhil Apaprayog Niye Amara Money Kari Bangladeshe Jatiya Nirapattar Janya NATUN Digital Ain Apariharjya Rashtrer Janaganer Nirapattar Janya Jangi Ttrapata Damaner Janya Adhunik Prajuktigat Nirapattasah Jekonao Ainake Sangbadik Samaj Swaagat Janay ’perechhi ICT Ain Sangshodhan Kare NATUN Digital Nirapatta Ain Kara Hachchhe NATUN Digital Nirapatta Ain Jate Sangbadikder Peshagat Kaje Badha Huye Na Danray—seti Kheyal Rakhar Janya Ahban Janiyechhen Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Sabhapati Manajurul Ahsan Bulbul Tini Baleno ‘amara Jante Perechhi ICT Ain Sangshodhan Kare NATUN Digital Nirapatta Ain Kara Hachchhe Sekhane Amara Jatatuku Jenechhi 57 Dharake Bibhinnabhabe Chhariye Chhitiye Dewa Hayechhe AE Ain Jate Sangbadikder Peshagat Badha Huye Na Danray Manusher Swabhabik Matt Prakashe Badha Huye Na Danray ’ Sombar 29 Januyari Dupure Kaksabajar Presaklabe ICT Vise Sangbadikedar Prashikshan Karmashalay Pradhan Atithir Baktabye Tini Esab Katha Baleno AE Sangbadik Neta Baleno ‘amara Dekhte Chai NATUN AE Ainer Madhye Ki Bishayagulo Ache Sei Ain Prayoger Xetre Ki Bidhi Bidhan Ache Apaprayoger Madhye Ki Sambhabana Ache Sejanya Sangbadikder Pax Theke Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Pax Theke Amader Suspashta Baktabya Hachchhe— Jehetu Ainatite Ganamadhyamakarmider Sampark Rayechhe Tai Sangbadik Siniyar Sampadak O Sangbadiktar Shikshakader Sange Alochana Karate Habe ’ Bangladesh Federal Sangbadik UNION O Kaksabajar Sangbadik UNION Ayojane Karmashalay Kaksabajar Sangbadik Yuniyner Sabhapati Abu Taherer Sabhaptitba Curren Biefaiujer Mahaschib Omar Farook Kaksabajar Jela Prashasak Mo Ali Hossain O Sangbadik Netara Esamay Baktabya Rakhen Manajurul Ahsan Bubbul RO Baleno ‘ICT Ain Jakhan Pranayan Hya Takhan Sekhane Bala Hayechhil— Santras O Jatiya Nirapattar Janya Kara Hayechhe Kintu Amara Dekhechhi Je ICT Ainer 57 Dhara Sangbadikder Biruddhe Dharabahikbhabe Apaprayog Hayechhe Amader Apatti Chhil Apaprayog Niye Amara Money Kari Bangladeshe Jatiya Nirapattar Janya NATUN Digital Ain Apariharjya Rashtrer Janaganer Nirapattar Janya Jangi Ttrapata Damaner Janya Adhunik Prajuktigat Nirapattasah Jekonao Ainake Sangbadik Samaj Swaagat Janay ’sekhane Amara Jatatuku Jenechhi 57 Dharake Bibhinnabhabe Chhariye Chhitiye Dewa NATUN Digital Nirapatta Ain Jate Sangbadikder Peshagat Kaje Badha Huye Na Danray—seti Kheyal Rakhar Janya Ahban Janiyechhen Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Sabhapati Manajurul Ahsan Bulbul Tini Baleno ‘amara Jante Perechhi ICT Ain Sangshodhan Kare NATUN Digital Nirapatta Ain Kara Hachchhe Sekhane Amara Jatatuku Jenechhi 57 Dharake Bibhinnabhabe Chhariye Chhitiye Dewa Hayechhe AE Ain Jate Sangbadikder Peshagat Badha Huye Na Danray Manusher Swabhabik Matt Prakashe Badha Huye Na Danray ’ Sombar 29 Januyari Dupure Kaksabajar Presaklabe ICT Vise Sangbadikedar Prashikshan Karmashalay Pradhan Atithir Baktabye Tini Esab Katha Baleno AE Sangbadik Neta Baleno ‘amara Dekhte Chai NATUN AE Ainer Madhye Ki Bishayagulo Ache Sei Ain Prayoger Xetre Ki Bidhi Bidhan Ache Apaprayoger Madhye Ki Sambhabana Ache Sejanya Sangbadikder Pax Theke Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Pax Theke Amader Suspashta Baktabya Hachchhe— Jehetu Ainatite Ganamadhyamakarmider Sampark Rayechhe Tai Sangbadik Siniyar Sampadak O Sangbadiktar Shikshakader Sange Alochana Karate Habe ’ Bangladesh Federal Sangbadik UNION O Kaksabajar Sangbadik UNION Ayojane Karmashalay Kaksabajar Sangbadik Yuniyner Sabhapati Abu Taherer Sabhaptitba Curren Biefaiujer Mahaschib Omar Farook Kaksabajar Jela Prashasak Mo Ali Hossain O Sangbadik Netara Esamay Baktabya Rakhen Manajurul Ahsan Bubbul RO Baleno ‘ICT Ain Jakhan Pranayan Hya Takhan Sekhane Bala Hayechhil— Santras O Jatiya Nirapattar Janya Kara Hayechhe Kintu Amara Dekhechhi Je ICT Ainer 57 Dhara Sangbadikder Biruddhe Dharabahikbhabe Apaprayog Hayechhe Amader Apatti Chhil Apaprayog Niye Amara Money Kari Bangladeshe Jatiya Nirapattar Janya NATUN Digital Ain Apariharjya Rashtrer Janaganer Nirapattar Janya Jangi Ttrapata Damaner Janya Adhunik Prajuktigat Nirapattasah Jekonao Ainake Sangbadik Samaj Swaagat Janay ’ Hayechhe AE Ain Jate Sangbadikder Peshagat Badha Huye Na Danray Manusher Swabhabik Matt Prakashe Badha Huye Na Danray ’ Sombar 29 Januyari Dupure Kaksabajar Presaklabe ICT Vise Sangbadikedar Prashikshan Karmashalay Pradhan Atithir Baktabye Tini Esab Katha Baleno AE Sangbadik Neta Baleno ‘amara Dekhte Chai NATUN AE Ainer Madhye Ki Bishayagulo Ache Sei Ain Prayoger Xetre Ki Bidhi Bidhan Ache Apaprayoger Madhye Ki Sambhabana Ache Sejanya Sangbadikder Pax Theke Bangladesh Federal Sangbadik Yuniyner Pax Theke Amader Suspashta Baktabya Hachchhe— Jehetu Ainatite Ganamadhyamakarmider Sampark Rayechhe Tai Sangbadik Siniyar Sampadak O Sangbadiktar Shikshakader Sange Alochana Karate Habe ’ Bangladesh Federal Sangbadik UNION O Kaksabajar Sangbadik UNION Ayojane Karmashalay Kaksabajar Sangbadik Yuniyner Sabhapati Abu Taherer Sabhaptitba Curren Biefaiujer Mahaschib Omar Farook Kaksabajar Jela Prashasak Mo Ali Hossain O Sangbadik Netara Esamay Baktabya Rakhen Manajurul Ahsan Bubbul RO Baleno ‘ICT Ain Jakhan Pranayan Hya Takhan Sekhane Bala Hayechhil— Santras O Jatiya Nirapattar Janya Kara Hayechhe Kintu Amara Dekhechhi Je ICT Ainer 57 Dhara Sangbadikder Biruddhe Dharabahikbhabe Apaprayog Hayechhe Amader Apatti Chhil Apaprayog Niye Amara Money Kari Bangladeshe Jatiya Nirapattar Janya NATUN Digital Ain Apariharjya Rashtrer Janaganer Nirapattar Janya Jangi Ttrapata Damaner Janya Adhunik Prajuktigat Nirapattasah Jekonao Ainake Sangbadik Samaj Swaagat Janay ’
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Ain Jate,So That The Law,


vokalandroid