বিখ্যাত ছিলেন ইনগ্রিড সম্পর্কে লেখ? ...

বিখ্যাত ছিলেন ইনগ্রিড দত্তক গ্রহণ করা অনেক মহৎ একটি কাজ। প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা দুর্ভাগ্যজনক কোন ঘটনার কারণেই পরিবারে ভাঙ্গন সৃষ্টি হয় এবং মানুষের জীবন তছনছ হয়ে যায়। অনাথ শিশুকে সাহায্য করা এবং একটা সুন্দর জীবনযাপনের সুযোগ করে দেয়া আমাদের সবার দায়িত্ব। এই অনাথ শিশুটিই হয়তো একদিন জগৎ বিখ্যাত হবে। আজ আমরা এমন কয়েকজন বিখ্যাত মানুষের কথাই জানবো যারা ছিলেন দত্তক সন্তান। ১। নেলসন ম্যান্ডেলা দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনের নেতা নেলসন ম্যান্ডেলা বিশ্বব্যাপী মর্যাদার অধিকারী। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম কৃষ্ণ বর্ণের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। তিনি যখন ৯ বছর বয়সের বালক ছিলেন তখন তাঁর বাবা মারা যান। তখন জোগিন্টাবা ডালিন্ডেবো তাকে দত্তক গ্রহণ করেন। ১৮ জুলাই ম্যান্ডেলার জন্মদিন, এই দিনটিকে ম্যান্ডেলা দিবস বলা হয়ে থাকে। তাঁর স্মৃতি রক্ষার্থে এটা করা হয়েছে। তাঁর জনপ্রিয়তার অনুমান করা যায় এটা দিয়েই। তিনি ১৯৯৩ সালে শান্তিতে নোবেল পুরষ্কার লাভ করেন। ২। স্টিভ জবস অ্যাপল-এর সহ প্রতিষ্ঠাতা এবং ফর্মার সিইও ছিলেন স্টিভ জবস। তিনি জোয়ান স্কিবল এবং আব্দুল ফাতাহ জান্দালির ঘরে জন্ম গ্রহণ করেন। কিন্তু স্কিবল এর পিতামাতা একজন আরবের সাথে মেয়ের বিয়ে মেনে নেননি।তাই স্টিভ এর মা তাঁকে পল ও লারা জবস দম্পতির কাছে দত্তক দেন। স্টিভ জবস তাঁর জীবদ্দশায় পল ও লারা জবসকেই তার পিতামাতা বলে স্বীকৃতি দিয়েছেন।পল একজন মেকানিক ও কারপেন্টার ছিলেন।তাঁর এই জ্ঞান স্টিভ জবস পেয়েছিলেন যা তিনি ব্যাবহার করে প্রযুক্তির উৎকর্ষ সাধনে কাজে লাগিয়ে ছিলেন। ৩। মেরেলিন মনরো মেরেলিন মনরো ছিলেন তাঁর যুগের একজন স্বতন্ত্র ফ্যাশন আইকন এবং হলিউড অভিনেত্রী। তাঁর জন্মদাতা পিতা তাকে অস্বীকার করেছিলেন, পরে ফস্টার পরিবারে লালিতপালিত হয়েছিলেন তিনি। মেরিলিন এখনো আমেরিকার অভিনেত্রী ও ফ্যাশন মডেলদের আইকন। ৪। ডেভ থমাস আমরা অনেকেই ডেভ থমাসকে চিনবো না কিন্তু কে এফ সি এবং অয়েন্ডিস হ্যামবার্গার এর নাম আমরা সবাই শুনেছি। ডেভ থমাস ক্যান্টাকি ফ্রায়েড চিকেন এর প্রধান রাঁধুনি ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি অয়েন্ডিস নামের চেইন রেস্টুরেন্ট চালু করেন। একজন অবিবাহিত মহিলার ঘরে জন্ম গ্রহণ করেন। তাঁর ৬ বছর বয়সে রেক্স ও অলিভা থমাস তাকে দত্তক গ্রহণ করেন। এছাড়াও বিখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী জন লেলন, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিন্টন, হলিউড অভিনেত্রী ইনগ্রিড বারগম্যান, বেস বল খেলোয়াড় বেব রুথ, পরিচালক মাইকেল বে, সঙ্গীত শিল্পী প্রিসিলা প্রিসলি, নাগরিক অধিকার কর্মী ও রাজনীতিবিদ জেসি জ্যাকসন, লেখক অ্যাডগার এলান পো সহ আরো অনেক বিখ্যাত মানুষই তাদের জন্মদাতা মাতাপিতার কাছে থাকতে পারেন নি কিন্তু পালক বাবা মায়ের কাছে মানুষ হয়েছেন এবং নিজেদের প্রতিভার পূর্ণ বিকাশ ঘটিয়েছেন ।
Romanized Version
বিখ্যাত ছিলেন ইনগ্রিড দত্তক গ্রহণ করা অনেক মহৎ একটি কাজ। প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা দুর্ভাগ্যজনক কোন ঘটনার কারণেই পরিবারে ভাঙ্গন সৃষ্টি হয় এবং মানুষের জীবন তছনছ হয়ে যায়। অনাথ শিশুকে সাহায্য করা এবং একটা সুন্দর জীবনযাপনের সুযোগ করে দেয়া আমাদের সবার দায়িত্ব। এই অনাথ শিশুটিই হয়তো একদিন জগৎ বিখ্যাত হবে। আজ আমরা এমন কয়েকজন বিখ্যাত মানুষের কথাই জানবো যারা ছিলেন দত্তক সন্তান। ১। নেলসন ম্যান্ডেলা দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনের নেতা নেলসন ম্যান্ডেলা বিশ্বব্যাপী মর্যাদার অধিকারী। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম কৃষ্ণ বর্ণের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। তিনি যখন ৯ বছর বয়সের বালক ছিলেন তখন তাঁর বাবা মারা যান। তখন জোগিন্টাবা ডালিন্ডেবো তাকে দত্তক গ্রহণ করেন। ১৮ জুলাই ম্যান্ডেলার জন্মদিন, এই দিনটিকে ম্যান্ডেলা দিবস বলা হয়ে থাকে। তাঁর স্মৃতি রক্ষার্থে এটা করা হয়েছে। তাঁর জনপ্রিয়তার অনুমান করা যায় এটা দিয়েই। তিনি ১৯৯৩ সালে শান্তিতে নোবেল পুরষ্কার লাভ করেন। ২। স্টিভ জবস অ্যাপল-এর সহ প্রতিষ্ঠাতা এবং ফর্মার সিইও ছিলেন স্টিভ জবস। তিনি জোয়ান স্কিবল এবং আব্দুল ফাতাহ জান্দালির ঘরে জন্ম গ্রহণ করেন। কিন্তু স্কিবল এর পিতামাতা একজন আরবের সাথে মেয়ের বিয়ে মেনে নেননি।তাই স্টিভ এর মা তাঁকে পল ও লারা জবস দম্পতির কাছে দত্তক দেন। স্টিভ জবস তাঁর জীবদ্দশায় পল ও লারা জবসকেই তার পিতামাতা বলে স্বীকৃতি দিয়েছেন।পল একজন মেকানিক ও কারপেন্টার ছিলেন।তাঁর এই জ্ঞান স্টিভ জবস পেয়েছিলেন যা তিনি ব্যাবহার করে প্রযুক্তির উৎকর্ষ সাধনে কাজে লাগিয়ে ছিলেন। ৩। মেরেলিন মনরো মেরেলিন মনরো ছিলেন তাঁর যুগের একজন স্বতন্ত্র ফ্যাশন আইকন এবং হলিউড অভিনেত্রী। তাঁর জন্মদাতা পিতা তাকে অস্বীকার করেছিলেন, পরে ফস্টার পরিবারে লালিতপালিত হয়েছিলেন তিনি। মেরিলিন এখনো আমেরিকার অভিনেত্রী ও ফ্যাশন মডেলদের আইকন। ৪। ডেভ থমাস আমরা অনেকেই ডেভ থমাসকে চিনবো না কিন্তু কে এফ সি এবং অয়েন্ডিস হ্যামবার্গার এর নাম আমরা সবাই শুনেছি। ডেভ থমাস ক্যান্টাকি ফ্রায়েড চিকেন এর প্রধান রাঁধুনি ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি অয়েন্ডিস নামের চেইন রেস্টুরেন্ট চালু করেন। একজন অবিবাহিত মহিলার ঘরে জন্ম গ্রহণ করেন। তাঁর ৬ বছর বয়সে রেক্স ও অলিভা থমাস তাকে দত্তক গ্রহণ করেন। এছাড়াও বিখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী জন লেলন, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিন্টন, হলিউড অভিনেত্রী ইনগ্রিড বারগম্যান, বেস বল খেলোয়াড় বেব রুথ, পরিচালক মাইকেল বে, সঙ্গীত শিল্পী প্রিসিলা প্রিসলি, নাগরিক অধিকার কর্মী ও রাজনীতিবিদ জেসি জ্যাকসন, লেখক অ্যাডগার এলান পো সহ আরো অনেক বিখ্যাত মানুষই তাদের জন্মদাতা মাতাপিতার কাছে থাকতে পারেন নি কিন্তু পালক বাবা মায়ের কাছে মানুষ হয়েছেন এবং নিজেদের প্রতিভার পূর্ণ বিকাশ ঘটিয়েছেন ।Bikhyat Chhilen Inagrid Dattak Grahan Kara Anek Maht Ekati Kaj Praakritik Durjog Ba Durbhagyajanak Koun Ghatanar Karnei Paribare Bhangan Srishti Hya Evan Manusher Jeevan Tachhanachh Huye Jay Anath Shishuke Sahajya Kara Evan Ekata Sundar Jibanajapner Sujog Kare Dea Amader Sawaar Dayitba AE Anath Shishutii Hayato Ekadin Jagt Bikhyat Habe Az Amara Eman Kayekajan Bikhyat Manusher Kathai Janbo Jara Chhilen Dattak Santan 1 Nelson Myandela Dakhin Afrikar Barnabad Birodhi Andolaner Neta Nelson Myandela Bishwabyapi Marjadar Adhikari Tini Dakhin Afrikar Pratham Krishna Barner Presidenta Chhilen Tini Jakhan 9 Bachhar Bayaser Valka Chhilen Takhan Tanr Baba Mara Jan Takhan Jogintaba Dalindebo Take Dattak Grahan Curren 18 Gooli Myandelar Janmadin AE Dintike Myandela Dibas Bala Huye Thake Tanr Smriti Raksharthe Etah Kara Hayechhe Tanr Janapriyatar Anuman Kara Jay Etah Diyei Tini 1993 Sale Shantite Novel Purashkar Love Curren 2 Stibh Jobs Apal Aare Huh Pratishthata Evan Farmar CEO Chhilen Stibh Jobs Tini Jwan Skibal Evan Abdul Fatah Jandalir Ghare Janma Grahan Curren Kintu Skibal Aare Pitamata Ekajan Araber Sathe Meyer Bie Mene Nenni Tai Stibh Aare MA Tanke Paul O Lara Jobs Dampatir Kachhe Dattak Than Stibh Jobs Tanr Jibaddashay Paul O Lara Jabasakei Taur Pitamata Ble Swikriti Diyechhen Paul Ekajan Mechanic O Karpentar Chhilen Tanr AE Gyan Stibh Jobs Peyechhilen Ja Tini Byabahar Kare Prajuktir Utkarsh Sadhne Kaje Lagiye Chhilen 3 Merelin Munro Merelin Munro Chhilen Tanr Juger Ekajan Swatantra Fashion Icon Evan Hollywood Abhinetri Tanr Janmadata Pita Take Aswikar Karechhilen Pare Faster Paribare Lalitpalit Hayechhilen Tini Merilin Ekhano Amerikar Abhinetri O Fashion Madelder Icon 4 Debh Thames Amara Anekei Debh Thamasake Chinbo Na Kintu K F C Evan Ayendis Hamburger Aare NAM Amara Sabai Shunechhi Debh Thames Kyantaki FRIED Chicken Aare Pradhan Radhuni Chhilen Parabartite Tini Ayendis Namer Chain Restaurant Chalu Curren Ekajan Abibahit Mahilar Ghare Janma Grahan Curren Tanr 6 Bachhar Bayase Rucku O Aliva Thames Take Dattak Grahan Curren Echharao Bikhyat Sangeeta SHILPI John Lelan Amerikar Presidenta Bill Klintan Hollywood Abhinetri Inagrid Baragamyan Base Ball Khelwar Beb Ruth Parichalak Maikel Bay Sangeeta SHILPI Prisila Prisali Nagrik Adhikar Karmi O Rajnitibid JC Jyakasan Lekhak Adgar Elan Pu Huh Aro Anek Bikhyat Manushi Tader Janmadata Matapitar Kachhe Thakte Paren Ni Kintu Palak Baba Mayer Kachhe Manus Hayechhen Evan Nijeder Pratibhar Purna Vikas Ghatiyechhen
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


জোয়ান অব আর্ক খ্যাত সুইডিশ অভিনেত্রী বিখ্যাত ছিলেন ইনগ্রিড বার্গম্যান (ইংরিদ বারিমান)। ক্যাসাব্ল্যাঙ্কার সেই নায়িকা যিনি তিনবার অস্কার জিতেছেন। সর্বকালের সেরা রোম্যান্স ঘরানার সিনেমার যে কোনো তালিকায় একদম উপরের দিকে যে সিনেমাগুলোর নাম ঘুরে-ফিরে আসে, সেগুলোর মধ্যে সবচেয়ে পুরোনো সিনেমাটি হচ্ছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পটভূমিতে নির্মিত ১৯৪২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মার্কিন ক্ল্যাসিক রোমান্টিক ড্রামা ছবি ক্যাসাব্লাঙ্কা। এ সিনেমাটি ১৯৪৩ সালে ১৬ তম অস্কার আসরে আটটি বিভাগে মনোনয়ন পায় আর সেরা সিনেমা, পরিচালক ও চিত্রনাট্য বিভাগে পুরস্কার জয় করে হামফ্রে বোগার্ট ও ইনগ্রিড বার্গম্যান অভিনীত এ সিনেমাটি। ক্লাব মালিক রিক ব্লেইন ও তার প্রাক্তন প্রেমিকা এলসা লুন্ড’কে ফিরে পাওয়ার এক মর্মস্পর্শী গল্প নিয়ে এ ছবির পটভূমি রচিত। ছবিটি পরিচালনা করেছেন Michael Curtiz (মাইকেল কার্টিজ)। এ ছবিতেই প্রথম উঠে এল সেই দর্শন “মহৎ প্রেম শুধু কাছেই টানে না, দূরেও ঠেলিয়া দেয়”। বলা হলো সেই দর্শনের কথাও, ‘তোমার প্রেমকে মুক্ত করে দাও। সে যদি তোমার থাকে, তবে অবশ্যই তা আবার তোমার কাছেই ফিরে আসবে। আর যদি ফিরে না আসে, জানবে, সে তোমার কখনোই ছিল না।’সিনেমাটিতে নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেন ইনগ্রিড বার্গম্যান। সিনেমাটিতে এই তারকা অভিনেত্রীর বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন তার স্বামী রবার্তো রসেলিনি। আজ এত বছর পরেও ক্যাসাব্ল্যাঙ্কা সমান জনপ্রিয়। ক্যাসাব্লাঙ্কা ছবিটিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম জনপ্রিয় চলচ্চিত্র হিসাবে গণ্য করা হয়।
Romanized Version
জোয়ান অব আর্ক খ্যাত সুইডিশ অভিনেত্রী বিখ্যাত ছিলেন ইনগ্রিড বার্গম্যান (ইংরিদ বারিমান)। ক্যাসাব্ল্যাঙ্কার সেই নায়িকা যিনি তিনবার অস্কার জিতেছেন। সর্বকালের সেরা রোম্যান্স ঘরানার সিনেমার যে কোনো তালিকায় একদম উপরের দিকে যে সিনেমাগুলোর নাম ঘুরে-ফিরে আসে, সেগুলোর মধ্যে সবচেয়ে পুরোনো সিনেমাটি হচ্ছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পটভূমিতে নির্মিত ১৯৪২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মার্কিন ক্ল্যাসিক রোমান্টিক ড্রামা ছবি ক্যাসাব্লাঙ্কা। এ সিনেমাটি ১৯৪৩ সালে ১৬ তম অস্কার আসরে আটটি বিভাগে মনোনয়ন পায় আর সেরা সিনেমা, পরিচালক ও চিত্রনাট্য বিভাগে পুরস্কার জয় করে হামফ্রে বোগার্ট ও ইনগ্রিড বার্গম্যান অভিনীত এ সিনেমাটি। ক্লাব মালিক রিক ব্লেইন ও তার প্রাক্তন প্রেমিকা এলসা লুন্ড’কে ফিরে পাওয়ার এক মর্মস্পর্শী গল্প নিয়ে এ ছবির পটভূমি রচিত। ছবিটি পরিচালনা করেছেন Michael Curtiz (মাইকেল কার্টিজ)। এ ছবিতেই প্রথম উঠে এল সেই দর্শন “মহৎ প্রেম শুধু কাছেই টানে না, দূরেও ঠেলিয়া দেয়”। বলা হলো সেই দর্শনের কথাও, ‘তোমার প্রেমকে মুক্ত করে দাও। সে যদি তোমার থাকে, তবে অবশ্যই তা আবার তোমার কাছেই ফিরে আসবে। আর যদি ফিরে না আসে, জানবে, সে তোমার কখনোই ছিল না।’সিনেমাটিতে নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেন ইনগ্রিড বার্গম্যান। সিনেমাটিতে এই তারকা অভিনেত্রীর বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন তার স্বামী রবার্তো রসেলিনি। আজ এত বছর পরেও ক্যাসাব্ল্যাঙ্কা সমান জনপ্রিয়। ক্যাসাব্লাঙ্কা ছবিটিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম জনপ্রিয় চলচ্চিত্র হিসাবে গণ্য করা হয়। Jwan Av Arc Khyat Suidish Abhinetri Bikhyat Chhilen Inagrid Bargamyan Ingrid Bariman Kyasablyankar Sei Nayika Jini Tinbar Oscar Jitechhen Sarbakaler SAIRA Romance Gharanar Sinemar Je Kono Talikay Ekadam Uparer Dike Je Sinemagulor NAM Ghure Fire Ase Segulor Madhye Sabacheye Purono Sinemati Hachchhe Dwitiya Bishwajuddher Patabhumite Nirmit 1942 Sale Muktiprapta Markin Klyasik Romantik Drama Sbi Kyasablanka A Sinemati 1943 Sale 16 Tum Oscar Asare Atati Bibhage Manonayan Pay Are SAIRA Cinema Parichalak O Chitranatya Bibhage Puraskar Jai Kare Hamafre Bogarta O Inagrid Bargamyan Abhinit A Sinemati Club Malik Rik Blein O Taur Praktan Premika Elasa Lundoke Fire Power Ec Marmasparshi Galpa Niye A Chhabir Patabhumi Rachit Chhabiti Parichalna Karechhen Michael Curtiz Maikel Kartij A Chhabitei Pratham Uthe L Sei Darshan “maht Prem Shudhu Kachhei Tane Na Dureo Theliya Dey” Bala Holo Sei Darshaner Kathao ‘tomar Premake Mukta Kare Dow Say Jodi Tomar Thake Tove Abashyai Ta Abar Tomar Kachhei Fire Asabe Are Jodi Fire Na Ase Janbe Say Tomar Kakhanoi Chhil Na ’sinematite Nayika Charitre Abhinay Curren Inagrid Bargamyan Sinematite AE Tharaka Abhinetrir Biprite Abhinay Karechhilen Taur Swamy Rabarto Raselini Az Et Bachhar Pareo Kyasablyanka Saman Janapriya Kyasablanka Chhabitike Markin Juktarashtrer Anyatam Janapriya Chalachchitra Hisabe Ganya Kara Hay
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Bikhyat Chhilen Inagrid Samparke Lekh,Wrote About InGrid Famous?,


vokalandroid