বিজ্ঞান ভৈরব তন্ত্র ...

বিজ্ঞান ভৈরব তন্ত্র :- ভৈরব (সংস্কৃত: भैरव, অর্থ: "ভয়ানক" বা "ভীষণ" হিন্দু দেবতা শিবের একটি হিংস্র প্রকাশ বা অবতার, যা মৃত্যু এবং বিনাশের সাথে সম্পর্কিত। তিনি কাল ভৈরব নামেও পরিচিত। রাজস্থান, তামিলনাড়ু এবং নেপালে হিন্দু পুরাণের দেবতাদের মধ্যে তিনি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দেবতা হিসেবে বিবেচিত। হিন্দু, বৌদ্ধ ও জৈন ধর্মে সমানভাবেই তাকে সম্মান করা হয়। ভৈরব’ সংস্কৃত শব্দ, এর অর্থ ‘ভয়ঙ্কর’, ‘ভয়াবহ’। শিবের একটি বিশেষ রূপকে ‘ভৈরব’ হিসেবে বর্ণনা করে থাকে ‘শিব পুরাণ’ বা ওই জাতীয় শাস্ত্র। শিবের ভৈরব রূপের কাহিনিটি এ রকম- সৃষ্টিকর্তা ব্রহ্মার আদিতে পঞ্চমুখ ছিলেন। শিবও পঞ্চানন। ব্রহ্মা শিবের থেকে অধিক গুরুত্ব দাবি করেন এবং অসম্ভব অহঙ্কার প্রকাশ করতে থাকেন। ক্রুদ্ধ শিব ব্রহ্মার পঞ্চম মস্তকটি কর্তন করেন। এতে শিবের উপরে ব্রহ্মহত্যার পাপ অর্পণ হয়। ব্রহ্মা-কপাল হাতে নিয়ে শিবকে একটি দীর্ঘ সময় ভ্রাম্যমান অবস্থায় কাটাতে হয়। এই ভ্রাম্যমান শিবরূপই ‘ভৈরব’। শ্রী প্রভাতরঞ্জন সরকার আজকে আমি তন্ত্রের ইতিহাসের একটা অর্দ্ধলুপ্ত কথা বলব৷ প্রায় সকলেই জান যে আদি তান্ত্রিক, মহাকৌল ছিলেন সদাশিব৷ সদাশিবের ব্রত ছিল–‘‘কুর্বন্তু বিশ্বং তান্ত্রিকম্,’’ গোটা বিশ্বকে তান্ত্রিক করে ফেলা৷ তান্ত্রিক মানে, যে মানুষের সমস্ত বিরোধী শক্তির বিরুদ্ধে প্রত্যক্ষ সংগ্রাম করে জয়ী হয়ে বিশ্বমানবতার মহান বাণী প্রচার করবে৷ মানুষ যে সর্বশ্রেষ্ঠ জীব, সেটা কেবল কথায় নয়, নীতিগত ভাবে নয়, কাজে প্রমাণ করবে৷ বিজ্ঞান ভৈরব তন্ত্র :- সেকালে মানব জাতির বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে অন্তর্কলহ আজকের চেয়েও বেশী ছিল৷ সেকালে, সভ্যতার আদি কালে মানুষ পাহাড়ে থাকত৷ তারপর সভ্যতার অল্প বিকাশ হওয়ার পর তারা সমতলে নেমে এসে বনে–জঙ্গলে থাকতে শুরু করে, কারণ রাত্রিতে পাহাড়ে থাকা সাধারণতঃ বন–জঙ্গলে থাকার চেয়ে বেশী নিরাপদ৷ তাই পাহাড়ের একটা গুহার মধ্যে তারা ঢুকে পড়ত, একটা বড় পাথর দিয়ে গুহার মুখটা বন্ধ করে রাত কাটাত৷ আদিম যুগে তখনও আগুনের আবিষ্কার হয়নি যে গুহার চারিদিকে বা বনে জঙ্গলে যেখানে থাকবে তার চারিপার্শ্বে আগুন জ্বেলে আত্মরক্ষা করবে৷ আগুনের আবিষ্কার হয়েছে পরে৷
Romanized Version
বিজ্ঞান ভৈরব তন্ত্র :- ভৈরব (সংস্কৃত: भैरव, অর্থ: "ভয়ানক" বা "ভীষণ" হিন্দু দেবতা শিবের একটি হিংস্র প্রকাশ বা অবতার, যা মৃত্যু এবং বিনাশের সাথে সম্পর্কিত। তিনি কাল ভৈরব নামেও পরিচিত। রাজস্থান, তামিলনাড়ু এবং নেপালে হিন্দু পুরাণের দেবতাদের মধ্যে তিনি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দেবতা হিসেবে বিবেচিত। হিন্দু, বৌদ্ধ ও জৈন ধর্মে সমানভাবেই তাকে সম্মান করা হয়। ভৈরব’ সংস্কৃত শব্দ, এর অর্থ ‘ভয়ঙ্কর’, ‘ভয়াবহ’। শিবের একটি বিশেষ রূপকে ‘ভৈরব’ হিসেবে বর্ণনা করে থাকে ‘শিব পুরাণ’ বা ওই জাতীয় শাস্ত্র। শিবের ভৈরব রূপের কাহিনিটি এ রকম- সৃষ্টিকর্তা ব্রহ্মার আদিতে পঞ্চমুখ ছিলেন। শিবও পঞ্চানন। ব্রহ্মা শিবের থেকে অধিক গুরুত্ব দাবি করেন এবং অসম্ভব অহঙ্কার প্রকাশ করতে থাকেন। ক্রুদ্ধ শিব ব্রহ্মার পঞ্চম মস্তকটি কর্তন করেন। এতে শিবের উপরে ব্রহ্মহত্যার পাপ অর্পণ হয়। ব্রহ্মা-কপাল হাতে নিয়ে শিবকে একটি দীর্ঘ সময় ভ্রাম্যমান অবস্থায় কাটাতে হয়। এই ভ্রাম্যমান শিবরূপই ‘ভৈরব’। শ্রী প্রভাতরঞ্জন সরকার আজকে আমি তন্ত্রের ইতিহাসের একটা অর্দ্ধলুপ্ত কথা বলব৷ প্রায় সকলেই জান যে আদি তান্ত্রিক, মহাকৌল ছিলেন সদাশিব৷ সদাশিবের ব্রত ছিল–‘‘কুর্বন্তু বিশ্বং তান্ত্রিকম্,’’ গোটা বিশ্বকে তান্ত্রিক করে ফেলা৷ তান্ত্রিক মানে, যে মানুষের সমস্ত বিরোধী শক্তির বিরুদ্ধে প্রত্যক্ষ সংগ্রাম করে জয়ী হয়ে বিশ্বমানবতার মহান বাণী প্রচার করবে৷ মানুষ যে সর্বশ্রেষ্ঠ জীব, সেটা কেবল কথায় নয়, নীতিগত ভাবে নয়, কাজে প্রমাণ করবে৷ বিজ্ঞান ভৈরব তন্ত্র :- সেকালে মানব জাতির বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে অন্তর্কলহ আজকের চেয়েও বেশী ছিল৷ সেকালে, সভ্যতার আদি কালে মানুষ পাহাড়ে থাকত৷ তারপর সভ্যতার অল্প বিকাশ হওয়ার পর তারা সমতলে নেমে এসে বনে–জঙ্গলে থাকতে শুরু করে, কারণ রাত্রিতে পাহাড়ে থাকা সাধারণতঃ বন–জঙ্গলে থাকার চেয়ে বেশী নিরাপদ৷ তাই পাহাড়ের একটা গুহার মধ্যে তারা ঢুকে পড়ত, একটা বড় পাথর দিয়ে গুহার মুখটা বন্ধ করে রাত কাটাত৷ আদিম যুগে তখনও আগুনের আবিষ্কার হয়নি যে গুহার চারিদিকে বা বনে জঙ্গলে যেখানে থাকবে তার চারিপার্শ্বে আগুন জ্বেলে আত্মরক্ষা করবে৷ আগুনের আবিষ্কার হয়েছে পরে৷ Bigyan Bhairav Tantra Bhairav Sanskrit Bhairav Earth Bhayanak Ba Bhishan Hindu DEBATA Shiber Ekati Hinsra Prakash Ba Avatar Ja Mrityu Evan Binasher Sathe Samparkit Tini Kaal Bhairav Nameo Parichit Rajasthan Tamilnaru Evan Nepale Hindu Puraner Debtader Madhye Tini Anyatam Gurutbapurna DEBATA Hisebe Bibechit Hindu Bauddha O Jain Dharme Samanbhabei Take Samman Kara Hay Bhairabo Sanskrit Shabd Aare Earth ‘bhayankaro ‘bhayabaho Shiber Ekati Vishesha Rupke ‘bhairabo Hisebe Barnana Kare Thake ‘shiv Purano Ba We Jatiya Shastra Shiber Bhairav Ruper Kahiniti A Rakam Srishtikarta Brahmar Adite Panchamukh Chhilen Shibao Panchanan Brahma Shiber Theke Adhik Gurutba Dabi Curren Evan Asambhab Ahankar Prakash Karate Thaken Kruddha Shiv Brahmar Panchama Mastakati Kartan Curren Ete Shiber Upare Brahmahatyar Papa Arpan Hay Brahma Kapal Hate Niye Shibke Ekati Dirgh Samay Bhramyaman Abasthay Katate Hay AE Bhramyaman Shibrupai ‘bhairabo Sri Prabhataranjan Sarkar Ajake Aami Tantrer Itihaser Ekata Arddhalupta Katha Balabar Pray Sakalei Jaan Je Adi Tantrik Mahakaul Chhilen Sadashibar Sadashiber Brat Chhil–‘‘kurbantu Bishwang Tantrikam ’’ Gutta Bishwake Tantrik Kare Felar Tantrik Mane Je Manusher Samasta Birodhi Shaktir Biruddhe Pratyaksh Sangram Kare Jayi Huye Bishwamanabatar Mahan Vani Prachar Karaber Manus Je Sarbashreshtha Jivo SATA Cable Kathay Noy Nitigat Bhabe Noy Kaje Praman Karaber Bigyan Bhairav Tantra Sekale Menabe Jatir Bibhinna Goshthir Madhye Antarkalah Ajaker Cheyeo Beshi Chhilar Sekale Sabhyatar Adi Kalle Manus Pahare Thakatar Tarapar Sabhyatar Alpa Vikas Hwar Par Tara Samatale Neme Ese Bane–jangale Thakte Shuru Kare Karan Ratrite Pahare Thaka Sadharanatah Bun–jangale Thakur Cheye Beshi Nirapadar Tai Paharer Ekata Guhar Madhye Tara Dhuke Parhat Ekata Bar Puthur Diye Guhar Mukhta Bandh Kare Raat Katatar Adim Juge Takhanao Aguner Abishkar Hayani Je Guhar Charidike Ba Bane Jangale Jekhanay Thakbe Taur Chariparshwe Agun Jbele Atmaraksha Karaber Aguner Abishkar Hayechhe Parer
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


বিজ্ঞান ভৈরব তন্ত্র : " বিজ্ঞান ভৈরব তন্ত্র " শীর্ষক একটি তান্ত্রিক গ্রন্থে শিব ও দেবী মধ্যে একটি কথোপকথন অংশে (শ্লোক ১১২) "প্রজ্ঞা ও বিশুদ্ধ চেতনার অন্তর্দৃষ্টি বিষয়ে বর্ণিত আছে। তান্ত্রিক সাহিত্য, যেমন আদি শঙ্কর রচিত সৌন্দর্য্য লহরী (অর্থ সৌন্দর্যের প্লাবন) কবিতাগ্রন্থটি শিবের থেকেও উচ্চতর ক্ষমতাসম্পন্ন সম্প্রদায়ের সর্বোচ্চ দেবীর উদ্দেশে নিবেদিত। এটি দেবী এবং তার নারী ব্যক্তিত্বের গুণকীর্তন করে। এছাড়া এটি দেবী কর্তৃক তন্ত্র সাধনের একটি পন্থা। শাক্ত তন্ত্র ঐতিহ্যে, দেবী মন্ত্র দ্বারা কল্পিত হন এবং তান্ত্রিক সাধকদের জন্য মন্ত্র আধ্যাত্মিক যাত্রার জন্য একটি মধ্যম বিবেচিত হয়। সাধকগণ তাঁদের কল্পনা, গতিবিধি ও মন্ত্র দ্বারা চক্র তৈরি করেন। স্ট্রেটন হাউলে ও ডোনা ম্যারি ‍উল্ফ উল্লেখ করেন, সাধকগণ বিশ্বাস করেন মন্ত্র প্রতিষ্ঠার মধ্যমে মানুষের মধ্যে বিশ্ব ব্রক্ষ্মান্ড স্থাপন করা যায় এবং এর দ্বারা কেউ পার্থিব সুখ, আধ্যাত্মিক ক্ষমতা বা জ্ঞান আহরণ করতে পারেন। দেবী পূজা হলো দেবীর উপাসনা যা দেবী মন্ত্রের চারটি রূপের মাধ্যমে পালিত হয়। প্রথমটি তারার, যে চতুর্থ চক্রের অন্তর্জগতে মধ্যে বিদ্যমান, যেটি আধ্যাত্মিক হৃদয়ের প্রতিনিধিত্ব করে। সরস্বতী প্রথম চক্রের মধ্যে উদ্ভূত; লক্ষ্মী দ্বিতীয় চক্র গঠন করে; এবং কালী তৃতীয় চক্রের অন্তরে অবস্থান করে। এই মন্ত্র পূজার মাধ্যমে নিজের মধ্যে "মহাজাগতিক শক্তি" উপলব্ধি করা যায়।
Romanized Version
বিজ্ঞান ভৈরব তন্ত্র : " বিজ্ঞান ভৈরব তন্ত্র " শীর্ষক একটি তান্ত্রিক গ্রন্থে শিব ও দেবী মধ্যে একটি কথোপকথন অংশে (শ্লোক ১১২) "প্রজ্ঞা ও বিশুদ্ধ চেতনার অন্তর্দৃষ্টি বিষয়ে বর্ণিত আছে। তান্ত্রিক সাহিত্য, যেমন আদি শঙ্কর রচিত সৌন্দর্য্য লহরী (অর্থ সৌন্দর্যের প্লাবন) কবিতাগ্রন্থটি শিবের থেকেও উচ্চতর ক্ষমতাসম্পন্ন সম্প্রদায়ের সর্বোচ্চ দেবীর উদ্দেশে নিবেদিত। এটি দেবী এবং তার নারী ব্যক্তিত্বের গুণকীর্তন করে। এছাড়া এটি দেবী কর্তৃক তন্ত্র সাধনের একটি পন্থা। শাক্ত তন্ত্র ঐতিহ্যে, দেবী মন্ত্র দ্বারা কল্পিত হন এবং তান্ত্রিক সাধকদের জন্য মন্ত্র আধ্যাত্মিক যাত্রার জন্য একটি মধ্যম বিবেচিত হয়। সাধকগণ তাঁদের কল্পনা, গতিবিধি ও মন্ত্র দ্বারা চক্র তৈরি করেন। স্ট্রেটন হাউলে ও ডোনা ম্যারি ‍উল্ফ উল্লেখ করেন, সাধকগণ বিশ্বাস করেন মন্ত্র প্রতিষ্ঠার মধ্যমে মানুষের মধ্যে বিশ্ব ব্রক্ষ্মান্ড স্থাপন করা যায় এবং এর দ্বারা কেউ পার্থিব সুখ, আধ্যাত্মিক ক্ষমতা বা জ্ঞান আহরণ করতে পারেন। দেবী পূজা হলো দেবীর উপাসনা যা দেবী মন্ত্রের চারটি রূপের মাধ্যমে পালিত হয়। প্রথমটি তারার, যে চতুর্থ চক্রের অন্তর্জগতে মধ্যে বিদ্যমান, যেটি আধ্যাত্মিক হৃদয়ের প্রতিনিধিত্ব করে। সরস্বতী প্রথম চক্রের মধ্যে উদ্ভূত; লক্ষ্মী দ্বিতীয় চক্র গঠন করে; এবং কালী তৃতীয় চক্রের অন্তরে অবস্থান করে। এই মন্ত্র পূজার মাধ্যমে নিজের মধ্যে "মহাজাগতিক শক্তি" উপলব্ধি করা যায়।Bigyan Bhairav Tantra : " Bigyan Bhairav Tantra " Sheershak Ekati Tantrik Granthe Shiv O DEVI Madhye Ekati Kathopakathan Angshe Shlok 112 Pragya O Bishuddha Chetnar Antardrishti Bishye Barnit Ache Tantrik Sahitya Jeman Adi Shankar Rachit Saundarjya Lahari Earth Saundarjer Plaban Kabitagranthati Shiber Thekeo Uchchatar Xamatasampanna Sampradayer Sarbochch Debir Uddeshe Nibedit AT DEVI Evan Taur Nari Byaktitber Gunkirtan Kare Echhara AT DEVI Kartrik Tantra Sadhner Ekati Pantha Shakta Tantra Aitihye DEVI Mantra Dwara Kalpit Hahn Evan Tantrik Sadhakader Janya Mantra Adhyatmik Jatrar Janya Ekati Madhyam Bibechit Hay Sadhakagan Tander Kalpana Gatibidhi O Mantra Dwara Chakra Tairi Curren Stretan Haule O Dona Myari ‍ulfa Ullekh Curren Sadhakagan Biswas Curren Mantra Pratishthar Madhyame Manusher Madhye Biswa Brakshmand Sthapan Kara Jay Evan Aare Dwara Keu Parthiv Sukh Adhyatmik Xamata Ba Gyan Aharan Karate Paren DEVI Puja Holo Debir Upasna Ja DEVI Mantrer Charti Ruper Madhyame Palit Hay Prathamati Tarar Je Chaturtha Chakrer Antarjagate Madhye Bidyaman Jeti Adhyatmik Hridyer Pratinidhitba Kare Saraswati Pratham Chakrer Madhye Udbhut Lakshmi Dwitiya Chakra Gathan Kare Evan Kali Tritiya Chakrer Antare Abasthan Kare AE Mantra Pujar Madhyame Nizar Madhye Mahajagtik Shakti Upalabdhi Kara Jay
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Bigyan Bhairav Tantra ,Science Bhairav Tantra,


vokalandroid