বিখ্যাত রোমান্টিক কবিতার লাইন লেখ ...

বিখ্যাত রোমান্টিক কবিতার লাইন কবিতা পড়তে কে না ভালবাসে। আর প্রেমের কবিতা হলে তো কথাই নেই। জীবনে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না যে জীবনে একবারও প্রেমে পড়েনি। বিখ্যাত রোমান্টিক কবিতার লাইন যদি পাওয়া যায় তবে সেটা হবে অস্টম আশ্চর্য। প্রেমের আবেদন চিরন্তন সাথে প্রেমের কবিতারও। তাই যারা কবিতা ভালবাসেন তাদের জন্য আজকে নিয়া আসলাম বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ কয়েকটি প্রেমের কবিতা। এক পাতায় সেরা প্রেমের কবিতাগুলো পড়তে আপনাদের ভাল লাগবে বলেই আমার বিশ্বাস। আর আপনাদের ভাল লাগলেই আমার পরিশ্রম সার্থক হবে। লেখায় অনেক ভূলভ্রান্ত্রি থাকতে পারে ভূলগুলো দেখিয়ে দিবেন এবং ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন । ১ বিখ্যাত রোমান্টিক কবিতার লাইন অনেক ছিল বলার কাজি নজরুল ইসলাম অনেক ছিল বলার, যদি সেদিন ভালোবাসতে। পথ ছিল গো চলার, যদি দু’দিন আগে আসতে। আজকে মহাসাগর-স্রোতে চলেছি দূর পারের পথে ঝরা পাতা হারায় যথা সেই আঁধারে ভাসতে। গহন রাতি ডাকে আমায় এলে তুমি আজকে। কাঁদিয়ে গেলে হায় গো আমার বিদায় বেলার সাঁঝকে। আসতে যদি হে অতিথি ছিল যখন শুকা তিথি ফুটত চাঁপা, সেদিন যদি চৈতালী চাঁদ হাসতে। ============================================ ২ অনামিকা কাজী নজরুল ইসলাম কোন নামে ডাকব তোমায় নাম-না-জানা- অনামিকা জলে স্থলে গগনে-তলে তোমার মধুর না যে লিখা। গীষ্মে কনক-চাঁপার ফুলে তোমার নামের আভাস দুলে ছড়িয়ে আছে বকুল মূলে তোমার নাম হে নিকা। বর্ষা বলে অশ্রুজলের মানিনী সে বিরহিনী। আকাশ বলে, তরিতে লতা, ধরিত্রী কয় চাতকিনী। আষাঢ় মেঘে রাখলো ঢাকি নাম যে তোমার কাজল আঁখি শ্রাবণ বলে, যুঁই বেলা কি? কেকা বলে মালবিকা। শারদ-প্রাতে কমল বনে তোমার নামে মধু পিয়ে বানীদেবীর বীণার সুরে ভ্রমর বেড়ায় গুনগুনিয়ে! তোমার নামের মিল মিলিয়ে ঝিল ওঠে গো ঝিলমিলিয়ে আশ্বিণ কয়, তার যে বিয়ে গায়ে হলুদ শেফালিকা। নদীর তীরে বেনুর সুরে তোমার নামের মায়া ঘনায়, করুণা আকাশ গ'লে তোমার নাম ঝরে নীহার কণায় আমন ধানের মঞ্জরীতে নাম গাঁথা যে ছন্দ গীতে হৈমন্তী ঝিম্ নিশীতে তারায় জ্বলে নামের শিখা। ছায়া পথের কহেলিকায় তোমার নামের রেণু মাখা, ম্লান মাধুরী ইন্দুলেখায় তোমার নামের তিলক আঁকা। মোর নামে হয়ে উদাস ধুমল হোলো বিমল আকাশ কাঁদে শীতের হিমেল বাতাস
Romanized Version
বিখ্যাত রোমান্টিক কবিতার লাইন কবিতা পড়তে কে না ভালবাসে। আর প্রেমের কবিতা হলে তো কথাই নেই। জীবনে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না যে জীবনে একবারও প্রেমে পড়েনি। বিখ্যাত রোমান্টিক কবিতার লাইন যদি পাওয়া যায় তবে সেটা হবে অস্টম আশ্চর্য। প্রেমের আবেদন চিরন্তন সাথে প্রেমের কবিতারও। তাই যারা কবিতা ভালবাসেন তাদের জন্য আজকে নিয়া আসলাম বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ কয়েকটি প্রেমের কবিতা। এক পাতায় সেরা প্রেমের কবিতাগুলো পড়তে আপনাদের ভাল লাগবে বলেই আমার বিশ্বাস। আর আপনাদের ভাল লাগলেই আমার পরিশ্রম সার্থক হবে। লেখায় অনেক ভূলভ্রান্ত্রি থাকতে পারে ভূলগুলো দেখিয়ে দিবেন এবং ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন । ১ বিখ্যাত রোমান্টিক কবিতার লাইন অনেক ছিল বলার কাজি নজরুল ইসলাম অনেক ছিল বলার, যদি সেদিন ভালোবাসতে। পথ ছিল গো চলার, যদি দু’দিন আগে আসতে। আজকে মহাসাগর-স্রোতে চলেছি দূর পারের পথে ঝরা পাতা হারায় যথা সেই আঁধারে ভাসতে। গহন রাতি ডাকে আমায় এলে তুমি আজকে। কাঁদিয়ে গেলে হায় গো আমার বিদায় বেলার সাঁঝকে। আসতে যদি হে অতিথি ছিল যখন শুকা তিথি ফুটত চাঁপা, সেদিন যদি চৈতালী চাঁদ হাসতে। ============================================ ২ অনামিকা কাজী নজরুল ইসলাম কোন নামে ডাকব তোমায় নাম-না-জানা- অনামিকা জলে স্থলে গগনে-তলে তোমার মধুর না যে লিখা। গীষ্মে কনক-চাঁপার ফুলে তোমার নামের আভাস দুলে ছড়িয়ে আছে বকুল মূলে তোমার নাম হে নিকা। বর্ষা বলে অশ্রুজলের মানিনী সে বিরহিনী। আকাশ বলে, তরিতে লতা, ধরিত্রী কয় চাতকিনী। আষাঢ় মেঘে রাখলো ঢাকি নাম যে তোমার কাজল আঁখি শ্রাবণ বলে, যুঁই বেলা কি? কেকা বলে মালবিকা। শারদ-প্রাতে কমল বনে তোমার নামে মধু পিয়ে বানীদেবীর বীণার সুরে ভ্রমর বেড়ায় গুনগুনিয়ে! তোমার নামের মিল মিলিয়ে ঝিল ওঠে গো ঝিলমিলিয়ে আশ্বিণ কয়, তার যে বিয়ে গায়ে হলুদ শেফালিকা। নদীর তীরে বেনুর সুরে তোমার নামের মায়া ঘনায়, করুণা আকাশ গ'লে তোমার নাম ঝরে নীহার কণায় আমন ধানের মঞ্জরীতে নাম গাঁথা যে ছন্দ গীতে হৈমন্তী ঝিম্ নিশীতে তারায় জ্বলে নামের শিখা। ছায়া পথের কহেলিকায় তোমার নামের রেণু মাখা, ম্লান মাধুরী ইন্দুলেখায় তোমার নামের তিলক আঁকা। মোর নামে হয়ে উদাস ধুমল হোলো বিমল আকাশ কাঁদে শীতের হিমেল বাতাসBikhyat Romantik Kabitar Line Kavita Parate K Na Bhalbase Are Premer Kavita Hale Toh Kathai Nei Jibne Eman Manus Khunje Powa Jabe Na Je Jibne Ekabarao Preme Pareni Bikhyat Romantik Kabitar Line Jodi Powa Jay Tove SATA Habe Astam Aschorjo Premer Abedan Chirantan Sathe Premer Kabitarao Tai Jara Kavita Bhalbasen Tader Janya Ajake Nia Asalam Bangla Sahityer Shrestha Kayekati Premer Kavita Ec Patay SAIRA Premer Kabitagulo Parate Apanader Bhal Lagbe Balei Amar Biswas Are Apanader Bhal Laglei Amar Parishram Sarthak Habe Lekhay Anek Bhulabhrantri Thakte Pare Bhulgulo Dekhiye Diwan Evan Xamasundar Drishtite Dekhben 1 Bikhyat Romantik Kabitar Line Anek Chhil Balar Kaji Najrul Islam Anek Chhil Balar Jodi Sedin Bhalobaste Path Chhil Go Chalar Jodi Duodin Age Asate Ajake Mahasagar Srote Chalechhi Dur Parer Pathe Jhara Pata Haray Jatha Sei Andhare Bhaste Gahan Rati Dake Amay Alley Tumi Ajake Kandiye Gele Haya Go Amar Biday Belar Sanjhake Asate Jodi Hey Atithi Chhil Jakhan Shuka Tithi Futat Chanpa Sedin Jodi CHAITALI Saad Haste 2 ANAMIKA Kazi Najrul Islam Koun Name Dakab Tomay NAM Na Jaana ANAMIKA Jale Sthale Gagane Tale Tomar Madhur Na Je Likha Gishme Kanak Chanpar Fule Tomar Namer Abhas Dule Chhariye Ache Bakul Mule Tomar NAM Hey Nika Barsha Ble Ashrujaler Manini Say Birhini Aakash Ble Tarite LATA Dharitri Kya Chatkini Ashadh Meghe Rakhlo Dhaki NAM Je Tomar Kajal Ankhi Shraban Ble Juni Bella Ki Keka Ble Malvika Sharada Prate Kamal Bane Tomar Name Madhu Piye Banidebir Binar Sure Bhromor Beray Gunguniye Tomar Namer Mill Miliye Jhil Othe Go Jhilmiliye Ashwin Kya Taur Je Bie Gaye Halud Shefalika Nadir Tire Benur Sure Tomar Namer Maya Ghanay Koruna Aakash G Le Tomar NAM Jhare Nihar Kanay Aman Dhaner Manjarite NAM Gatha Je Chhanda Gite Haimanti Jhim Nishite Taray Jbale Namer Shikha Chaya Pather Kahelikay Tomar Namer Renu Makha Mlan Madhuri Indulekhay Tomar Namer Tilak Anka More Name Huye Udas Dhumal Holo Vimal Aakash Kande Shiter Himel Bates
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


কবিতা পড়তে কে না ভালবাসে। আর প্রেমের কবিতা হলে তো কথাই নেই। জীবনে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না যে জীবনে একবারও প্রেমে পড়েনি। যদি পাওয়া যায় তবে সেটা হবে অস্টম আশ্চর্য। প্রেমের আবেদন চিরন্তন সাথে প্রেমের কবিতারও। তাই যারা কবিতা ভালবাসেন তাদের জন্য আজকে নিয়া আসলাম বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ কয়েকটি প্রেমের কবিতা। এক পাতায় সেরা প্রেমের কবিতাগুলো পড়তে আপনাদের ভাল লাগবে বলেই আমার বিশ্বাস। আর আপনাদের ভাল লাগলেই আমার পরিশ্রম সার্থক হবে। লেখায় অনেক ভূলভ্রান্ত্রি থাকতে পারে ভূলগুলো দেখিয়ে দিবেন এবং ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন । ১ অনেক ছিল বলার কাজি নজরুল ইসলাম অনেক ছিল বলার, যদি সেদিন ভালোবাসতে। পথ ছিল গো চলার, যদি দু’দিন আগে আসতে। আজকে মহাসাগর-স্রোতে চলেছি দূর পারের পথে ঝরা পাতা হারায় যথা সেই আঁধারে ভাসতে। গহন রাতি ডাকে আমায় এলে তুমি আজকে। কাঁদিয়ে গেলে হায় গো আমার বিদায় বেলার সাঁঝকে। আসতে যদি হে অতিথি ছিল যখন শুকা তিথি ফুটত চাঁপা, সেদিন যদি চৈতালী চাঁদ হাসতে। ============================================ ২ অনামিকা কাজী নজরুল ইসলাম কোন নামে ডাকব তোমায় নাম-না-জানা- অনামিকা জলে স্থলে গগনে-তলে তোমার মধুর না যে লিখা। গীষ্মে কনক-চাঁপার ফুলে তোমার নামের আভাস দুলে ছড়িয়ে আছে বকুল মূলে তোমার নাম হে নিকা। বর্ষা বলে অশ্রুজলের মানিনী সে বিরহিনী। আকাশ বলে, তরিতে লতা, ধরিত্রী কয় চাতকিনী। আষাঢ় মেঘে রাখলো ঢাকি নাম যে তোমার কাজল আঁখি শ্রাবণ বলে, যুঁই বেলা কি? কেকা বলে মালবিকা। শারদ-প্রাতে কমল বনে তোমার নামে মধু পিয়ে বানীদেবীর বীণার সুরে ভ্রমর বেড়ায় গুনগুনিয়ে! তোমার নামের মিল মিলিয়ে ঝিল ওঠে গো ঝিলমিলিয়ে আশ্বিণ কয়, তার যে বিয়ে গায়ে হলুদ শেফালিকা। নদীর তীরে বেনুর সুরে তোমার নামের মায়া ঘনায়, করুণা আকাশ গ'লে তোমার নাম ঝরে নীহার কণায় আমন ধানের মঞ্জরীতে নাম গাঁথা যে ছন্দ গীতে হৈমন্তী ঝিম্ নিশীতে তারায় জ্বলে নামের শিখা। ছায়া পথের কহেলিকায় তোমার নামের রেণু মাখা, ম্লান মাধুরী ইন্দুলেখায় তোমার নামের তিলক আঁকা। মোর নামে হয়ে উদাস ধুমল হোলো বিমল আকাশ কাঁদে শীতের হিমেল বাতাস কোথায় সুদূর নীহারিকা। তোমার নামের শত-নোরী বনভূমির গলায় দোলে জপ শুনেছি তোমার নামের মুহহুমুর্হু বোলে। দুলালচাঁপার পাতার কোলে তোমার নামের মুকুল দোলে কুষ্ণচুড়া, হেনা বলে চির চেনা সে রাধিকা। বিশ্ব রমা সৃষ্টি জুড়ে তোমার নামের আরাধনা জড়িয়ে তোমার নামাবলী-হৃদয় করে যোগসাধনা। তোমার নামের আবেগ নিয়া সিন্ধু উঠে হিল্লোলিয়া সমীরনে মর্মরিয়া ফেরে তোমার নাম -গীতিকা। ============================================ ৩ অভিশাপ কাজী নজরুল ইসলাম যেদিন আমি হারিয়ে যাব, বুঝবে সেদিন বুঝবে, অস্তপারের সন্ধ্যাতারায় আমার খবর পুছবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! ছবি আমার বুকে বেঁধে পাগল হয়ে কেঁদে কেঁদে ফিরবে মরু কানন গিরি, সাগর আকাশ বাতাস চিরি' যেদিন আমায় খুঁজবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! স্বপন ভেঙে নিশুত্ রাতে জাগবে হঠাৎ চমকে, কাহার যেন চেনা-ছোওয়ায় উঠবে ও-বুক ছমকে, - জাগবে হঠাৎ চমকে! ভাববে বুঝি আমিই এসে ব'সনু বুকের কোলটি ঘেঁষে, ধরতে গিয়ে দেখবে যখন শূন্য শয্যা! মিথ্যা স্বপন! বেদনাতে চোখ বুজবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! গাইতে ব'সে কন্ঠ ছিড়ে আসবে যখন কান্না, ব'লবে সবাই - "সেই যে পথিক, তার শেখানো গান না?" আসবে ভেঙে কান্না! প'ড়বে মনে আমার সোহাগ, কন্ঠে তোমার কাঁদবে বেহাগ! প'ড়বে মনে অনেক ফাঁকি অশ্রু-হারা কঠিন আঁখি ঘন ঘন মুছবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! আবার যেদিন শিউলি ফুটে ভ'রবে তোমার অঙ্গন, তুলতে সে-ফুল গাঁথতে মালা কাঁপবে তোমার কঙ্কণ - কাঁদবে কুটীর-অঙ্গন! শিউলি ঢাকা মোর সমাধি প'ড়বে মনে, উঠবে কাঁদি'! বুকের মালা ক'রবে জ্বালা চোখের জলে সেদিন বালা মুখের হাসি ঘুচবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! ============================================ ৪ নিঃসঙ্গতা আবুল হাসান অতোটুকু চায় নি বালিকা! অতো শোভা, অতো স্বাধীনতা! চেয়েছিলো আরো কিছু কম, আয়নার দাঁড়ে দেহ মেলে দিয়ে বসে থাকা সবটা দুপুর, চেয়েছিলো মা বকুক, বাবা তার বেদনা দেখুক! অতোটুকু চায় নি বালিকা! অতো হৈ রৈ লোক, অতো ভিড়, অতো সমাগম! চেয়েছিলো আরো কিছু কম! একটি জলের খনি তাকে দিক তৃষ্ণা এখনি, চেয়েছিলো একটি পুরুষ তাকে বলুক রমণী ============================================ ৫ প্রেমিকের প্রতিদন্দ্বী আবুল হাসান ‘অতবড় চোখ নিয়ে, অতবড় খোঁপা নিয়ে অতবড় দীর্ঘশ্বাস বুকের নিশ্বাস নিয়ে যত তুমি খুলে দাও কোমরের কোমল সারস যত তুমি খুলে দাও ঘরের পাহারা যত আনো ও- আঙুলে অবৈধ ইশারা যত না জাগাও তুমি ফুলের সুরভি আঁচলে আলগা করো কোমলতা, অন্ধকার মাটি থেকে মৌনতার ময়ুর নাচাও কোনো আমি ফিরবো না আর, আমি কোনো দিন কারো প্রেমিক হবে না; প্রেমিকের প্রতিদ্ধন্দ্বি চাই আজ আমি সব প্রেমিকের প্রতিদ্বন্দ্বী হবো। ============================================ ৬ আকাঙ্খা আবুল হাসান তুমি কি আমার আকাশ হবে? মেঘ হয়ে যাকে সাজাব আমার মনের মত করে । তুমি কি আমার নদী হবে? যার নিবিড় আলিঙ্গনে ধন্য হয়ে তরী বেশে ভেসে যাব কোন অজানা গন্তব্যের পথে । তুমি কি আমার জোছনা হবে? যার মায়াজালে বিভোর হয়ে নিজেকে সঁপে দেব সকল বাস্তবতা ভুলে । তুমি কি আমার কবর হবে? যেখানে শান্তির শীতল বাতাসে বয়ে যাবে আমার চিরনিদ্রার অফুরন্ত প্রহর । ============================================ ৭ প্রশ্ন আবুল হাসান চোখ ভরে যে দেখতে চাও রঞ্জন রশ্মিটা চেনো তো? বুক ভরে যে শ্বাস নিতে চাও জানো তো অক্সিজেনের পরিমাণটা কত? এত যে কাছে আসতে চাও কতটুকু সংযম আছে তোমার? এত যে ভালোবাসতে চাও তার কতটুকু উত্তাপ সইতে পারবে তুমি? ============================================ ৮ দোতলার ল্যন্ডিং মুখোমুখি ফ্ল্যাট। একজন সিঁড়িতে, একজন দরোজায় আহসান হাবীব : আপনারা যাচ্ছেন বুঝি? : চ’লে যাচ্ছি, মালপত্র উঠে গেছে সব। : বছর দু’য়েক হ’লো, তাই নয়? : তারো বেশি। আপনার ডাকনাম শানু, ভালো নাম? : শাহানা, আপনার? : মাবু। : জানি। : মাহবুব হোসেন। আপনি খুব ভালো সেলাই জানেন। : কে বলেছে। আপনার তো অনার্স ফাইনাল, তাই নয়? : এবার ফাইনাল : ফিজিক্স-এ অনার্স। : কি আশ্বর্য। আপনি কেন ছাড়লেন হঠাৎ? : মা চান না। মানে ছেলেদের সঙ্গে ব’সে… : সে যাক গে, পা সেরেছে? : কি ক’রে জানলেন? : এই আর কি। সেরে গেছে? : ও কিছু না, প্যাসেজটা পিছল ছিলো মানে… : সত্যি নয়। উঁচু থেকে পড়ে গিয়ে… : ধ্যাৎ। খাবার টেবিলে রোজ মাকে অতো জ্বালানো কি ভালো? : মা বলেছে? : শুনতে পাই? বছর দুয়েক হ’লো, তাই নয়? : তারো বেশি। আপনার টবের গাছে ফুল এসেছে? : নেবেন? না থাক। রিকসা এলো, মা এলেন, যাই। : যাই। আপনি সন্ধেবেলা ওভাবে পড়বেন না, চোখ যাবে, যাই। : হলুদ শার্টের মাঝখানে বোতাম নেই, লাগিয়ে নেবেন, যাই। : যান, আপনার মা আসছেন। মা ডাকছেন, যাই। ============================================ ৯ প্রেম হুমায়ুন আজাদ আমরা বিশ্বাস করি না আমাদের? করি? হয়তো করি না? তুমি ভাবো আমি আজ হয়তোবা আছি কোনো ঝলমলে অষ্টাদশী তরুণীর সাথে; মেতে আছি ঠোঁটে, বুকে,শিহরণে; রোববার যাবো অন্য কোনো তরুণীতে। আর আমি ভাবি অদ্বিতীয় তোমর শরীর হয়তো পিষ্ট হচ্ছে কোনো শক্তিমান সুদর্শন দেবতার দ্বারা; তোমার কন্ঠের স্বরে কে না কাপেঁ কয়েক সপ্তাহ? প্রথম তোমাকে দেখেই কে না পড়ে থরোথরো প্রেমে? তোমাকে হয়তো তারা পাঁচতারা, অথবা প্রাচীন ক্যাসেলে বাহুতে ও বুকে ক'রে রাখ। হয়তো পাহাড়ে গেছো কারো সঙ্গে,-ভাবি-, উদ্যানপার্টিতে কাটছে সন্ধ্যা; শেষে আলিঙ্গনে বেঁধে, বুকে ক'রে, কেউ নেবে ঘরে; হয়তো ভাবছো তুমি নভেম্বরের এই মনোরম কুয়াশায় শীতে কারো সঙ্গে আমি মত্ত মানবিক সবচেয়ে সুখকর জ্বরে। আমাকে সন্দেহ ক'রে কষ্ট পাও? নিরন্তর? যে-রকম আমি তোমাকে সন্দেহ ক'রে কাঁপি? দু:স্বপ্নে ঘুমহীন থাকি? আমরা বিশ্বাস করি না আমাদের? অবিশ্বাসে দিবা আর যামি সন্দেহকেই প্রেমে পরিণত ক'রে বুক ভ'রে রাখি? ============================================
Romanized Version
কবিতা পড়তে কে না ভালবাসে। আর প্রেমের কবিতা হলে তো কথাই নেই। জীবনে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না যে জীবনে একবারও প্রেমে পড়েনি। যদি পাওয়া যায় তবে সেটা হবে অস্টম আশ্চর্য। প্রেমের আবেদন চিরন্তন সাথে প্রেমের কবিতারও। তাই যারা কবিতা ভালবাসেন তাদের জন্য আজকে নিয়া আসলাম বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ কয়েকটি প্রেমের কবিতা। এক পাতায় সেরা প্রেমের কবিতাগুলো পড়তে আপনাদের ভাল লাগবে বলেই আমার বিশ্বাস। আর আপনাদের ভাল লাগলেই আমার পরিশ্রম সার্থক হবে। লেখায় অনেক ভূলভ্রান্ত্রি থাকতে পারে ভূলগুলো দেখিয়ে দিবেন এবং ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন । ১ অনেক ছিল বলার কাজি নজরুল ইসলাম অনেক ছিল বলার, যদি সেদিন ভালোবাসতে। পথ ছিল গো চলার, যদি দু’দিন আগে আসতে। আজকে মহাসাগর-স্রোতে চলেছি দূর পারের পথে ঝরা পাতা হারায় যথা সেই আঁধারে ভাসতে। গহন রাতি ডাকে আমায় এলে তুমি আজকে। কাঁদিয়ে গেলে হায় গো আমার বিদায় বেলার সাঁঝকে। আসতে যদি হে অতিথি ছিল যখন শুকা তিথি ফুটত চাঁপা, সেদিন যদি চৈতালী চাঁদ হাসতে। ============================================ ২ অনামিকা কাজী নজরুল ইসলাম কোন নামে ডাকব তোমায় নাম-না-জানা- অনামিকা জলে স্থলে গগনে-তলে তোমার মধুর না যে লিখা। গীষ্মে কনক-চাঁপার ফুলে তোমার নামের আভাস দুলে ছড়িয়ে আছে বকুল মূলে তোমার নাম হে নিকা। বর্ষা বলে অশ্রুজলের মানিনী সে বিরহিনী। আকাশ বলে, তরিতে লতা, ধরিত্রী কয় চাতকিনী। আষাঢ় মেঘে রাখলো ঢাকি নাম যে তোমার কাজল আঁখি শ্রাবণ বলে, যুঁই বেলা কি? কেকা বলে মালবিকা। শারদ-প্রাতে কমল বনে তোমার নামে মধু পিয়ে বানীদেবীর বীণার সুরে ভ্রমর বেড়ায় গুনগুনিয়ে! তোমার নামের মিল মিলিয়ে ঝিল ওঠে গো ঝিলমিলিয়ে আশ্বিণ কয়, তার যে বিয়ে গায়ে হলুদ শেফালিকা। নদীর তীরে বেনুর সুরে তোমার নামের মায়া ঘনায়, করুণা আকাশ গ'লে তোমার নাম ঝরে নীহার কণায় আমন ধানের মঞ্জরীতে নাম গাঁথা যে ছন্দ গীতে হৈমন্তী ঝিম্ নিশীতে তারায় জ্বলে নামের শিখা। ছায়া পথের কহেলিকায় তোমার নামের রেণু মাখা, ম্লান মাধুরী ইন্দুলেখায় তোমার নামের তিলক আঁকা। মোর নামে হয়ে উদাস ধুমল হোলো বিমল আকাশ কাঁদে শীতের হিমেল বাতাস কোথায় সুদূর নীহারিকা। তোমার নামের শত-নোরী বনভূমির গলায় দোলে জপ শুনেছি তোমার নামের মুহহুমুর্হু বোলে। দুলালচাঁপার পাতার কোলে তোমার নামের মুকুল দোলে কুষ্ণচুড়া, হেনা বলে চির চেনা সে রাধিকা। বিশ্ব রমা সৃষ্টি জুড়ে তোমার নামের আরাধনা জড়িয়ে তোমার নামাবলী-হৃদয় করে যোগসাধনা। তোমার নামের আবেগ নিয়া সিন্ধু উঠে হিল্লোলিয়া সমীরনে মর্মরিয়া ফেরে তোমার নাম -গীতিকা। ============================================ ৩ অভিশাপ কাজী নজরুল ইসলাম যেদিন আমি হারিয়ে যাব, বুঝবে সেদিন বুঝবে, অস্তপারের সন্ধ্যাতারায় আমার খবর পুছবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! ছবি আমার বুকে বেঁধে পাগল হয়ে কেঁদে কেঁদে ফিরবে মরু কানন গিরি, সাগর আকাশ বাতাস চিরি' যেদিন আমায় খুঁজবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! স্বপন ভেঙে নিশুত্ রাতে জাগবে হঠাৎ চমকে, কাহার যেন চেনা-ছোওয়ায় উঠবে ও-বুক ছমকে, - জাগবে হঠাৎ চমকে! ভাববে বুঝি আমিই এসে ব'সনু বুকের কোলটি ঘেঁষে, ধরতে গিয়ে দেখবে যখন শূন্য শয্যা! মিথ্যা স্বপন! বেদনাতে চোখ বুজবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! গাইতে ব'সে কন্ঠ ছিড়ে আসবে যখন কান্না, ব'লবে সবাই - "সেই যে পথিক, তার শেখানো গান না?" আসবে ভেঙে কান্না! প'ড়বে মনে আমার সোহাগ, কন্ঠে তোমার কাঁদবে বেহাগ! প'ড়বে মনে অনেক ফাঁকি অশ্রু-হারা কঠিন আঁখি ঘন ঘন মুছবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! আবার যেদিন শিউলি ফুটে ভ'রবে তোমার অঙ্গন, তুলতে সে-ফুল গাঁথতে মালা কাঁপবে তোমার কঙ্কণ - কাঁদবে কুটীর-অঙ্গন! শিউলি ঢাকা মোর সমাধি প'ড়বে মনে, উঠবে কাঁদি'! বুকের মালা ক'রবে জ্বালা চোখের জলে সেদিন বালা মুখের হাসি ঘুচবে - বুঝবে সেদিন বুঝবে! ============================================ ৪ নিঃসঙ্গতা আবুল হাসান অতোটুকু চায় নি বালিকা! অতো শোভা, অতো স্বাধীনতা! চেয়েছিলো আরো কিছু কম, আয়নার দাঁড়ে দেহ মেলে দিয়ে বসে থাকা সবটা দুপুর, চেয়েছিলো মা বকুক, বাবা তার বেদনা দেখুক! অতোটুকু চায় নি বালিকা! অতো হৈ রৈ লোক, অতো ভিড়, অতো সমাগম! চেয়েছিলো আরো কিছু কম! একটি জলের খনি তাকে দিক তৃষ্ণা এখনি, চেয়েছিলো একটি পুরুষ তাকে বলুক রমণী ============================================ ৫ প্রেমিকের প্রতিদন্দ্বী আবুল হাসান ‘অতবড় চোখ নিয়ে, অতবড় খোঁপা নিয়ে অতবড় দীর্ঘশ্বাস বুকের নিশ্বাস নিয়ে যত তুমি খুলে দাও কোমরের কোমল সারস যত তুমি খুলে দাও ঘরের পাহারা যত আনো ও- আঙুলে অবৈধ ইশারা যত না জাগাও তুমি ফুলের সুরভি আঁচলে আলগা করো কোমলতা, অন্ধকার মাটি থেকে মৌনতার ময়ুর নাচাও কোনো আমি ফিরবো না আর, আমি কোনো দিন কারো প্রেমিক হবে না; প্রেমিকের প্রতিদ্ধন্দ্বি চাই আজ আমি সব প্রেমিকের প্রতিদ্বন্দ্বী হবো। ============================================ ৬ আকাঙ্খা আবুল হাসান তুমি কি আমার আকাশ হবে? মেঘ হয়ে যাকে সাজাব আমার মনের মত করে । তুমি কি আমার নদী হবে? যার নিবিড় আলিঙ্গনে ধন্য হয়ে তরী বেশে ভেসে যাব কোন অজানা গন্তব্যের পথে । তুমি কি আমার জোছনা হবে? যার মায়াজালে বিভোর হয়ে নিজেকে সঁপে দেব সকল বাস্তবতা ভুলে । তুমি কি আমার কবর হবে? যেখানে শান্তির শীতল বাতাসে বয়ে যাবে আমার চিরনিদ্রার অফুরন্ত প্রহর । ============================================ ৭ প্রশ্ন আবুল হাসান চোখ ভরে যে দেখতে চাও রঞ্জন রশ্মিটা চেনো তো? বুক ভরে যে শ্বাস নিতে চাও জানো তো অক্সিজেনের পরিমাণটা কত? এত যে কাছে আসতে চাও কতটুকু সংযম আছে তোমার? এত যে ভালোবাসতে চাও তার কতটুকু উত্তাপ সইতে পারবে তুমি? ============================================ ৮ দোতলার ল্যন্ডিং মুখোমুখি ফ্ল্যাট। একজন সিঁড়িতে, একজন দরোজায় আহসান হাবীব : আপনারা যাচ্ছেন বুঝি? : চ’লে যাচ্ছি, মালপত্র উঠে গেছে সব। : বছর দু’য়েক হ’লো, তাই নয়? : তারো বেশি। আপনার ডাকনাম শানু, ভালো নাম? : শাহানা, আপনার? : মাবু। : জানি। : মাহবুব হোসেন। আপনি খুব ভালো সেলাই জানেন। : কে বলেছে। আপনার তো অনার্স ফাইনাল, তাই নয়? : এবার ফাইনাল : ফিজিক্স-এ অনার্স। : কি আশ্বর্য। আপনি কেন ছাড়লেন হঠাৎ? : মা চান না। মানে ছেলেদের সঙ্গে ব’সে… : সে যাক গে, পা সেরেছে? : কি ক’রে জানলেন? : এই আর কি। সেরে গেছে? : ও কিছু না, প্যাসেজটা পিছল ছিলো মানে… : সত্যি নয়। উঁচু থেকে পড়ে গিয়ে… : ধ্যাৎ। খাবার টেবিলে রোজ মাকে অতো জ্বালানো কি ভালো? : মা বলেছে? : শুনতে পাই? বছর দুয়েক হ’লো, তাই নয়? : তারো বেশি। আপনার টবের গাছে ফুল এসেছে? : নেবেন? না থাক। রিকসা এলো, মা এলেন, যাই। : যাই। আপনি সন্ধেবেলা ওভাবে পড়বেন না, চোখ যাবে, যাই। : হলুদ শার্টের মাঝখানে বোতাম নেই, লাগিয়ে নেবেন, যাই। : যান, আপনার মা আসছেন। মা ডাকছেন, যাই। ============================================ ৯ প্রেম হুমায়ুন আজাদ আমরা বিশ্বাস করি না আমাদের? করি? হয়তো করি না? তুমি ভাবো আমি আজ হয়তোবা আছি কোনো ঝলমলে অষ্টাদশী তরুণীর সাথে; মেতে আছি ঠোঁটে, বুকে,শিহরণে; রোববার যাবো অন্য কোনো তরুণীতে। আর আমি ভাবি অদ্বিতীয় তোমর শরীর হয়তো পিষ্ট হচ্ছে কোনো শক্তিমান সুদর্শন দেবতার দ্বারা; তোমার কন্ঠের স্বরে কে না কাপেঁ কয়েক সপ্তাহ? প্রথম তোমাকে দেখেই কে না পড়ে থরোথরো প্রেমে? তোমাকে হয়তো তারা পাঁচতারা, অথবা প্রাচীন ক্যাসেলে বাহুতে ও বুকে ক'রে রাখ। হয়তো পাহাড়ে গেছো কারো সঙ্গে,-ভাবি-, উদ্যানপার্টিতে কাটছে সন্ধ্যা; শেষে আলিঙ্গনে বেঁধে, বুকে ক'রে, কেউ নেবে ঘরে; হয়তো ভাবছো তুমি নভেম্বরের এই মনোরম কুয়াশায় শীতে কারো সঙ্গে আমি মত্ত মানবিক সবচেয়ে সুখকর জ্বরে। আমাকে সন্দেহ ক'রে কষ্ট পাও? নিরন্তর? যে-রকম আমি তোমাকে সন্দেহ ক'রে কাঁপি? দু:স্বপ্নে ঘুমহীন থাকি? আমরা বিশ্বাস করি না আমাদের? অবিশ্বাসে দিবা আর যামি সন্দেহকেই প্রেমে পরিণত ক'রে বুক ভ'রে রাখি? ============================================ Kavita Parate K Na Bhalbase Are Premer Kavita Hale Toh Kathai Nei Jibne Eman Manus Khunje Powa Jabe Na Je Jibne Ekabarao Preme Pareni Jodi Powa Jay Tove SATA Habe Astam Aschorjo Premer Abedan Chirantan Sathe Premer Kabitarao Tai Jara Kavita Bhalbasen Tader Janya Ajake Nia Asalam Bangla Sahityer Shrestha Kayekati Premer Kavita Ec Patay SAIRA Premer Kabitagulo Parate Apanader Bhal Lagbe Balei Amar Biswas Are Apanader Bhal Laglei Amar Parishram Sarthak Habe Lekhay Anek Bhulabhrantri Thakte Pare Bhulgulo Dekhiye Diwan Evan Xamasundar Drishtite Dekhben 1 Anek Chhil Balar Kaji Najrul Islam Anek Chhil Balar Jodi Sedin Bhalobaste Path Chhil Go Chalar Jodi Duodin Age Asate Ajake Mahasagar Srote Chalechhi Dur Parer Pathe Jhara Pata Haray Jatha Sei Andhare Bhaste Gahan Rati Dake Amay Alley Tumi Ajake Kandiye Gele Haya Go Amar Biday Belar Sanjhake Asate Jodi Hey Atithi Chhil Jakhan Shuka Tithi Futat Chanpa Sedin Jodi CHAITALI Saad Haste 2 ANAMIKA Kazi Najrul Islam Koun Name Dakab Tomay NAM Na Jaana ANAMIKA Jale Sthale Gagane Tale Tomar Madhur Na Je Likha Gishme Kanak Chanpar Fule Tomar Namer Abhas Dule Chhariye Ache Bakul Mule Tomar NAM Hey Nika Barsha Ble Ashrujaler Manini Say Birhini Aakash Ble Tarite LATA Dharitri Kya Chatkini Ashadh Meghe Rakhlo Dhaki NAM Je Tomar Kajal Ankhi Shraban Ble Juni Bella Ki Keka Ble Malvika Sharada Prate Kamal Bane Tomar Name Madhu Piye Banidebir Binar Sure Bhromor Beray Gunguniye Tomar Namer Mill Miliye Jhil Othe Go Jhilmiliye Ashwin Kya Taur Je Bie Gaye Halud Shefalika Nadir Tire Benur Sure Tomar Namer Maya Ghanay Koruna Aakash G Le Tomar NAM Jhare Nihar Kanay Aman Dhaner Manjarite NAM Gatha Je Chhanda Gite Haimanti Jhim Nishite Taray Jbale Namer Shikha Chaya Pather Kahelikay Tomar Namer Renu Makha Mlan Madhuri Indulekhay Tomar Namer Tilak Anka More Name Huye Udas Dhumal Holo Vimal Aakash Kande Shiter Himel Bates Kothay Sudur Niharika Tomar Namer Shat Nori Banabhumir Galay Dole Zap Shunechhi Tomar Namer Muhhumurhu Bole Dulalachanpar Pathar Cole Tomar Namer Mukul Dole Kushnachura Hena Ble Chir Chaina Say Radhika Biswa ROMA Srishti Jure Tomar Namer Aradhana Jariye Tomar Namabali Hridaya Kare Jogsadhna Tomar Namer Abeg Nia Sindhu Uthe Hilloliya Samirane Marmariya Fere Tomar NAM Gitika 3 Abhishap Kazi Najrul Islam Jedin Aami Hariye Jab Bujhbe Sedin Bujhbe Astaparer Sandhyataray Amar Khabar Puchhbe Bujhbe Sedin Bujhbe Sbi Amar Buke Bendhe Paagal Huye Kende Kende Firbe Maru Kanan Giri Sagar Aakash Bates Chiri Jedin Amay Khunjabe Bujhbe Sedin Bujhbe Swapna Bhenge Nishut Rate Jagbe Hathat Chamake Kahar Jen Chaina Chhoway Uthabe O Book Chhamake Jagbe Hathat Chamake Bhabbe Bujhi Amii Ese B Sonu Buker Kolti Ghenshe Dharate Giye Dekhbe Jakhan Shunya Shajya Mithya Swapna Bednate Chokh Bujbe Bujhbe Sedin Bujhbe Gaite B Say Kantha Chhire Asabe Jakhan Kanna B Labe Sabai - Sei Je Pathik Taur Shekhano Gone Na Asabe Bhenge Kanna P Rabe Money Amar Sohag Kanthe Tomar Kandabe Behag P Rabe Money Anek Fanki Ashru HARA Kathin Ankhi Ghana Ghana Muchhbe Bujhbe Sedin Bujhbe Abar Jedin Shiuli Fute Vo Rabe Tomar Angan Tulte Say Full Ganthate Mala Kanpabe Tomar Kankan Kandabe Kuteer Angan Shiuli Dhaka More Samadhi P Rabe Money Uthabe Kandi Buker Mala Ca Rabe Jbala Chokher Jale Sedin Bala Mukher Hasi Ghuchbe Bujhbe Sedin Bujhbe 4 Nihsangata Aavula HASAN Atotuku Say Ni Velika Ato Shobha Ato Swadhinata Cheyechhilo Aro Kichhu Com Ainaro Danre Deh Mele Diye Base Thaka Sobota Dupur Cheyechhilo MA Bakuk Baba Taur Bedna Dekhuk Atotuku Say Ni Velika Ato Hai Rai Loka Ato Bhir Ato Samagam Cheyechhilo Aro Kichhu Com Ekati Jaler Khani Take Dik TRISHNA Ekhani Cheyechhilo Ekati Purush Take Baluk Ramani 5 Premiker Pratidandwi Aavula HASAN ‘atabar Chokh Niye Atabar Khonpa Niye Atabar Dirghashwas Buker Nishwas Niye Jat Tumi Khule Dow Komrer Komal Saras Jat Tumi Khule Dow Gharer Pahara Jat Anu O Angule Abaidh Ishara Jat Na Jagao Tumi Fuler Surabhi Anchale Alaga Karo Komalata Andhakar Mete Theke Mauntar Mayur Nachao Kono Aami Firbo Na Are Aami Kono Dinh Karo Premik Habe Na Premiker Pratiddhandwi Chai Az Aami Sab Premiker Pratidwandwi Habo 6 Akankha Aavula HASAN Tumi Ki Amar Aakash Habe Megha Huye Jake Sajab Amar Maner Matt Kare Tumi Ki Amar Nadi Habe Jar Nibir Alingane Dhanya Huye Tri Beshe Bhese Jab Koun Ajana Gantabyer Pathe Tumi Ki Amar Jochana Habe Jar Mayajale Bibhor Huye Nijeke Sanpe Deb Sakal Bastabata Bhule Tumi Ki Amar Kabar Habe Jekhanay Shantir Sheetal Batase Be Jabe Amar Chirnidrar Afuranta Prahar 7 Prashna Aavula HASAN Chokh Bhare Je Dekhte Chao Ranjan Rashmita Cheno To Book Bhare Je Shwas Nite Chao Jano To Aksijener Parimanta Kat Et Je Kachhe Asate Chao Katatuku Sangjam Ache Tomar Et Je Bhalobaste Chao Taur Katatuku Uttap Suite Parbe Tumi 8 Dotlar Lyanding Mukhomukhi Flat Ekajan Sinrite Ekajan Darojay Ahsan Habib Apanara Jachchhen Bujhi Chole Jachchhi Malapatra Uthe Gechhe Sab Bachhar Duoyek Holo Tai Noy Taro Bedshee Apanar Daknam Sanu Valu NAM Shahana Apanar Mabu JANI Mahbub Hossain Apni Khub Valu Selai Janen K Balechhe Apanar Toh Honours Final Tai Noy Ebar Final Physics A Honours Ki Ashwarjya Apni Can Chharlen Hathat MA Sun Na Mane Chheleder Sange Bose… Say Jak Ge PA Serechhe Ki Kore Janlen AE Are Ki Sere Gechhe O Kichhu Na Pyasejata Pichhal Chhilo Mane… Satyi Noy Unchu Theke Pare Giye… Dhyat Khabar Tebile Rose Make Ato Jbalano Ki Valu MA Balechhe Shunte Pai Bachhar Duyek Holo Tai Noy Taro Bedshee Apanar Taber Gachhe Full Esechhe Neben Na Thak Riksa Aloe MA Ellen Jai Jai Apni Sandhebela Obhabe Paraben Na Chokh Jabe Jai Halud Sharter Majhkhane Botam Nei Lagiye Neben Jai Jan Apanar MA Asachhen MA Dakchhen Jai 9 Prem Humayun Azad Amara Biswas Kari Na Amader Kari Hayato Kari Na Tumi Bhabo Aami Az Hayatoba Achhi Kono Jhalamale Ashtadashi Tarunir Sathe Maite Achhi Thonte Buke Shiharane Robbar Jabo Anya Kono Tarunite Are Aami Bhabi Adwitiya Tomar Sharir Hayato Pishta Hachchhe Kono Shaktiman Sudarshan Debtar Dwara Tomar Kanther Sware K Na Kapen Kayek Saptah Pratham Tomake Dekhei K Na Pare Tharotharo Preme Tomake Hayato Tara Panchatara Athaba Prachin Kyasele Bahute O Buke Ca Ray Rakh Hayato Pahare Gechho Karo Sange Bhabi Udyanapartite Katchhe Sandhya Sheshe Alingane Bendhe Buke Ca Ray Keu Nebe Ghare Hayato Bhabchho Tumi Nabhembarer AE Manoram Kuyashay Shite Karo Sange Aami Matt Manbik Sabacheye Sukhakar Jbare Amake Sandeh Ca Ray Kashta Pao Nirantar Je Rakam Aami Tomake Sandeh Ca Ray Kanpi Du Swapne Ghumhin Thaki Amara Biswas Kari Na Amader Abishwase Diba Are Jami Sandehakei Preme Parinat Ca Ray Book Vo Ray Rakhi
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Bikhyat Romantik Kabitar Line Lekh,Write The Lines Of Famous Romantic Poems,


vokalandroid