আইন নৃবিজ্ঞান বলতে কি বোঝায়? ...

আক্ষরিক অর্থে নৃবিজ্ঞান মানুষ বিষয়ক বিজ্ঞান। নৃবিজ্ঞানের লক্ষ্য হলো অতীত ও বর্তমানের মানব সমাজ ও মানব আচরণকে অধ্যয়ণ করা । কিন্তু মানুষ বিষয়ক অন্যান্য বিজ্ঞানগুলির চেয়ে এটির পরিধি ব্যাপকতর। আইন হল মানুষের জীবন ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রণ করার একটি প্রক্রিয়া। মানুষ যখন থেকে সমাজবদ্ধ হয়ে বসবাস করতে শুরু করলো তখন থেকেই সমাজে মানুষের আচার-ব্যবহারকে সমাজ উপযোগী করে তোলার জন্য আইনের উৎপত্তি হয়। নৃবিজ্ঞানে আইনকে বিশেষভাবে অধ্যয়ন করা হয় কারণ নৃবিজ্ঞানীরা বিভিন্ন সমাজের আইন অধ্যয়ন করার মাধ্যমে সেই সমাজ ব্যবস্থা ও মানুষের জীবনযাএা প্রণালীকে বুঝতে চেয়েছেন। তাছাড়া নৃবিজ্ঞানে যেহেতু “সংস্কৃতি” অধ্যয়ন একটি বিশেষ জায়গা দখল করে আছে তাই সংস্কৃতির একটি অন্যতম উপাদান হিসেবে সমাজে প্রচলিত আইনকে অধ্যয়ন করার প্রয়োজনীয়তা নৃবিজ্ঞানীরা অনুভব করেন। এই আইনকে অধ্যয়নের মাধ্যমে একটি সমাজের রীতি-নীতি বোঝা সম্ভব বলে তারা মনে করেন এবং আইন অধ্যয়নের উপর গুরত্ব দেন।
Romanized Version
আক্ষরিক অর্থে নৃবিজ্ঞান মানুষ বিষয়ক বিজ্ঞান। নৃবিজ্ঞানের লক্ষ্য হলো অতীত ও বর্তমানের মানব সমাজ ও মানব আচরণকে অধ্যয়ণ করা । কিন্তু মানুষ বিষয়ক অন্যান্য বিজ্ঞানগুলির চেয়ে এটির পরিধি ব্যাপকতর। আইন হল মানুষের জীবন ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রণ করার একটি প্রক্রিয়া। মানুষ যখন থেকে সমাজবদ্ধ হয়ে বসবাস করতে শুরু করলো তখন থেকেই সমাজে মানুষের আচার-ব্যবহারকে সমাজ উপযোগী করে তোলার জন্য আইনের উৎপত্তি হয়। নৃবিজ্ঞানে আইনকে বিশেষভাবে অধ্যয়ন করা হয় কারণ নৃবিজ্ঞানীরা বিভিন্ন সমাজের আইন অধ্যয়ন করার মাধ্যমে সেই সমাজ ব্যবস্থা ও মানুষের জীবনযাএা প্রণালীকে বুঝতে চেয়েছেন। তাছাড়া নৃবিজ্ঞানে যেহেতু “সংস্কৃতি” অধ্যয়ন একটি বিশেষ জায়গা দখল করে আছে তাই সংস্কৃতির একটি অন্যতম উপাদান হিসেবে সমাজে প্রচলিত আইনকে অধ্যয়ন করার প্রয়োজনীয়তা নৃবিজ্ঞানীরা অনুভব করেন। এই আইনকে অধ্যয়নের মাধ্যমে একটি সমাজের রীতি-নীতি বোঝা সম্ভব বলে তারা মনে করেন এবং আইন অধ্যয়নের উপর গুরত্ব দেন।Aksharik Arthe Nribigyan Manus Bishayak Bigyan Nribigyaner Lakshya Holo Ateet O Bartamaner Menabe Samaj O Menabe Acharanake Adhyayan Kara Kintu Manus Bishayak Anyanya Bigyanagulir Cheye Etir Paridhi Byapakatar Ain Hall Manusher Jeevan Byabasthake Niyantran Karar Ekati Prakriya Manus Jakhan Theke Samajabaddha Huye Basabas Karate Shuru Karalo Takhan Thekei Samaje Manusher Achar Byabaharke Samaj Upajogi Kare Tolar Janya Ainer Utpatti Hya Nribigyane Ainake Bisheshbhabe Adhyayan Kara Hya Karan Nribigyanira Bibhinna Samajer Ain Adhyayan Karar Madhyame Sei Samaj Byabastha O Manusher Jibanajaea Pranalike Bujhte Cheyechhen Tachhara Nribigyane Jehetu “sanskriti” Adhyayan Ekati Vishesha Jayga Dakhal Kare Ache Tai Sanskritir Ekati Anyatam Upadan Hisebe Samaje Prachalit Ainake Adhyayan Karar Prayojniyta Nribigyanira Anubhav Curren AE Ainake Adhyayaner Madhyame Ekati Samajer Riti Niti Bojha Sambhab Ble Tara Money Curren Evan Ain Adhyayaner Upar Guratba Than
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


আইন নৃবিজ্ঞান : আইন হল মানুষের জীবন ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রণ করার একটি প্রক্রিয়া। মানুষ যখন থেকে সমাজবদ্ধ হয়ে বসবাস করতে শুরু করলো তখন থেকেই সমাজে মানুষের আচার-ব্যবহারকে সমাজ উপযোগী করে তোলার জন্য আইনের উৎপত্তি হয়। নৃবিজ্ঞান এ আইনকে বিশেষভাবে অধ্যয়ন করা হয় কারণ নৃবিজ্ঞানীরা বিভিন্ন সমাজের আইন অধ্যয়ন করার মাধ্যমে সেই সমাজ ব্যবস্থা ও মানুষের জীবনযাএা প্রণালীকে বুঝতে চেয়েছেন। তাছাড়া নৃবিজ্ঞানে যেহেতু “সংস্কৃতি” অধ্যয়ন একটি বিশেষ জায়গা দখল করে আছে তাই সংস্কৃতির একটি অন্যতম উপাদান হিসেবে সমাজে প্রচলিত আইনকে অধ্যয়ন করার প্রয়োজনীয়তা নৃবিজ্ঞানীরা অনুভব করেন। এই আইনকে অধ্যয়নের মাধ্যমে একটি সমাজের রীতি-নীতি বোঝা সম্ভব বলে তারা মনে করেন এবং আইন অধ্যয়নের উপর গুরত্ব দেন। মর্গান, ম্যালিনস্কি, ব্যাউনসহ প্রথম দিককার প্রায় সকল নৃবিজ্ঞানীরাই তাদের গবেষিত সমাজের আইন ব্যবস্থাকে বুঝতে চেয়েছিলেন। তাই খুব স্বাভাবিকভাবেই বলা যায় নৃবিজ্ঞান এ আইন নিয়ে আলোচনা এর জন্মলগ্ন থেকেই হয়ে আসছে। বিনামূল্যে আইনী সহায়তা প্রদানকারী এ সকল প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অন্যতম হল বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড সার্ভিসেস ট্রাষ্ট (BLAST)। প্রতিষ্ঠানটি ১৯৯৩ সাল থেকে এই সহায়তা প্রদান করে আসছে। এছাড়াও যে সকল প্রতিষ্ঠান বা এনজিও এই সহায়তা প্রদান করে থাকে তা হল – আইন ও সালিশ কেন্দ্র, নারীপক্ষ, নাগরিক উদ্যোগ, ব্রাক প্রভৃতি। ‘লিগ্যাল এইড’ মূলত দরিদ্র জনগোষ্ঠী ও নারীদের পারিবারিক পরিসরে আইনী সহায়তা, ধর্ষণ মামলা, মীমাংসা, কোর্টের বদলে সালিশ কেন্দ্রের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান, অফিসে কোন অভিযোগ আসলে তার প্রেক্ষিতে উকিল নোটিশ প্রদান – এই ধরনের সহায়তা প্রদান করে থাকে। ব্লাস্ট এর এই ‘লিগ্যাল এইড’ বা বিনামূল্যে আইনী সহায়তা প্রদানের কার্যক্রমকে যদি আমরা আইনী নৃবিজ্ঞানের আলোকে ব্যাখ্যা করতে যাই তবে প্রথমেই আমাদের আইনী নৃবিজ্ঞান এর চিন্তাভাবনাকে দেখা প্রয়োজন হয়ে পড়ে। আইনী নৃবিজ্ঞান এর চিন্তাভাবনার ধারাবাহিকতায় প্রথমে চলে আসে মন্টেস্কু (১৭২১) ও হেনরী মেইন (১৮৬১) এর নাম। প্রাচীন গ্রীসে প্লেটো ও এরিষ্টটল আইনকে ‘প্রাকৃতিক আইন’ বলেন। সপ্তদশ ও অষ্টাদশ শতকের রেনেসা উত্তর দার্শনিকেরাও আইনকে প্রাকৃতিক বলে উল্লেখ করেন। পরবর্তীতে মর্গান, ম্যালিনস্কি প্রভৃতি নৃবিজ্ঞানীরা তাদের গবেষিত সমাজের প্রচলিত আইন প্রথা নিয়ে কথা বলার মধ্য দিয়ে বিকাশ ঘটান আইনী নৃবিজ্ঞান এর। আধুনিক আইনী নৃবিজ্ঞান এর সূচনা করেন ম্যালিনস্কি তাঁর ট্রবিয়ান্ড সমাজের উপর করা মনোগ্রাফ “Crime of the savage society (1926)” যা মূলত আইনকে বোঝার জন্য গবেষণা কৌশল এর প্রস্তাবনা দাড় করায়। তিনি পর্যবেক্ষন ও মাঠকর্মের উপর গুরুত্ব দেন। ই.এ.হোবেল তাঁর “The Law of Primitive Man (1954)” গ্রন্থে মানব জীবনের জটিলতা ও নির্দিষ্টতার কথা বলেন। পরবর্তীতে ৬০‘র দশকের ‘আইনী নৃবিজ্ঞানীরা ’ সামাজিক নিয়ন্ত্রক হিসেবে আইনী কর্তৃত্বকে চিহ্নিত করেন। ৭০’র দশকে আইনী নৃবিজ্ঞান এর বিষয়বস্তু কেবল নিয়মনীতি না প্রক্রিয়াধর্মী হবে তা কেন্দ্রীয় জিজ্ঞাসা হয়ে ওঠে। কমাররফ ও সিমন (১৯৮১) আইনী নৃবিজ্ঞানে যে কোন দ্বন্দ্ব মীমাংসায় সামাজিক প্রথা নির্ধারণের দিকে গুরুত্ব দেন। ‘আইন’ (law) ও ‘বিষয়’ (fact) ‘আইনবিদ’ এবং ‘নৃবিজ্ঞানীদের’ কেন্দ্রীয় চিন্তার জায়গা , সমাজে এ দুয়ের সম্মেলনের মাধ্যমে আইনী নৃবিজ্ঞান কে বোঝা সম্ভব। কেইস আলোচনায় ‘আইন’ বৈশ্বিকভাবে কোন ব্যক্তিকে তার নির্দিষ্ট সমাজ সংস্কৃতির আলোকে ব্যাখ্যা করে নাকি এ্যাংলো আমেরিকান আইনী মূল্যবোধের প্রতিবিম্ব ব্যক্তি জীবনে প্রকাশ পায় তা বোঝার দিকে গিয়ার্টজ (১৯৮৩;১৬৯-১৭০) নজর দিতে বলেন। ১৯৮০ হতে ১৯৯০ এই দশকের মধ্যে আমেরিকায় নৃবৈজ্ঞানীক আইনী জ্ঞানকান্ডের গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন ঘটে। সেক্ষেএে বিরোধ বা দ্বন্দ্ব অধ্যয়নে আইনকে ক্ষমতার সাথে সম্পর্কিত করে দেখার কথা বলা হয়। পরবর্তীতে ৯০’র দশকে দৃষ্টি দেয়া হয় আইনী প্রতিষ্ঠান কিভাবে প্রাতিষ্ঠানিক চর্চার মাধ্যমে ক্ষমতা সম্পর্কের পদ্ধতিকে প্রকাশ করে।
Romanized Version
আইন নৃবিজ্ঞান : আইন হল মানুষের জীবন ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রণ করার একটি প্রক্রিয়া। মানুষ যখন থেকে সমাজবদ্ধ হয়ে বসবাস করতে শুরু করলো তখন থেকেই সমাজে মানুষের আচার-ব্যবহারকে সমাজ উপযোগী করে তোলার জন্য আইনের উৎপত্তি হয়। নৃবিজ্ঞান এ আইনকে বিশেষভাবে অধ্যয়ন করা হয় কারণ নৃবিজ্ঞানীরা বিভিন্ন সমাজের আইন অধ্যয়ন করার মাধ্যমে সেই সমাজ ব্যবস্থা ও মানুষের জীবনযাএা প্রণালীকে বুঝতে চেয়েছেন। তাছাড়া নৃবিজ্ঞানে যেহেতু “সংস্কৃতি” অধ্যয়ন একটি বিশেষ জায়গা দখল করে আছে তাই সংস্কৃতির একটি অন্যতম উপাদান হিসেবে সমাজে প্রচলিত আইনকে অধ্যয়ন করার প্রয়োজনীয়তা নৃবিজ্ঞানীরা অনুভব করেন। এই আইনকে অধ্যয়নের মাধ্যমে একটি সমাজের রীতি-নীতি বোঝা সম্ভব বলে তারা মনে করেন এবং আইন অধ্যয়নের উপর গুরত্ব দেন। মর্গান, ম্যালিনস্কি, ব্যাউনসহ প্রথম দিককার প্রায় সকল নৃবিজ্ঞানীরাই তাদের গবেষিত সমাজের আইন ব্যবস্থাকে বুঝতে চেয়েছিলেন। তাই খুব স্বাভাবিকভাবেই বলা যায় নৃবিজ্ঞান এ আইন নিয়ে আলোচনা এর জন্মলগ্ন থেকেই হয়ে আসছে। বিনামূল্যে আইনী সহায়তা প্রদানকারী এ সকল প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অন্যতম হল বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড সার্ভিসেস ট্রাষ্ট (BLAST)। প্রতিষ্ঠানটি ১৯৯৩ সাল থেকে এই সহায়তা প্রদান করে আসছে। এছাড়াও যে সকল প্রতিষ্ঠান বা এনজিও এই সহায়তা প্রদান করে থাকে তা হল – আইন ও সালিশ কেন্দ্র, নারীপক্ষ, নাগরিক উদ্যোগ, ব্রাক প্রভৃতি। ‘লিগ্যাল এইড’ মূলত দরিদ্র জনগোষ্ঠী ও নারীদের পারিবারিক পরিসরে আইনী সহায়তা, ধর্ষণ মামলা, মীমাংসা, কোর্টের বদলে সালিশ কেন্দ্রের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান, অফিসে কোন অভিযোগ আসলে তার প্রেক্ষিতে উকিল নোটিশ প্রদান – এই ধরনের সহায়তা প্রদান করে থাকে। ব্লাস্ট এর এই ‘লিগ্যাল এইড’ বা বিনামূল্যে আইনী সহায়তা প্রদানের কার্যক্রমকে যদি আমরা আইনী নৃবিজ্ঞানের আলোকে ব্যাখ্যা করতে যাই তবে প্রথমেই আমাদের আইনী নৃবিজ্ঞান এর চিন্তাভাবনাকে দেখা প্রয়োজন হয়ে পড়ে। আইনী নৃবিজ্ঞান এর চিন্তাভাবনার ধারাবাহিকতায় প্রথমে চলে আসে মন্টেস্কু (১৭২১) ও হেনরী মেইন (১৮৬১) এর নাম। প্রাচীন গ্রীসে প্লেটো ও এরিষ্টটল আইনকে ‘প্রাকৃতিক আইন’ বলেন। সপ্তদশ ও অষ্টাদশ শতকের রেনেসা উত্তর দার্শনিকেরাও আইনকে প্রাকৃতিক বলে উল্লেখ করেন। পরবর্তীতে মর্গান, ম্যালিনস্কি প্রভৃতি নৃবিজ্ঞানীরা তাদের গবেষিত সমাজের প্রচলিত আইন প্রথা নিয়ে কথা বলার মধ্য দিয়ে বিকাশ ঘটান আইনী নৃবিজ্ঞান এর। আধুনিক আইনী নৃবিজ্ঞান এর সূচনা করেন ম্যালিনস্কি তাঁর ট্রবিয়ান্ড সমাজের উপর করা মনোগ্রাফ “Crime of the savage society (1926)” যা মূলত আইনকে বোঝার জন্য গবেষণা কৌশল এর প্রস্তাবনা দাড় করায়। তিনি পর্যবেক্ষন ও মাঠকর্মের উপর গুরুত্ব দেন। ই.এ.হোবেল তাঁর “The Law of Primitive Man (1954)” গ্রন্থে মানব জীবনের জটিলতা ও নির্দিষ্টতার কথা বলেন। পরবর্তীতে ৬০‘র দশকের ‘আইনী নৃবিজ্ঞানীরা ’ সামাজিক নিয়ন্ত্রক হিসেবে আইনী কর্তৃত্বকে চিহ্নিত করেন। ৭০’র দশকে আইনী নৃবিজ্ঞান এর বিষয়বস্তু কেবল নিয়মনীতি না প্রক্রিয়াধর্মী হবে তা কেন্দ্রীয় জিজ্ঞাসা হয়ে ওঠে। কমাররফ ও সিমন (১৯৮১) আইনী নৃবিজ্ঞানে যে কোন দ্বন্দ্ব মীমাংসায় সামাজিক প্রথা নির্ধারণের দিকে গুরুত্ব দেন। ‘আইন’ (law) ও ‘বিষয়’ (fact) ‘আইনবিদ’ এবং ‘নৃবিজ্ঞানীদের’ কেন্দ্রীয় চিন্তার জায়গা , সমাজে এ দুয়ের সম্মেলনের মাধ্যমে আইনী নৃবিজ্ঞান কে বোঝা সম্ভব। কেইস আলোচনায় ‘আইন’ বৈশ্বিকভাবে কোন ব্যক্তিকে তার নির্দিষ্ট সমাজ সংস্কৃতির আলোকে ব্যাখ্যা করে নাকি এ্যাংলো আমেরিকান আইনী মূল্যবোধের প্রতিবিম্ব ব্যক্তি জীবনে প্রকাশ পায় তা বোঝার দিকে গিয়ার্টজ (১৯৮৩;১৬৯-১৭০) নজর দিতে বলেন। ১৯৮০ হতে ১৯৯০ এই দশকের মধ্যে আমেরিকায় নৃবৈজ্ঞানীক আইনী জ্ঞানকান্ডের গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন ঘটে। সেক্ষেএে বিরোধ বা দ্বন্দ্ব অধ্যয়নে আইনকে ক্ষমতার সাথে সম্পর্কিত করে দেখার কথা বলা হয়। পরবর্তীতে ৯০’র দশকে দৃষ্টি দেয়া হয় আইনী প্রতিষ্ঠান কিভাবে প্রাতিষ্ঠানিক চর্চার মাধ্যমে ক্ষমতা সম্পর্কের পদ্ধতিকে প্রকাশ করে।Ain Nribigyan : Ain Hall Manusher Jeevan Byabasthake Niyantran Karar Ekati Prakriya Manus Jakhan Theke Samajabaddha Huye Basabas Karate Shuru Karalo Takhan Thekei Samaje Manusher Achar Byabaharke Samaj Upajogi Kare Tolar Janya Ainer Utpatti Hya Nribigyan A Ainake Bisheshbhabe Adhyayan Kara Hya Karan Nribigyanira Bibhinna Samajer Ain Adhyayan Karar Madhyame Sei Samaj Byabastha O Manusher Jibanajaea Pranalike Bujhte Cheyechhen Tachhara Nribigyane Jehetu “sanskriti” Adhyayan Ekati Vishesha Jayga Dakhal Kare Ache Tai Sanskritir Ekati Anyatam Upadan Hisebe Samaje Prachalit Ainake Adhyayan Karar Prayojniyta Nribigyanira Anubhav Curren AE Ainake Adhyayaner Madhyame Ekati Samajer Riti Niti Bojha Sambhab Ble Tara Money Curren Evan Ain Adhyayaner Upar Guratba Than Margan Myalinaski Byaunasah Pratham Dikkar Pray Sakal Nribigyanirai Tader Gabeshit Samajer Ain Byabasthake Bujhte Cheyechhilen Tai Khub Swabhabikbhabei Bala Jay Nribigyan A Ain Niye Alochana Aare Janmalagna Thekei Huye Ashche Binamulye Aini Sahayata Pradankari A Sakal Pratishthaner Madhye Anyatam Hall Bangladesh Legal Aid Services Trashta Pratishthanati 1993 Saala Theke AE Sahayata Pradan Kare Ashche Echharao Je Sakal Pratisthan Ba NGO AE Sahayata Pradan Kare Thake Ta Hall – Ain O Salish Kendra Naripaksh Nagrik Udyog Brak Prabhriti ‘legal Eido Mulat Daridra Janagoshthi O Narider Paribarik Parisare Aini Sahayata Dharshan Mamla Mimansa Korter Badale Salish Kendrer Madhyame Samasyar Samadhan Afise Koun Abhijog Ashley Taur Prekshite Ukil Notish Pradan – AE Dharaner Sahayata Pradan Kare Thake Blast Aare AE ‘legal Eido Ba Binamulye Aini Sahayata Pradaner Karjakramake Jodi Amara Aini Nribigyaner Aloke Byakhya Karate Jai Tove Prathamei Amader Aini Nribigyan Aare Chintabhabnake Dekha Prayojan Huye Pare Aini Nribigyan Aare Chintabhabnar Dharabahiktay Prathame Chale Ase Mantesku 1721 O Henry Main 1861 Aare NAM Prachin Grise Pleto O Erishtatal Ainake ‘prakritik Aino Baleno Saptadash O Ashtadash Shataker Renesa Uttar Darshanikerao Ainake Praakritik Ble Ullekh Curren Parabartite Margan Myalinaski Prabhriti Nribigyanira Tader Gabeshit Samajer Prachalit Ain Pratha Niye Katha Balar Madhya Diye Vikas Ghatan Aini Nribigyan Aare Adhunik Aini Nribigyan Aare Suchna Curren Myalinaski Tanr Trabiyand Samajer Upar Kara Manograf “ Of The Savage Society ” Ja Mulat Ainake Bojhar Janya Gabeshana Kaushal Aare Prastabana Dar Karay Tini Parjabekshan O Mathakarmer Upar Gurutba Than E A Hobel Tanr “ Law Of Primitive Man ” Granthe Menabe Jibner Jatilata O Nirdishtatar Katha Baleno Parabartite 60‘r Dashaker ‘aini Nribigyanira ’ Samajik Niyantrak Hisebe Aini Kartritbake Chihnit Curren 70or Dashake Aini Nribigyan Aare Bishayabastu Cable Niyamaniti Na Prakriyadharmi Habe Ta Kendriya Jigyasa Huye Othe Kamararaf O Simon 1981 Aini Nribigyane Je Koun Dwandwa Mimansay Samajik Pratha Nirdharaner Dike Gurutba Than ‘aino (law) O ‘bishayo (fact) ‘ainabido Evan ‘nribigyanidero Kendriya Chintar Jayga , Samaje A Duyer Sammelaner Madhyame Aini Nribigyan K Bojha Sambhab Keis Alochnay ‘aino Baishwikabhabe Koun Byaktike Taur Nirdishta Samaj Sanskritir Aloke Byakhya Kare Naki Eyanglo American Aini Mulyabodher Pratibimba Byakti Jibne Prakash Pay Ta Bojhar Dike Giyartaj 1983 169 170 Nazr Dite Baleno 1980 Hate 1990 AE Dashaker Madhye Amerikay Nribaigyanik Aini Gyanakander Gurutbapurna Parivartan Ghate Seksheee Birodh Ba Dwandwa Adhyayane Ainake Xamatar Sathe Samparkit Kare Dekhar Katha Bala Hya Parabartite 90or Dashake Drishti Dea Hya Aini Pratisthan Kibhabe Pratishthanik Charchar Madhyame Xamata Samparker Paddhatike Prakash Kare
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Ain Nribigyan Bolte Ki Bojhay,What Does Law Anthropology Mean?,


vokalandroid