বিজ্ঞান বিষয়ক পত্রিকা ...

বিজ্ঞান বিষয়ক পত্রিকা বাংলায় বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণের পত্রিকা বিজ্ঞান তার পথচলার প্রথম দেড় বছর পূর্ণ করল। মাত্র আঠারো মাস হয়তো কোন পত্রিকার সাবালক হওয়ার পক্ষ্যে যথেষ্ঠ নয়। কিন্তু তাও একটু একটু করে আমরা এগিয়েছি বেশ অনেকটাই। সে কাজ সম্ভব হত না এত উৎসাহী গবেষক-লেখক স্বেচ্ছাসেবী এবং সর্বোপরি পাঠকদের সাথে না পেলে।সমাজের উন্নতিতে বিজ্ঞান মনস্কতার প্রয়োজন বিতর্কের অতীত। তার জন্য দরকার সেই সমাজের নিজের ভাষায় বিজ্ঞান আলোচনার পরিবেশ। বিজ্ঞান প্রকৃতির ভাষা বোঝার চেষ্টা করে। সুবিধের খাতিরে গবেষণার কাজ আমরা ইংরাজী ভাষায় প্রকাশ করি।কারণ আন্তর্জাতিক স্তরে বিজ্ঞানীদের মধ্যে যোগাযোগ বজায় রাখতে এর বিকল্প এখনো নেই। কিন্তু সেই গবেষণার কথা আমরা কোন স্কুলে পড়া ছাত্রছাত্রীকে তার মাতৃভাষায় বোঝাতে পারব না কেন? আধুনিক বিজ্ঞানের জয়যাত্রা আর সমস্যার কথা না জানলে ছাত্রছাত্রীদের কাছে বিজ্ঞান পাঠ্যপুস্তকের বোঝা হয়ে দাঁড়াবে। আর ছাত্রছাত্রীরা জ্ঞান-বিজ্ঞানের আনন্দযজ্ঞের শরীক না হলে সেই সমাজ ভবিষ্যতে বিজ্ঞানমনস্ক সমাজ হিসেবে গড়ে উঠবে এমন আশা না করাই ভাল। এই উদ্দেশ্যে অনেক বিজ্ঞানী মাতৃভাষায় বিজ্ঞানের জনপ্রিয়করণের কাজ করে যান। বিজ্ঞান সেই প্রচেষ্টাকে আরো অনেক এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার মাধ্যম।কোন বিষয়কে সহজ করে অথচ নির্ভুলভাবে বোঝাতে পারা খুব শক্ত। তার জন্য সবার আগে প্রয়োজন সেই বিষয় সম্বন্ধে নিজের পরিচিতি, অনেক ভাবনাচিন্তা। বিজ্ঞান -এ প্রকাশিত বেশিরভাগ লেখাই লিখেছেন এমন লেখক যারা সরাসরি গবেষণার সাথে যুক্ত, বা সেই বিষয় নিয়ে অনেক চিন্তাভাবনা করেছেন। লেখাগুলি প্রকাশিত হওয়ার আগে সেই বিষয়ের গবেষকদের মতামত নেওয়া হয়েছে, যাতে যথাসম্ভব সঠিকভাবে এবং সহজভাবে বিষয়গুলির অবতারণা করা যায়। সারা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা এত বাঙালী গবেষকদের এক মঞ্চে এনে এমন আড্ডার নিদর্শন খুব বেশী নেই। বিজ্ঞান-এ প্রকাশিত লেখাগুলির মধ্যে থেকেই বাছাই করা কিছু লেখার সংকলন নিয়ে হাজির বিজ্ঞান পত্রিকা। আপাতত তিনমাসে একবার করে এটি প্রকাশিত হবে বিজ্ঞান -এর ওয়েবসাইটেই। আমাদের আশা পাঠকেরা এই পিডিএফ পত্রিকাটি ভাগ করে নেবেন অনেকের সাথে। বিশেষত স্কুলের মাষ্টারমশাইরা যদি ছাত্রছাত্রীদের জন্য রীডিং-বোর্ডে এই পত্রিকাটির প্রিন্ট আউট প্রদর্শন করেন তাহলে আমাদের প্রচেষ্টা অনেকাংশে সার্থক হবে। যারা বিজ্ঞান এর লেখাগুলির নিয়মিত পাঠক তারা আরেকবার পড়ে নিন লেখাগুলো! ইমেইলে মতামত জানাতে ভুলবেন না। ভারতের শিক্ষক দিবসে প্রকাশিত প্রথম সংখ্যায় রইল কিছু অত্যাশ্চর্য বিষয়ের কথা – যেমন মোমাছির অবিশ্বাস্য নাচ, বৃষ্টিভেজা মনকেমন করা সোঁদা গন্ধের বৈজ্ঞানিক কারণ, আলো দিয়ে পদার্থকে ঠান্ডা করার রহস্য, গাছেদের জগতে হিংসে-মারামারির কাহিনী ইত্যাদি। সেই সাথে থাকছে কিছু ইতিহাস, বিজ্ঞানের খবর, ধাঁধা ইত্যাদি।
Romanized Version
বিজ্ঞান বিষয়ক পত্রিকা বাংলায় বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণের পত্রিকা বিজ্ঞান তার পথচলার প্রথম দেড় বছর পূর্ণ করল। মাত্র আঠারো মাস হয়তো কোন পত্রিকার সাবালক হওয়ার পক্ষ্যে যথেষ্ঠ নয়। কিন্তু তাও একটু একটু করে আমরা এগিয়েছি বেশ অনেকটাই। সে কাজ সম্ভব হত না এত উৎসাহী গবেষক-লেখক স্বেচ্ছাসেবী এবং সর্বোপরি পাঠকদের সাথে না পেলে।সমাজের উন্নতিতে বিজ্ঞান মনস্কতার প্রয়োজন বিতর্কের অতীত। তার জন্য দরকার সেই সমাজের নিজের ভাষায় বিজ্ঞান আলোচনার পরিবেশ। বিজ্ঞান প্রকৃতির ভাষা বোঝার চেষ্টা করে। সুবিধের খাতিরে গবেষণার কাজ আমরা ইংরাজী ভাষায় প্রকাশ করি।কারণ আন্তর্জাতিক স্তরে বিজ্ঞানীদের মধ্যে যোগাযোগ বজায় রাখতে এর বিকল্প এখনো নেই। কিন্তু সেই গবেষণার কথা আমরা কোন স্কুলে পড়া ছাত্রছাত্রীকে তার মাতৃভাষায় বোঝাতে পারব না কেন? আধুনিক বিজ্ঞানের জয়যাত্রা আর সমস্যার কথা না জানলে ছাত্রছাত্রীদের কাছে বিজ্ঞান পাঠ্যপুস্তকের বোঝা হয়ে দাঁড়াবে। আর ছাত্রছাত্রীরা জ্ঞান-বিজ্ঞানের আনন্দযজ্ঞের শরীক না হলে সেই সমাজ ভবিষ্যতে বিজ্ঞানমনস্ক সমাজ হিসেবে গড়ে উঠবে এমন আশা না করাই ভাল। এই উদ্দেশ্যে অনেক বিজ্ঞানী মাতৃভাষায় বিজ্ঞানের জনপ্রিয়করণের কাজ করে যান। বিজ্ঞান সেই প্রচেষ্টাকে আরো অনেক এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার মাধ্যম।কোন বিষয়কে সহজ করে অথচ নির্ভুলভাবে বোঝাতে পারা খুব শক্ত। তার জন্য সবার আগে প্রয়োজন সেই বিষয় সম্বন্ধে নিজের পরিচিতি, অনেক ভাবনাচিন্তা। বিজ্ঞান -এ প্রকাশিত বেশিরভাগ লেখাই লিখেছেন এমন লেখক যারা সরাসরি গবেষণার সাথে যুক্ত, বা সেই বিষয় নিয়ে অনেক চিন্তাভাবনা করেছেন। লেখাগুলি প্রকাশিত হওয়ার আগে সেই বিষয়ের গবেষকদের মতামত নেওয়া হয়েছে, যাতে যথাসম্ভব সঠিকভাবে এবং সহজভাবে বিষয়গুলির অবতারণা করা যায়। সারা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা এত বাঙালী গবেষকদের এক মঞ্চে এনে এমন আড্ডার নিদর্শন খুব বেশী নেই। বিজ্ঞান-এ প্রকাশিত লেখাগুলির মধ্যে থেকেই বাছাই করা কিছু লেখার সংকলন নিয়ে হাজির বিজ্ঞান পত্রিকা। আপাতত তিনমাসে একবার করে এটি প্রকাশিত হবে বিজ্ঞান -এর ওয়েবসাইটেই। আমাদের আশা পাঠকেরা এই পিডিএফ পত্রিকাটি ভাগ করে নেবেন অনেকের সাথে। বিশেষত স্কুলের মাষ্টারমশাইরা যদি ছাত্রছাত্রীদের জন্য রীডিং-বোর্ডে এই পত্রিকাটির প্রিন্ট আউট প্রদর্শন করেন তাহলে আমাদের প্রচেষ্টা অনেকাংশে সার্থক হবে। যারা বিজ্ঞান এর লেখাগুলির নিয়মিত পাঠক তারা আরেকবার পড়ে নিন লেখাগুলো! ইমেইলে মতামত জানাতে ভুলবেন না। ভারতের শিক্ষক দিবসে প্রকাশিত প্রথম সংখ্যায় রইল কিছু অত্যাশ্চর্য বিষয়ের কথা – যেমন মোমাছির অবিশ্বাস্য নাচ, বৃষ্টিভেজা মনকেমন করা সোঁদা গন্ধের বৈজ্ঞানিক কারণ, আলো দিয়ে পদার্থকে ঠান্ডা করার রহস্য, গাছেদের জগতে হিংসে-মারামারির কাহিনী ইত্যাদি। সেই সাথে থাকছে কিছু ইতিহাস, বিজ্ঞানের খবর, ধাঁধা ইত্যাদি।Bigyan Bishayak Patrika Banglay Bigyan Janapriyakaraner Patrika Bigyan Taur Pathachalar Pratham Ded Bachhar Purna Karal Maatr Atharo Massa Hayato Koun Patrikar Sabalak Hwar Pakshye Jatheshtha Noy Kintu Tao Ekatu Ekatu Kare Amara Egiyechhi Bash Anektai Say Kaj Sambhab Hato Na Et Utsahi Gabeshak Lekhak Swechchhasebi Evan Sarbopari Pathakader Sathe Na Pele Samajer Unnatite Bigyan Manaskatar Prayojan Bitarker Ateet Taur Janya Darakar Sei Samajer Nizar Bhashay Bigyan Alochnar Paribesh Bigyan Prakritir Bhasha Bojhar Cheshta Kare Subidher Khatire Gabeshnar Kaj Amara Ingraji Bhashay Prakash Kari Karan Antarjatik Stare Bigyanider Madhye Jogajog Bajay Rakhte Aare Vikalp Ekhano Nei Kintu Sei Gabeshnar Katha Amara Koun Skule Para Chhatrachhatrike Taur Matribhashay Bojhate Parab Na Can Adhunik Bigyaner Jayajatra Are Samasyar Katha Na Janle Chhatrachhatrider Kachhe Bigyan Pathyapustaker Bojha Huye Danrabe Are Chhatrachhatrira Gyan Bigyaner Anandajagyer Sharik Na Hale Sei Samaj Bhabishyate Bigyanamanask Samaj Hisebe Gare Uthabe Eman Asha Na Karai Bhal AE Uddeshye Anek Bigyani Matribhashay Bigyaner Janapriyakaraner Kaj Kare Jan Bigyan Sei Pracheshtake Aro Anek Egiye Niye Jawar Madhyam Koun Bishayake Suhaj Kare Athos Nirbhulabhabe Bojhate Para Khub Shakta Taur Janya Sawaar Age Prayojan Sei Vysya Sambandhe Nizar Parichiti Anek Bhabnachinta Bigyan A Prakashit Beshirbhag Lekhai Likhechhen Eman Lekhak Jara Sarasari Gabeshnar Sathe Jukta Ba Sei Vysya Niye Anek Chintabhabna Karechhen Lekhaguli Prakashit Hwar Age Sei Bishyer Gabeshakader Matamat Newa Hayechhe Jate Jathasambhab Sathikbhabe Evan Sahajabhabe Bishayagulir Abatarna Kara Jay Sara Bishwe Chhariye Thaka Et Bengali Gabeshakader Ec Manche Ene Eman Addar Nidarshan Khub Beshi Nei Bigyan A Prakashit Lekhagulir Madhye Thekei Bachhai Kara Kichhu Lekhar Sankalan Niye Haazir Bigyan Patrika Apatat Tinmase Ekabar Kare AT Prakashit Habe Bigyan Aare Oyebsaitei Amader Asha Pathkera AE PDF Patrikati Bhag Kare Neben Aneker Sathe Bisheshat Skuler Mashtaramashaira Jodi Chhatrachhatrider Janya Riding Borde AE Patrikatir Printa Out Pradarshan Curren Tahle Amader Pracheshta Anekangshe Sarthak Habe Jara Bigyan Aare Lekhagulir Niymit Pathak Tara Arekbar Pare Nin Lekhagulo Imeile Matamat Janate Bhulben Na Bharter Shikshak Dibse Prakashit Pratham Sankhyay Rail Kichhu Atyashcharjya Bishyer Katha – Jeman Momachhir Abishwasya Nach Brishtibheja Manakeman Kara Sonda Gandher Baigyanik Karan Alo Diye Padarthake Thanda Karar Rahasya Gachheder Jagate Hinse Maramarir Kahini Ityadi Sei Sathe Thakchhe Kichhu Itihas Bigyaner Khabar Dhandha Ityadi
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


বাংলায় বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণের পত্রিকা ‘বিজ্ঞান’ তার পথচলার প্রথম দেড় বছর পূর্ণ করল। মাত্র আঠারো মাস হয়তো কোন পত্রিকার সাবালক হওয়ার পক্ষ্যে যথেষ্ঠ নয়। কিন্তু তাও একটু একটু করে আমরা এগিয়েছি বেশ অনেকটাই। সে কাজ সম্ভব হত না এত উৎসাহী গবেষক-লেখক, স্বেচ্ছাসেবী এবং সর্বোপরি পাঠকদের সাথে না পেলে। সমাজের উন্নতিতে বিজ্ঞানমনস্কতার প্রয়োজন বিতর্কের অতীত। তার জন্য দরকার সেই সমাজের নিজের ভাষায় বিজ্ঞান আলোচনার পরিবেশ। বিজ্ঞান বিষয়ক বোঝার চেষ্টা করে। সুবিধের খাতিরে গবেষণার কাজ আমরা ইংরাজী ভাষায় প্রকাশ করি, কারণ আন্তর্জাতিক স্তরে বিজ্ঞানীদের মধ্যে যোগাযোগ বজায় রাখতে এর বিকল্প এখনো নেই। কিন্তু সেই গবেষণার কথা আমরা কোন স্কুলে পড়া ছাত্রছাত্রীকে তার মাতৃভাষায় বোঝাতে পারব না কেন? আধুনিক বিজ্ঞানের জয়যাত্রা আর সমস্যার কথা না জানলে ছাত্রছাত্রীদের কাছে বিজ্ঞান বিষয়ক পাঠ্যপুস্তকের বোঝা হয়ে দাঁড়াবে।
Romanized Version
বাংলায় বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণের পত্রিকা ‘বিজ্ঞান’ তার পথচলার প্রথম দেড় বছর পূর্ণ করল। মাত্র আঠারো মাস হয়তো কোন পত্রিকার সাবালক হওয়ার পক্ষ্যে যথেষ্ঠ নয়। কিন্তু তাও একটু একটু করে আমরা এগিয়েছি বেশ অনেকটাই। সে কাজ সম্ভব হত না এত উৎসাহী গবেষক-লেখক, স্বেচ্ছাসেবী এবং সর্বোপরি পাঠকদের সাথে না পেলে। সমাজের উন্নতিতে বিজ্ঞানমনস্কতার প্রয়োজন বিতর্কের অতীত। তার জন্য দরকার সেই সমাজের নিজের ভাষায় বিজ্ঞান আলোচনার পরিবেশ। বিজ্ঞান বিষয়ক বোঝার চেষ্টা করে। সুবিধের খাতিরে গবেষণার কাজ আমরা ইংরাজী ভাষায় প্রকাশ করি, কারণ আন্তর্জাতিক স্তরে বিজ্ঞানীদের মধ্যে যোগাযোগ বজায় রাখতে এর বিকল্প এখনো নেই। কিন্তু সেই গবেষণার কথা আমরা কোন স্কুলে পড়া ছাত্রছাত্রীকে তার মাতৃভাষায় বোঝাতে পারব না কেন? আধুনিক বিজ্ঞানের জয়যাত্রা আর সমস্যার কথা না জানলে ছাত্রছাত্রীদের কাছে বিজ্ঞান বিষয়ক পাঠ্যপুস্তকের বোঝা হয়ে দাঁড়াবে। Banglay Bigyan Janapriyakaraner Patrika ‘bigyano Taur Pathachalar Pratham Ded Bachhar Purna Karal Maatr Atharo Massa Hayato Koun Patrikar Sabalak Hwar Pakshye Jatheshtha Noy Kintu Tao Ekatu Ekatu Kare Amara Egiyechhi Bash Anektai Say Kaj Sambhab Hato Na Et Utsahi Gabeshak Lekhak Swechchhasebi Evan Sarbopari Pathakader Sathe Na Pele Samajer Unnatite Bigyanamanaskatar Prayojan Bitarker Ateet Taur Janya Darakar Sei Samajer Nizar Bhashay Bigyan Alochnar Paribesh Bigyan Bishayak Bojhar Cheshta Kare Subidher Khatire Gabeshnar Kaj Amara Ingraji Bhashay Prakash Kari Karan Antarjatik Stare Bigyanider Madhye Jogajog Bajay Rakhte Aare Vikalp Ekhano Nei Kintu Sei Gabeshnar Katha Amara Koun Skule Para Chhatrachhatrike Taur Matribhashay Bojhate Parab Na Can Adhunik Bigyaner Jayajatra Are Samasyar Katha Na Janle Chhatrachhatrider Kachhe Bigyan Bishayak Pathyapustaker Bojha Huye Danrabe
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Bigyan Bishayak Patrika,Science Magazine,


vokalandroid