বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সম্পর্ক লেখ। ...

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি গভীরভাবে সম্পর্কিত। এ সম্পর্ক আগে এত গভীর ছিল না। প্রাচীনকালে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির যাত্রা শুরু হয় ভিন্ন দুই লক্ষ্যে। বিজ্ঞানের ভিত্তি ছিল অনুসন্ধিৎসা । প্রকৃতির নানা বস্তু ও নানা ঘটনার মধ্যে বৈশিষ্ট্য জানা। নানা ঘটনার মধ্যে কারণ উদ্ভাবন ও বিভিন্ন ঘটনার মধ্যে সম্পর্ক অনুসন্ধান। প্রকৃতি ও বিশ্বজগৎ সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন। এজন্য অভিজ্ঞতা অর্জন, নানা ধারণা সৃষ্টি, যুক্তি প্রয়োগ, পর্যবেক্ষণ ও নানা পরীক্ষা পরিচালনা করেছেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু সরাসরি বাস্তব সমস্যার সমাধান ও পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ বিজ্ঞানিদের লক্ষ্য ছিল না। অন্যদিকে প্রযুক্তি ছিল হাতিয়ার নির্মাণ ও বিভিন্ন কলাকৌশল উদ্ভাবন করে বাস্তব সমস্যার সমাধান করা। মূল লক্ষ্য ছিল পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ। প্রথম দিকে মানুষ যেসব যন্ত্র ও হাতিয়ার নির্মাণ করছে তা ছিল অন্ধ পরীক্ষা নিরীক্ষার ফলাফল। হঠাৎ করে কখনো কখনো তারা একটি কৌশল পেয়ে গেছেন। কোণো পূর্ব পরিকল্পনা নিয়ে উদ্ভাবন সম্ভব ছিল না। দীর্ঘ সময় বিজ্ঞানের অগ্রগতির ফলে প্রকৃতির নিয়ম গুলো গভীরতর রূপে জানতে পারেন বিজ্ঞানীরা। এই সময় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সম্পর্ক গভীর হয়। খেয়াল কর, বিজ্ঞানের কাজ হল প্রকৃতির নিয়ম আবিষ্কার করা। কারন প্রযুক্তি কাজ করে প্রকৃতির এই নিয়ম অনুসারে , তাই সচেতন ভাবে প্রযুক্তি উদ্ভাবন করতে হলে বিজ্ঞানের নিয়ম মানতে হবে। একজন বিজ্ঞানী ও প্রযুক্তিবিদ আসলে ভিন্ন লক্ষ্যে কাজ করেন। একজন প্রকৃতির নিয়ম আবিষ্কার করেন। অন্যজন ঐ নিয়ম কাজে লাগিয়ে যন্ত্র উদ্ভাবন করেন ও বাস্তব সমস্যার সমাধান করেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি (Science and Technology) একটি সমৃদ্ধ সংস্কৃতির লালনভূমি হিসেবে বাংলাদেশ অতি প্রাচীনকাল থেকেই সুপরিচিত। মৌসুমি জলবায়ু আর উর্বর ..... বাংলাদেশে অদ্যাবধি বিজ্ঞাপন শিল্পের যে প্রবৃদ্ধি ঘটেছে তার সঙ্গে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও জনগণের ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধির একটি সম্পর্ক রয়েছে।
Romanized Version
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি গভীরভাবে সম্পর্কিত। এ সম্পর্ক আগে এত গভীর ছিল না। প্রাচীনকালে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির যাত্রা শুরু হয় ভিন্ন দুই লক্ষ্যে। বিজ্ঞানের ভিত্তি ছিল অনুসন্ধিৎসা । প্রকৃতির নানা বস্তু ও নানা ঘটনার মধ্যে বৈশিষ্ট্য জানা। নানা ঘটনার মধ্যে কারণ উদ্ভাবন ও বিভিন্ন ঘটনার মধ্যে সম্পর্ক অনুসন্ধান। প্রকৃতি ও বিশ্বজগৎ সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন। এজন্য অভিজ্ঞতা অর্জন, নানা ধারণা সৃষ্টি, যুক্তি প্রয়োগ, পর্যবেক্ষণ ও নানা পরীক্ষা পরিচালনা করেছেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু সরাসরি বাস্তব সমস্যার সমাধান ও পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ বিজ্ঞানিদের লক্ষ্য ছিল না। অন্যদিকে প্রযুক্তি ছিল হাতিয়ার নির্মাণ ও বিভিন্ন কলাকৌশল উদ্ভাবন করে বাস্তব সমস্যার সমাধান করা। মূল লক্ষ্য ছিল পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ। প্রথম দিকে মানুষ যেসব যন্ত্র ও হাতিয়ার নির্মাণ করছে তা ছিল অন্ধ পরীক্ষা নিরীক্ষার ফলাফল। হঠাৎ করে কখনো কখনো তারা একটি কৌশল পেয়ে গেছেন। কোণো পূর্ব পরিকল্পনা নিয়ে উদ্ভাবন সম্ভব ছিল না। দীর্ঘ সময় বিজ্ঞানের অগ্রগতির ফলে প্রকৃতির নিয়ম গুলো গভীরতর রূপে জানতে পারেন বিজ্ঞানীরা। এই সময় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সম্পর্ক গভীর হয়। খেয়াল কর, বিজ্ঞানের কাজ হল প্রকৃতির নিয়ম আবিষ্কার করা। কারন প্রযুক্তি কাজ করে প্রকৃতির এই নিয়ম অনুসারে , তাই সচেতন ভাবে প্রযুক্তি উদ্ভাবন করতে হলে বিজ্ঞানের নিয়ম মানতে হবে। একজন বিজ্ঞানী ও প্রযুক্তিবিদ আসলে ভিন্ন লক্ষ্যে কাজ করেন। একজন প্রকৃতির নিয়ম আবিষ্কার করেন। অন্যজন ঐ নিয়ম কাজে লাগিয়ে যন্ত্র উদ্ভাবন করেন ও বাস্তব সমস্যার সমাধান করেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি (Science and Technology) একটি সমৃদ্ধ সংস্কৃতির লালনভূমি হিসেবে বাংলাদেশ অতি প্রাচীনকাল থেকেই সুপরিচিত। মৌসুমি জলবায়ু আর উর্বর ..... বাংলাদেশে অদ্যাবধি বিজ্ঞাপন শিল্পের যে প্রবৃদ্ধি ঘটেছে তার সঙ্গে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও জনগণের ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধির একটি সম্পর্ক রয়েছে। Bigyan O Prajukti Gabhirbhabe Samparkit A Sampark Age Et Gabhir Chhil Na Prachinkale Bigyan O Prajuktir Jatra Shuru Hya Bhinna Dui Lakshye Bigyaner Bhitti Chhil Anusandhitsa Prakritir Nana Bastu O Nana Ghatanar Madhye Baishishtya Jaana Nana Ghatanar Madhye Karan Udbhaban O Bibhinna Ghatanar Madhye Sampark Anusandhan Prakriti O Bishwajagt Samparke Gyan Arjan Ejanya Abhigyata Arjan Nana Dharna Srishti Jukti Prayog Parjabekshan O Nana Pariksha Parichalna Karechhen Bigyanira Kintu Sarasari Bastab Samasyar Samadhan O Paribesh Niyantran Bigyanider Lakshya Chhil Na Anyadike Prajukti Chhil Hatiyar Nirman O Bibhinna Kalakaushal Udbhaban Kare Bastab Samasyar Samadhan Kara Mul Lakshya Chhil Paribesh Niyantran Pratham Dike Manus Jesab Jantra O Hatiyar Nirman Karachhe Ta Chhil Unde Pariksha Nirikshar Falafal Hathat Kare Kakhano Kakhano Tara Ekati Kaushal Peye Gechhen Kono Purba Parikalpana Niye Udbhaban Sambhab Chhil Na Dirgh Camay Bigyaner Agragatir Fale Prakritir Niyam Gulo Gabhiratar Rupe Jante Paren Bigyanira AE Camay Bigyan O Prajuktir Sampark Gabhir Hya Kheyal Cor Bigyaner Kaj Hall Prakritir Niyam Abishkar Kara Curran Prajukti Kaj Kare Prakritir AE Niyam Anusare , Tai Sachetan Bhabe Prajukti Udbhaban Karate Hale Bigyaner Niyam Mante Habe Ekajan Bigyani O Prajuktibid Ashley Bhinna Lakshye Kaj Curren Ekajan Prakritir Niyam Abishkar Curren Anyajan Ae Niyam Kaje Lagiye Jantra Udbhaban Curren O Bastab Samasyar Samadhan Curren Bigyan O Prajukti (Science And Technology) Ekati Samriddha Sanskritir Lalanabhumi Hisebe Bangladesh Atti Prachinkal Thekei Suprichit Mausumi Jalabayu Are Urbar ..... Bangladeshe Adyabadhi Bigyapan Shilper Je Prabriddhi Ghatechhe Taur Sange Desher Arthanaitik Prabriddhi O Janaganer Krayakshamata Briddhir Ekati Sampark Rayechhe
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি গভীরভাবে সম্পর্কিত। এ সম্পর্ক আগে এত গভীর ছিল না। প্রাচীনকালে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির যাত্রা শুরু হয় ভিন্ন দুই লক্ষ্যে। বিজ্ঞানের ভিত্তি ছিল অনুসন্ধিৎসা । প্রকৃতির নানা বস্তু ও নানা ঘটনার মধ্যে বৈশিষ্ট্য জানা। নানা ঘটনার মধ্যে কারণ উদ্ভাবন ও বিভিন্ন ঘটনার মধ্যে সম্পর্ক অনুসন্ধান। প্রকৃতি ও বিশ্বজগৎ সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন। এজন্য অভিজ্ঞতা অর্জন, নানা ধারণা সৃষ্টি, যুক্তি প্রয়োগ, পর্যবেক্ষণ ও নানা পরীক্ষা পরিচালনা করেছেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু সরাসরি বাস্তব সমস্যার সমাধান ও পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ বিজ্ঞানিদের লক্ষ্য ছিল না। অন্যদিকে প্রযুক্তি ছিল হাতিয়ার নির্মাণ ও বিভিন্ন কলাকৌশল উদ্ভাবন করে বাস্তব সমস্যার সমাধান করা। মূল লক্ষ্য ছিল পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ। প্রথম দিকে মানুষ যেসব যন্ত্র ও হাতিয়ার নির্মাণ করছে তা ছিল অন্ধ পরীক্ষা নিরীক্ষার ফলাফল। হঠাৎ করে কখনো কখনো তারা একটি কৌশল পেয়ে গেছেন। কোণো পূর্ব পরিকল্পনা নিয়ে উদ্ভাবন সম্ভব ছিল না।
Romanized Version
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি গভীরভাবে সম্পর্কিত। এ সম্পর্ক আগে এত গভীর ছিল না। প্রাচীনকালে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির যাত্রা শুরু হয় ভিন্ন দুই লক্ষ্যে। বিজ্ঞানের ভিত্তি ছিল অনুসন্ধিৎসা । প্রকৃতির নানা বস্তু ও নানা ঘটনার মধ্যে বৈশিষ্ট্য জানা। নানা ঘটনার মধ্যে কারণ উদ্ভাবন ও বিভিন্ন ঘটনার মধ্যে সম্পর্ক অনুসন্ধান। প্রকৃতি ও বিশ্বজগৎ সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন। এজন্য অভিজ্ঞতা অর্জন, নানা ধারণা সৃষ্টি, যুক্তি প্রয়োগ, পর্যবেক্ষণ ও নানা পরীক্ষা পরিচালনা করেছেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু সরাসরি বাস্তব সমস্যার সমাধান ও পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ বিজ্ঞানিদের লক্ষ্য ছিল না। অন্যদিকে প্রযুক্তি ছিল হাতিয়ার নির্মাণ ও বিভিন্ন কলাকৌশল উদ্ভাবন করে বাস্তব সমস্যার সমাধান করা। মূল লক্ষ্য ছিল পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ। প্রথম দিকে মানুষ যেসব যন্ত্র ও হাতিয়ার নির্মাণ করছে তা ছিল অন্ধ পরীক্ষা নিরীক্ষার ফলাফল। হঠাৎ করে কখনো কখনো তারা একটি কৌশল পেয়ে গেছেন। কোণো পূর্ব পরিকল্পনা নিয়ে উদ্ভাবন সম্ভব ছিল না।Bigyan O Prajukti Gabhirbhabe Samparkit A Sampark Age Et Gabhir Chhil Na Prachinkale Bigyan O Prajuktir Jatra Shuru Hay Bhinna Dui Lakshye Bigyaner Bhitti Chhil Anusandhitsa Prakritir Nana Bastu O Nana Ghatanar Madhye Baishishtya Jaana Nana Ghatanar Madhye Karan Udbhaban O Bibhinna Ghatanar Madhye Sampark Anusandhan Prakriti O Bishwajagt Samparke Gyan Arjan Ejanya Abhigyata Arjan Nana Dharna Srishti Jukti Prayog Parjabekshan O Nana Pariksha Parichalna Karechhen Bigyanira Kintu Sarasari Bastab Samasyar Samadhan O Paribesh Niyantran Bigyanider Lakshya Chhil Na Anyadike Prajukti Chhil Hatiyar Nirman O Bibhinna Kalakaushal Udbhaban Kare Bastab Samasyar Samadhan Kara Mul Lakshya Chhil Paribesh Niyantran Pratham Dike Manus Jesab Jantra O Hatiyar Nirman Karachhe Ta Chhil Unde Pariksha Nirikshar Falafal Hathat Kare Kakhano Kakhano Tara Ekati Kaushal Peye Gechhen Kono Purba Parikalpana Niye Udbhaban Sambhab Chhil Na
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Bigyan O Prajuktir Sampark Lekh,Write About The Relationship Of Science And Technology.,


vokalandroid