বিচার অবিচার সম্পর্কে লেখো ? ...

বিচার/অবিচার আইন দেখে না সে কোন ধর্মের লোক, আইন দেখে না তার বংশ পরিচয় কি, আইন দেখে না সমাজে তার প্রভাব কতটুকু। আইন সবার কাছেই সমান। যে অপরাধ করবে তাকে আইন অনুযায়ী শাস্তি পেতে হবে। এখানে কোন অবকাশ নেই। যারা এখানে অপরাধীর পক্ষে থাকবে তারাও তার সাথে সমান দোষী। আইন চাই প্রমাণ। প্রমাণের উপর ভিত্তি করেই অপরাধীর শাস্তি হবে। যদি প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও তার বিচার না হয় অথবা বানোয়াট প্রমাণের উপর ভিত্তি করে কোন নির্দোষের বিচার হয়, তাহলে তা হোল অবিচার। আর যেখানে অবিচার থাকে সেখানে আইনের প্রতিষ্ঠা হয়েছে বা হবে এটা হোল সবচেয়ে বড় মিথ্যাচার। আইনকে প্রতিষ্ঠা করতে হলে ন্যায় বিচার থাকা আবশ্যক। অপরাধীর অপরাধ প্রমাণ হওয়া সত্ত্বেও যারা তাকে বাঁচাতে চায় এবং যারা তার অপরাধকে সমর্থন জানায়, তাদের মাঝে আর ঐ অপরাধীর মাঝে কোন পার্থক্য নেই। বরং তারা ঐ অপরাধীর চেয়েও বড় অপরাধী। তারা সেই অপরাধের উস্কানি দাতা এবং সেই অপরাধকে আইনের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠা করতে চায়। তারা চায় সেই অপরাধ জনগণের মাঝে ছড়িয়ে পড়ুক। এটা কোন দেশের জন্য মঙ্গলজনক বিষয় নয়। এদিক দিয়ে দেখতে গেলে তারা দেশের বিরুদ্ধেই কাজ করতেছে। যারা দেশের বিরুদ্ধে কাজ করে, দেশের অকল্যাণ যাদের কাম্য তাদের যদি দেশ দ্রোহী বলি, আমি মনে করি আমার কোন অপরাধ এখানে হবে না। তাদের শাস্তি দাবি করা আমার মত প্রতিটি দেশবাসীর অধিকার। ন্যায় বিচারকে টিকিয়ে রাখতে হলে তাদের শাস্তি হওয়া আবশ্যক বিষয় এবং বর্তমানের একটি গুরুত্বপূর্ণ দাবি এটি। অন্যায়, অন্যায়কারী ও অন্যায়কে সমর্থনকারী এদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালে এবং এদেরকে বিচারের আওতায় আনা হলেই ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা হবে।
Romanized Version
বিচার/অবিচার আইন দেখে না সে কোন ধর্মের লোক, আইন দেখে না তার বংশ পরিচয় কি, আইন দেখে না সমাজে তার প্রভাব কতটুকু। আইন সবার কাছেই সমান। যে অপরাধ করবে তাকে আইন অনুযায়ী শাস্তি পেতে হবে। এখানে কোন অবকাশ নেই। যারা এখানে অপরাধীর পক্ষে থাকবে তারাও তার সাথে সমান দোষী। আইন চাই প্রমাণ। প্রমাণের উপর ভিত্তি করেই অপরাধীর শাস্তি হবে। যদি প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও তার বিচার না হয় অথবা বানোয়াট প্রমাণের উপর ভিত্তি করে কোন নির্দোষের বিচার হয়, তাহলে তা হোল অবিচার। আর যেখানে অবিচার থাকে সেখানে আইনের প্রতিষ্ঠা হয়েছে বা হবে এটা হোল সবচেয়ে বড় মিথ্যাচার। আইনকে প্রতিষ্ঠা করতে হলে ন্যায় বিচার থাকা আবশ্যক। অপরাধীর অপরাধ প্রমাণ হওয়া সত্ত্বেও যারা তাকে বাঁচাতে চায় এবং যারা তার অপরাধকে সমর্থন জানায়, তাদের মাঝে আর ঐ অপরাধীর মাঝে কোন পার্থক্য নেই। বরং তারা ঐ অপরাধীর চেয়েও বড় অপরাধী। তারা সেই অপরাধের উস্কানি দাতা এবং সেই অপরাধকে আইনের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠা করতে চায়। তারা চায় সেই অপরাধ জনগণের মাঝে ছড়িয়ে পড়ুক। এটা কোন দেশের জন্য মঙ্গলজনক বিষয় নয়। এদিক দিয়ে দেখতে গেলে তারা দেশের বিরুদ্ধেই কাজ করতেছে। যারা দেশের বিরুদ্ধে কাজ করে, দেশের অকল্যাণ যাদের কাম্য তাদের যদি দেশ দ্রোহী বলি, আমি মনে করি আমার কোন অপরাধ এখানে হবে না। তাদের শাস্তি দাবি করা আমার মত প্রতিটি দেশবাসীর অধিকার। ন্যায় বিচারকে টিকিয়ে রাখতে হলে তাদের শাস্তি হওয়া আবশ্যক বিষয় এবং বর্তমানের একটি গুরুত্বপূর্ণ দাবি এটি। অন্যায়, অন্যায়কারী ও অন্যায়কে সমর্থনকারী এদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালে এবং এদেরকে বিচারের আওতায় আনা হলেই ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা হবে। Bichar Abichar Ain Dekhe Na Say Koun Dharmer Loka Ain Dekhe Na Taur Bangsh Parichay Ki Ain Dekhe Na Samaje Taur Prabhab Katatuku Ain Sawaar Kachhei Saman Je Aparadh Karabe Take Ain Anujayi Shasti Pete Habe Ekhane Koun Avkash Nei Jara Ekhane Aparadhir Pakshe Thakbe Tarao Taur Sathe Saman Doshi Ain Chai Praman Pramaner Upar Bhitti Karei Aparadhir Shasti Habe Jodi Praman Thaka Sattbeo Taur Bichar Na Hya Athaba Banwat Pramaner Upar Bhitti Kare Koun Nirdosher Bichar Hya Tahle Ta Whole Abichar Are Jekhanay Abichar Thake Sekhane Ainer Pratishtha Hayechhe Ba Habe Etah Whole Sabacheye Bar Mithyachar Ainake Pratishtha Karate Hale Nyay Bichar Thaka Aawashyak Aparadhir Aparadh Praman Hwa Sattbeo Jara Take Banchate Say Evan Jara Taur Aparadhke Samarthan Janay Tader Majhe Are Ae Aparadhir Majhe Koun Parthakya Nei Wrong Tara Ae Aparadhir Cheyeo Bar Aparadhi Tara Sei Aparadher Uskani Data Evan Sei Aparadhke Ainer Biruddhe Pratishtha Karate Say Tara Say Sei Aparadh Janaganer Majhe Chhariye Paruk Etah Koun Desher Janya Mangalajanak Vysya Noy Edik Diye Dekhte Gele Tara Desher Biruddhei Kaj Karatechhe Jara Desher Biruddhe Kaj Kare Desher Akalyan Jader Kamya Tader Jodi Desh Drohi Bali Aami Money Kari Amar Koun Aparadh Ekhane Habe Na Tader Shasti Dabi Kara Amar Matt Pratiti Deshbasir Adhikar Nyay Bicharake Tikiye Rakhte Hale Tader Shasti Hwa Aawashyak Vysya Evan Bartamaner Ekati Gurutbapurna Dabi AT Anyay Anyayakari O Anyayake Samarthanakari Eder Biruddhe Rukhe Danrale Evan Ederake Bicharer Aotay Ana Halei Nyay Bichar Pratishtha Habe
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


বিচার অবিচার মো. আয়াতুল বোরহান : (গতকালের পর) বিচার বিভাগের স্বাধীনতা হরণের মূল উদ্দেশ্যই হলো প্রতিপক্ষ দমন করা ও নির্মূল করা। অবিচার ডাকাতরা রামদা দিয়ে মানুষ হত্যা করে, আর এরা আইন আদালতকে ডাকাতের রাম-দা বানিয়ে তা দিয়ে প্রতিপক্ষকে দমন করে ও নির্মূল করে। অবিচার সম্প্রতি বাংলাদেশে তথাকথিত যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করার জন্য যে আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধী ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছে তা (Neither International war crimes tribunal nor Domestic tribunal) না আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনাল আর না তা দেশীয় ট্রাইব্যুনাল। আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল গঠিত হয় হেগ কনভেনশনের বিধান মোতাবেক। হেগ কনভেনশন মোতাবেক আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল যেভাবে গঠিত হয়, সেখানে (১) আন্তর্জাতিক বিচারকগণের একটি প্যানেল থাকে; (২) আন্তর্জাতিক তদন্তকারীদের একটি প্যানেল থাকে; (৩) Prosecution I Defense Lawyer গণের একটি আন্তর্জাতিক প্যানেল থাকে। বাংলাদেশ স্বাধীনতার পর হেগ কনভেনশনের বিধান মেনেই প্রথমে ২২৫ জন পরে আরো অধিকতর তদন্ত করে ১৯৫ জন পাকিস্তানী সামরিক কর্মকর্তাকে যুদ্ধাপরাধী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। পরবর্তী সময়ে ১৯৭৪ সালে ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ এই ত্রিদেশীয় চুক্তির মাধ্যমে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার নিষ্পত্তি হয়। অতঃপর নিষ্পত্তিকৃত বিষয় নিয়ে পুনরায় বিচার করা যায় না এটাই সর্বকালে সর্বদেশে স্বতঃসিদ্ধ আইন। কিন্তু অবৈধভাবে ক্ষমতায় আসা ও ক্ষমতা দখলকারী শক্তি কখনো আইনের অধীন হয় না বরং আইনকেই তার অধীন করে নেয়। এরাই মানুষকে অপমানিত, লাঞ্ছিত করে এবং মানবতাকে পদদলিত করে। সম্প্রতি বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধী ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে যাদের বিরুদ্ধে ফাঁসির রায় দেওয়া হয় এবং ফাঁসি কার্যকর করা হয় তারা কেউ ১৯৭৩ সালে গঠিত যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের আইনে দোষী সাব্যস্ত হয়নি কিংবা কোলাবরেটর আইনেও তারা দোষী সাব্যস্ত হয়নি। এমনকি তাদের বিরুদ্ধে অপরাধ সংক্রান্ত কোন জিডিও ছিল না। বর্তমান ট্রাইব্যুনালে একজনের অপরাধ অপরজনের উপর চাপিয়ে ফাঁসির রায় ঘোষণা করা হয়। যেমনÑ আব্দুল কাদের মোল্লার কথাই ধরা যাক। আব্দুল কাদের মোল্লার উপর দোষ চাপানো হয় মিরপুরের বিহারী রাজাকার কসাই কাদেরের। স্বাধীনতা যুদ্ধের শেষ পর্যায়ে মিরপুরের বিহারী কসাই কাদের মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে মারা যায়। ফরিদপুরের মোঃ আব্দুল কাদের মোল্লা ও মিরপুরের বিহারী কসাই কাদেরের মধ্যে পার্থক্য নিম্নরূপ:
Romanized Version
বিচার অবিচার মো. আয়াতুল বোরহান : (গতকালের পর) বিচার বিভাগের স্বাধীনতা হরণের মূল উদ্দেশ্যই হলো প্রতিপক্ষ দমন করা ও নির্মূল করা। অবিচার ডাকাতরা রামদা দিয়ে মানুষ হত্যা করে, আর এরা আইন আদালতকে ডাকাতের রাম-দা বানিয়ে তা দিয়ে প্রতিপক্ষকে দমন করে ও নির্মূল করে। অবিচার সম্প্রতি বাংলাদেশে তথাকথিত যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করার জন্য যে আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধী ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছে তা (Neither International war crimes tribunal nor Domestic tribunal) না আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনাল আর না তা দেশীয় ট্রাইব্যুনাল। আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল গঠিত হয় হেগ কনভেনশনের বিধান মোতাবেক। হেগ কনভেনশন মোতাবেক আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল যেভাবে গঠিত হয়, সেখানে (১) আন্তর্জাতিক বিচারকগণের একটি প্যানেল থাকে; (২) আন্তর্জাতিক তদন্তকারীদের একটি প্যানেল থাকে; (৩) Prosecution I Defense Lawyer গণের একটি আন্তর্জাতিক প্যানেল থাকে। বাংলাদেশ স্বাধীনতার পর হেগ কনভেনশনের বিধান মেনেই প্রথমে ২২৫ জন পরে আরো অধিকতর তদন্ত করে ১৯৫ জন পাকিস্তানী সামরিক কর্মকর্তাকে যুদ্ধাপরাধী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। পরবর্তী সময়ে ১৯৭৪ সালে ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ এই ত্রিদেশীয় চুক্তির মাধ্যমে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার নিষ্পত্তি হয়। অতঃপর নিষ্পত্তিকৃত বিষয় নিয়ে পুনরায় বিচার করা যায় না এটাই সর্বকালে সর্বদেশে স্বতঃসিদ্ধ আইন। কিন্তু অবৈধভাবে ক্ষমতায় আসা ও ক্ষমতা দখলকারী শক্তি কখনো আইনের অধীন হয় না বরং আইনকেই তার অধীন করে নেয়। এরাই মানুষকে অপমানিত, লাঞ্ছিত করে এবং মানবতাকে পদদলিত করে। সম্প্রতি বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধী ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে যাদের বিরুদ্ধে ফাঁসির রায় দেওয়া হয় এবং ফাঁসি কার্যকর করা হয় তারা কেউ ১৯৭৩ সালে গঠিত যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের আইনে দোষী সাব্যস্ত হয়নি কিংবা কোলাবরেটর আইনেও তারা দোষী সাব্যস্ত হয়নি। এমনকি তাদের বিরুদ্ধে অপরাধ সংক্রান্ত কোন জিডিও ছিল না। বর্তমান ট্রাইব্যুনালে একজনের অপরাধ অপরজনের উপর চাপিয়ে ফাঁসির রায় ঘোষণা করা হয়। যেমনÑ আব্দুল কাদের মোল্লার কথাই ধরা যাক। আব্দুল কাদের মোল্লার উপর দোষ চাপানো হয় মিরপুরের বিহারী রাজাকার কসাই কাদেরের। স্বাধীনতা যুদ্ধের শেষ পর্যায়ে মিরপুরের বিহারী কসাই কাদের মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে মারা যায়। ফরিদপুরের মোঃ আব্দুল কাদের মোল্লা ও মিরপুরের বিহারী কসাই কাদেরের মধ্যে পার্থক্য নিম্নরূপ:Bichar Abichar Mo Ayatul Borhan : Gatakaler Par Bichar Bibhager Swadhinata Haraner Mul Uddeshyai Holo Pratipaksh Daman Kara O Nirmul Kara Abichar Dakatara Ramda Diye Manus Hatya Kare Are Era Ain Adalatake Dakater RAM The Baniye Ta Diye Pratipakshake Daman Kare O Nirmul Kare Abichar Samprati Bangladeshe Tathakthit Juddhaparadhider Bichar Karar Janya Je Antarjatik Juddhaparadhi Traibyunal Gathan Kara Hayechhe Ta (Neither International War Crimes Tribunal Nor Domestic Tribunal) Na Antarjatik Traibyunal Are Na Ta Deshiya Traibyunal Antarjatik Juddhaparadh Traibyunal Gathit Hay Heig Kanabhenashaner Bidhan Motabek Heig Convention Motabek Antarjatik Juddhaparadh Traibyunal Jebhabe Gathit Hay Sekhane 1 Antarjatik Bicharakaganer Ekati Panel Thake 2 Antarjatik Tadantakarider Ekati Panel Thake 3 Prosecution I Defense Lawyer Goner Ekati Antarjatik Panel Thake Bangladesh Swadhintar Par Heig Kanabhenashaner Bidhan Menei Prathame 225 John Pare Aro Adhikatar Tadanta Kare 195 John Pakistani Samrik Karmakartake Juddhaparadhi Hisebe Chihnit Kara Hay Parabarti Some 1974 Sale Bharat Pakistan Bangladesh AE Trideshiya Chuktir Madhyame Juddhaparadhider Bichar Nishpatti Hay Atahpar Nishpattikrit Vysya Niye Punray Bichar Kara Jay Na Etai Sarbakale Sarbadeshe Swatahsiddha Ain Kintu Abaidhbhabe Xamatay Asa O Xamata Dakhalakari Shakti Kakhano Ainer Adhin Hay Na Wrong Ainakei Taur Adhin Kare Ney Erai Manushake Apamanit Lanchhit Kare Evan Manabatake Padadalit Kare Samprati Bangladeshe Antarjatik Juddhaparadhi Traibyunaler Madhyame Jader Biruddhe Fansir Rai Dewa Hay Evan Fansi Karjakar Kara Hay Tara Keu 1973 Sale Gathit Juddhaparadh Traibyunaler Aine Doshi Sabyasta Hayani Kingba Kolabretar Aineo Tara Doshi Sabyasta Hayani Emanaki Tader Biruddhe Aparadh Sankranta Koun GDO Chhil Na Bartaman Traibyunale Ekajaner Aparadh Aparajaner Upar Chapiye Fansir Rai Ghoshna Kara Hay JemanÑ Abdul Kader Mollar Kathai Dhara Jak Abdul Kader Mollar Upar Dos Chapano Hay Mirpurer Bihari Rajakar Kasai Kaderer Swadhinata Juddher Sesh Parjaye Mirpurer Bihari Kasai Kader Muktijoddhader Hate Mara Jay Faridpurer Moh Abdul Kader Molla O Mirpurer Bihari Kasai Kaderer Madhye Parthakya Nimnarup
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Bichar Abichar Samparke Lekho ?,Write About Injustice Injustice?,


vokalandroid