বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড এর প্রস্তুতি ...

বিজ্ঞান এর অলিম্পিয়াডগুলোর সঙ্গে জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডের একটু পার্থক্য আছে। আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াড সাধারণত হয় প্রাক-বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিযোগিতা, অংশ নিয়ে পারে উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা। কিন্তু আইজেএসও অনুষ্ঠিত হয় অনুর্ধ্ব ১৬ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের নিয়ে। বিজ্ঞান এবারে তাই অংশ নিতে পারবে ১ জানুয়ারি ২০০৩ এর পর জন্ম নেওয়া যে কোন শিক্ষার্থী। বাংলাদেশ বিজ্ঞান এর জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড বা যে কোন অলিম্পিয়াডে ভালো করার জন্য তোমাকে প্রথমেই বুঝতে হবে অনুশীলনী আর সমস্যার মধ্যে পার্থক্য। তোমার স্কুলের একটা পরীক্ষার চাইতে অলিম্পিয়াডের মূল পার্থক্য হলো, এখানে কখনও একটা অনুশীলনী আসবে না, আসবে সমস্যা। এখন প্রশ্ন হলো, অনুশীলনী মানে কী বুঝাচ্ছে? আসলে অনুশীলনী আর সমস্যার মধ্যে একটা মৌলিক পার্থক্য আছে। অনুশীলনীতে থাকে এমন প্রশ্ন যার উত্তর বের করার জন্য নির্ধারিত একটি পদ্ধতি আছে। একটা অনুশীলনীর উদহারণ দেখা যাক, সালফিউরিক এসিড (H2SO4)-এর আণবিক ভর কত? এই প্রশ্নটি দেখো। কীভাবে সমাধান করতে হবে তুমি নিশ্চয় ক্লাসে শিখেছো। প্রথমে প্রত্যেকটা পরমাণুর পারমাণবিক ভরকে উপস্থিত পরমাণুর সংখ্যা দিয়ে গুণ করতে হবে। তারপর গুণফলগুলো যোগ করে পেয়ে যাবে আণবিক ভর। এই সমাধানের পদ্ধতিটা দেখো, বইয়ে ঠিক এই ধাপগুলোর কথাই বলা আছে। ধাপগুলো অনুসরণ করলে খুব সহজেই সমাধানে পৌছা সম্ভব। কিন্তু প্রশ্নটা যদি অনুশীলনী না হয়ে ‘সমস্যা’ হয়, তবে কিন্তু তা সমাধানের কোন নির্ধারিত পদ্ধতি নাই। সমাধানের জন্য যে সূত্র বা তত্ত্ব দরকার তা হয়ত তোমার জানা আছে, কিন্তু সমাধান পদ্ধতি নির্ধারিত নাই। বুদ্ধি দিয়ে তোমাকে বুঝতে হবে কীভাবে তা সমাধান করা যায়। সত্যিকার একটা সমস্যা কেমন হতে পারে একটা উদহারণ দেওয়া যাক। সমস্যাটা রসায়নের,
Romanized Version
বিজ্ঞান এর অলিম্পিয়াডগুলোর সঙ্গে জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডের একটু পার্থক্য আছে। আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াড সাধারণত হয় প্রাক-বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিযোগিতা, অংশ নিয়ে পারে উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা। কিন্তু আইজেএসও অনুষ্ঠিত হয় অনুর্ধ্ব ১৬ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের নিয়ে। বিজ্ঞান এবারে তাই অংশ নিতে পারবে ১ জানুয়ারি ২০০৩ এর পর জন্ম নেওয়া যে কোন শিক্ষার্থী। বাংলাদেশ বিজ্ঞান এর জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াড বা যে কোন অলিম্পিয়াডে ভালো করার জন্য তোমাকে প্রথমেই বুঝতে হবে অনুশীলনী আর সমস্যার মধ্যে পার্থক্য। তোমার স্কুলের একটা পরীক্ষার চাইতে অলিম্পিয়াডের মূল পার্থক্য হলো, এখানে কখনও একটা অনুশীলনী আসবে না, আসবে সমস্যা। এখন প্রশ্ন হলো, অনুশীলনী মানে কী বুঝাচ্ছে? আসলে অনুশীলনী আর সমস্যার মধ্যে একটা মৌলিক পার্থক্য আছে। অনুশীলনীতে থাকে এমন প্রশ্ন যার উত্তর বের করার জন্য নির্ধারিত একটি পদ্ধতি আছে। একটা অনুশীলনীর উদহারণ দেখা যাক, সালফিউরিক এসিড (H2SO4)-এর আণবিক ভর কত? এই প্রশ্নটি দেখো। কীভাবে সমাধান করতে হবে তুমি নিশ্চয় ক্লাসে শিখেছো। প্রথমে প্রত্যেকটা পরমাণুর পারমাণবিক ভরকে উপস্থিত পরমাণুর সংখ্যা দিয়ে গুণ করতে হবে। তারপর গুণফলগুলো যোগ করে পেয়ে যাবে আণবিক ভর। এই সমাধানের পদ্ধতিটা দেখো, বইয়ে ঠিক এই ধাপগুলোর কথাই বলা আছে। ধাপগুলো অনুসরণ করলে খুব সহজেই সমাধানে পৌছা সম্ভব। কিন্তু প্রশ্নটা যদি অনুশীলনী না হয়ে ‘সমস্যা’ হয়, তবে কিন্তু তা সমাধানের কোন নির্ধারিত পদ্ধতি নাই। সমাধানের জন্য যে সূত্র বা তত্ত্ব দরকার তা হয়ত তোমার জানা আছে, কিন্তু সমাধান পদ্ধতি নির্ধারিত নাই। বুদ্ধি দিয়ে তোমাকে বুঝতে হবে কীভাবে তা সমাধান করা যায়। সত্যিকার একটা সমস্যা কেমন হতে পারে একটা উদহারণ দেওয়া যাক। সমস্যাটা রসায়নের,Bigyan Aare Alimpiyadgulor Sange Junior Science Alimpiyader Ekatu Parthakya Ache Antarjatik Alimpiyad Sadharanat Hay Prak Bishwabidyalay Pratijogita Angsh Niye Pare Uchchamadhyamik Parjanta Shiksharthira Kintu IJSO Anushthit Hay Anurdhba 16 Bachhar Bayasi Shiksharthider Niye Bigyan Ebare Tai Angsh Nite Parbe 1 Januyari 2003 Aare Par Janma Newa Je Koun Shiksharthi Bangladesh Bigyan Aare Junior Science Alimpiyad Ba Je Koun Alimpiyade Valu Karar Janya Tomake Prathamei Bujhte Habe Anushilni Are Samasyar Madhye Parthakya Tomar Skuler Ekata Parikshar Chaite Alimpiyader Mul Parthakya Holo Ekhane Kakhanao Ekata Anushilni Asabe Na Asabe Samasya Ekhan Prashna Holo Anushilni Mane Key Bujhachchhe Ashley Anushilni Are Samasyar Madhye Ekata Maulik Parthakya Ache Anushilnite Thake Eman Prashna Jar Uttar Ber Karar Janya Nirdharit Ekati Paddhati Ache Ekata Anushilnir Udaharan Dekha Jak Salfiurik Esid Aare Anabik Bhar Kat AE Prashnati Dekkho Kibhabe Samadhan Karate Habe Tumi Nishchay Klase Shikhechho Prathame Pratyekata Paramanur Parmanbik Bharake Upasthit Paramanur Sankhya Diye Goon Karate Habe Tarapar Gunafalagulo Jog Kare Peye Jabe Anabik Bhar AE Samadhaner Paddhatita Dekkho Baiye Thik AE Dhapgulor Kathai Bala Ache Dhapgulo Anusaran Karale Khub Sahajei Samadhane Pauchha Sambhab Kintu Prashnata Jodi Anushilni Na Huye ‘samasyao Hay Tove Kintu Ta Samadhaner Koun Nirdharit Paddhati Nai Samadhaner Janya Je Sutra Ba Tattva Darakar Ta Hayat Tomar Jaana Ache Kintu Samadhan Paddhati Nirdharit Nai Buddhi Diye Tomake Bujhte Habe Kibhabe Ta Samadhan Kara Jay Satyikar Ekata Samasya Keymon Hate Pare Ekata Udaharan Dewa Jak Samasyata Rasayner
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


আঞ্চলিক অলিম্পিয়াডে প্রশ্ন হবে পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন ও জীববিজ্ঞান থেকে। ১৫ টি সমস্যার সমাধান করার জন্য সময় পাওয়া যাবে ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিট। সমস্যাগুলো এমন হবে যে উত্তর দেওয়া যাবে এক শব্দে। প্রস্তুতি হিসেবে পড়তে হবে ক্লাসের বিজ্ঞান ও গণিত সংশ্লিষ্ট বইগুলো। তবে শর্ত হল পড়তে হবে বুঝে বুঝে। যেমন শুধু সূত্রের প্রমাণ আর সংজ্ঞা পড়ে বিডিজেএসওর সমস্যা সমাধান করা কঠিন হবে। এজন্য মূল ব্যাপারগুলো পড়ে বুঝতে হবে। কোন একটা তত্ত্ব কেন ও কীভাবে কাজ করে সেজন্য ভাবতে হবে, তবেই হবে বিডিজেএসওর প্রস্তুতি। বিডিজেএসও-তে কিন্তু সমস্যাগুলো তোমাদের বইয়ের অনুশীলনীর মত করে আসবে না। আসলে অনুশীলনী আর সমস্যার মধ্যে একটা মৌলিক পার্থক্য আছে। অনুশীলনীতে থাকে এমন প্রশ্ন যার উত্তর বের করার জন্য নির্ধারিত একটি পদ্ধতি আছে। যা অনুসরণ করলে খুব সহজেই সমাধানে পৌছা সম্ভব। কিন্তু ‘সমস্যা’ সমাধানের কোন নির্ধারিত পদ্ধতি নাই। সমাধানের জন্য যে সূত্র তত্ত্ব দরকার তা হয়ত জানা আছে, কিন্তু সমাধান পদ্ধতি নিওর্ধারিত নাই। বুদ্ধি দিয়ে তোমাকে বুঝতে হবে কীভাবে তা সমাধান করা যায়।
Romanized Version
আঞ্চলিক অলিম্পিয়াডে প্রশ্ন হবে পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন ও জীববিজ্ঞান থেকে। ১৫ টি সমস্যার সমাধান করার জন্য সময় পাওয়া যাবে ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিট। সমস্যাগুলো এমন হবে যে উত্তর দেওয়া যাবে এক শব্দে। প্রস্তুতি হিসেবে পড়তে হবে ক্লাসের বিজ্ঞান ও গণিত সংশ্লিষ্ট বইগুলো। তবে শর্ত হল পড়তে হবে বুঝে বুঝে। যেমন শুধু সূত্রের প্রমাণ আর সংজ্ঞা পড়ে বিডিজেএসওর সমস্যা সমাধান করা কঠিন হবে। এজন্য মূল ব্যাপারগুলো পড়ে বুঝতে হবে। কোন একটা তত্ত্ব কেন ও কীভাবে কাজ করে সেজন্য ভাবতে হবে, তবেই হবে বিডিজেএসওর প্রস্তুতি। বিডিজেএসও-তে কিন্তু সমস্যাগুলো তোমাদের বইয়ের অনুশীলনীর মত করে আসবে না। আসলে অনুশীলনী আর সমস্যার মধ্যে একটা মৌলিক পার্থক্য আছে। অনুশীলনীতে থাকে এমন প্রশ্ন যার উত্তর বের করার জন্য নির্ধারিত একটি পদ্ধতি আছে। যা অনুসরণ করলে খুব সহজেই সমাধানে পৌছা সম্ভব। কিন্তু ‘সমস্যা’ সমাধানের কোন নির্ধারিত পদ্ধতি নাই। সমাধানের জন্য যে সূত্র তত্ত্ব দরকার তা হয়ত জানা আছে, কিন্তু সমাধান পদ্ধতি নিওর্ধারিত নাই। বুদ্ধি দিয়ে তোমাকে বুঝতে হবে কীভাবে তা সমাধান করা যায়।Anchalik Alimpiyade Prashna Habe Padarthabigyan Rasayan O Jibbigyan Theke 15 Te Samasyar Samadhan Karar Janya Camay Powa Jabe 1 Ghanta 15 Minute Samasyagulo Eman Habe Je Uttar Dewa Jabe Ec Shabde Prastuti Hisebe Parate Habe Klaser Bigyan O Ganit Sangshlishta Baigulo Tove Sharta Hall Parate Habe Bujhe Bujhe Jeman Shudhu Sutrer Praman Are Sanggya Pare Bidijeesaor Samasya Samadhan Kara Kathin Habe Ejanya Mul Byapargulo Pare Bujhte Habe Koun Ekata Tattva Can O Kibhabe Kaj Kare Sejanya Bhabte Habe Tabei Habe Bidijeesaor Prastuti BDJSO Tye Kintu Samasyagulo Tomader Baiyer Anushilnir Matt Kare Asabe Na Ashley Anushilni Are Samasyar Madhye Ekata Maulik Parthakya Ache Anushilnite Thake Eman Prashna Jar Uttar Ber Karar Janya Nirdharit Ekati Paddhati Ache Ja Anusaran Karale Khub Sahajei Samadhane Pauchha Sambhab Kintu ‘samasyao Samadhaner Koun Nirdharit Paddhati Nai Samadhaner Janya Je Sutra Tattva Darakar Ta Hayat Jaana Ache Kintu Samadhan Paddhati Niordharit Nai Buddhi Diye Tomake Bujhte Habe Kibhabe Ta Samadhan Kara Jay
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Bigyan Alimpiyad Aare Prastuti,Preparation Of The Science Olympiad,


vokalandroid