অসম্পৃক্ততার পরীক্ষা কি? ...

অসম্পৃক্ততার পরীক্ষা :- অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন কাকে বলে বলতে পারবে। অ্যালকিন কাকে বলে বলতে পারবে। অ্যালকিনের পরীক্ষাগার প্রস্তুতি লিখতে পারবে। অ্যালকিনের শিল্পোৎপাদন বিক্রিয়া লিখতে পারবে। অ্যালকিনের অন্যান্য প্রস্তুতির বিক্রিয়া লিখতে পারবে। বিভিন্ন বিকারকের সাথে অ্যালকিনের সংযোজন বিক্রিয়া লিখতে পারবে। বিভিন্ন বিকারকের সাথে অ্যালকিনের সংযোজন বিক্রিয়া লিখতে পারবে। সংযোজন বিক্রিয়ায় মারকনিকভ নিয়ম ব্যাখ্যা ও প্রধান উৎপাদ নির্ণয় করতে পারবে। সংযোজন বিক্রিয়ায় বিপরীত মারকনিকভ নিয়ম ব্যাখ্যা ও প্রধান উৎপাদ নির্ণয় করতে পারবে। অ্যালকিনের ওজোনীকরণ ও জারন বিক্রিয়া লিখতে পারবে। অ্যালকিনে দ্বিবন্ধনের উপস্থিতি নির্ণয় তথা অসম্পৃক্ততার পরীক্ষার বিক্রিয়া লিখতে পারবে। অ্যালকিনে দ্বিবন্ধনের অবস্থান নির্ণয়ের বিক্রিয়া লিখতে পারবে। আগের পর্বে- সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন: অ্যালকেন -এর প্রস্তুতি, ধর্ম বিক্রিয়া ইত্যাদি শিখেছি। আমরা আগেই পড়েছি হাইড্রোকার্বনের মুক্ত কার্বন শিকলে কমপক্ষে একটি কার্বন-কার্বন দ্বিবন্ধন অথবা ত্রিবন্ধন থাকলে তাদেরকে অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন বলে। আর অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন দু শ্রেণীতে ভাগ করা হয়। (ক) অ্যালকিন ও (খ) অ্যালকাইন। কার্বন শিকলে কমপক্ষে একটি কার্বন-কার্বন দ্বিবন্ধন থাকলে তাদেরকে অ্যালকিন এবং ত্রিবন্ধন থাকলে তাদের অ্যালকাইন বলে। তাহলে, যে সব হাইড্রোকার্বনের মুক্ত কার্বন শিকলে একটি মাত্র কার্বন-কার্বন দ্বিবন্ধন থাকে তাদেরকে অ্যালকিন বলে। অ্যালকিনের সাধারণ সংকেত CnH2n। যেমন: ইথিন (C2H4), ২-বিউটিন (CH3-CH=CH-CH3) ইত্যাদি। অবশিষ্ট ২৫ নম্বর ব্যবহারিকে। বিষয়টি মুখস্থনির্ভর নয়, বোঝার বিষয় এবং নিয়মিত চর্চার বিষয়। ভালো করতে হলে প্রথমেই পরিচিত মৌলগুলোর যোজনী, পারমাণবিক সংখ্যা, পারমাণবিক ভর এবং যৌগমূলক সম্পর্কে সঠিক ধারণা থাকতে হবে। যেমন সৃজনশীল প্রশ্নের (গ) নম্বরে যদি বলা হয়—‘A একটি যৌগ (সোডিয়াম কার্বনেট), এর শতকরা সংযুক্তি নির্ণয় করো ’এবং (ঘ) নম্বরে বলা হয়—‘A যৌগটির দ্রবণের ঘনমাত্রা B যৌগের (ক্যালসিয়াম হাইড্রক্সাইড) দ্রবণের ঘনমাত্রার সঙ্গে তুলনা করো’। এখন যদি যৌগ দুটির আণবিক ভর নির্ণয়ে ভুল করো, তাহলে (গ) নম্বর ও (ঘ) নম্বর উত্তর প্রশ্নের উত্তরই ভুল হবে। অসম্পৃক্ততার পরীক্ষা :- সৃজনশীল প্রশ্ন বুঝতে হলে প্রশ্নের উত্তরটি কী হতে পারে, stem থেকে ধরতে চাইলে মূল বইয়ের গুরুত্বপূর্ণ টপিকসগুলো রিডিং পড়তে হবে, ধাতু-অধাতুগুলোর ভৌত ও রাসায়নিক বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে, পর্যায় সারণি সম্পর্কে জানতে হবে। রসায়ন বিষয়ের নামটা যতই রসালো হোক না কেনো, বিষয়টা যথেষ্ট বিভীষিকাময় বলে ধারণা আমাদের ছাত্রদের। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে এই বিভীষিকা সৃষ্টির পেছনে বিশাল ভূমিকা রাখে জৈব যৌগ বা জৈব রসায়ন নামের টপিকটি। কিন্তু বিষয়টা ততটা ভয়ানক থাকে না যদি কিছু বিষয় মাথায় রাখা হয়।
Romanized Version
অসম্পৃক্ততার পরীক্ষা :- অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন কাকে বলে বলতে পারবে। অ্যালকিন কাকে বলে বলতে পারবে। অ্যালকিনের পরীক্ষাগার প্রস্তুতি লিখতে পারবে। অ্যালকিনের শিল্পোৎপাদন বিক্রিয়া লিখতে পারবে। অ্যালকিনের অন্যান্য প্রস্তুতির বিক্রিয়া লিখতে পারবে। বিভিন্ন বিকারকের সাথে অ্যালকিনের সংযোজন বিক্রিয়া লিখতে পারবে। বিভিন্ন বিকারকের সাথে অ্যালকিনের সংযোজন বিক্রিয়া লিখতে পারবে। সংযোজন বিক্রিয়ায় মারকনিকভ নিয়ম ব্যাখ্যা ও প্রধান উৎপাদ নির্ণয় করতে পারবে। সংযোজন বিক্রিয়ায় বিপরীত মারকনিকভ নিয়ম ব্যাখ্যা ও প্রধান উৎপাদ নির্ণয় করতে পারবে। অ্যালকিনের ওজোনীকরণ ও জারন বিক্রিয়া লিখতে পারবে। অ্যালকিনে দ্বিবন্ধনের উপস্থিতি নির্ণয় তথা অসম্পৃক্ততার পরীক্ষার বিক্রিয়া লিখতে পারবে। অ্যালকিনে দ্বিবন্ধনের অবস্থান নির্ণয়ের বিক্রিয়া লিখতে পারবে। আগের পর্বে- সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন: অ্যালকেন -এর প্রস্তুতি, ধর্ম বিক্রিয়া ইত্যাদি শিখেছি। আমরা আগেই পড়েছি হাইড্রোকার্বনের মুক্ত কার্বন শিকলে কমপক্ষে একটি কার্বন-কার্বন দ্বিবন্ধন অথবা ত্রিবন্ধন থাকলে তাদেরকে অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন বলে। আর অসম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন দু শ্রেণীতে ভাগ করা হয়। (ক) অ্যালকিন ও (খ) অ্যালকাইন। কার্বন শিকলে কমপক্ষে একটি কার্বন-কার্বন দ্বিবন্ধন থাকলে তাদেরকে অ্যালকিন এবং ত্রিবন্ধন থাকলে তাদের অ্যালকাইন বলে। তাহলে, যে সব হাইড্রোকার্বনের মুক্ত কার্বন শিকলে একটি মাত্র কার্বন-কার্বন দ্বিবন্ধন থাকে তাদেরকে অ্যালকিন বলে। অ্যালকিনের সাধারণ সংকেত CnH2n। যেমন: ইথিন (C2H4), ২-বিউটিন (CH3-CH=CH-CH3) ইত্যাদি। অবশিষ্ট ২৫ নম্বর ব্যবহারিকে। বিষয়টি মুখস্থনির্ভর নয়, বোঝার বিষয় এবং নিয়মিত চর্চার বিষয়। ভালো করতে হলে প্রথমেই পরিচিত মৌলগুলোর যোজনী, পারমাণবিক সংখ্যা, পারমাণবিক ভর এবং যৌগমূলক সম্পর্কে সঠিক ধারণা থাকতে হবে। যেমন সৃজনশীল প্রশ্নের (গ) নম্বরে যদি বলা হয়—‘A একটি যৌগ (সোডিয়াম কার্বনেট), এর শতকরা সংযুক্তি নির্ণয় করো ’এবং (ঘ) নম্বরে বলা হয়—‘A যৌগটির দ্রবণের ঘনমাত্রা B যৌগের (ক্যালসিয়াম হাইড্রক্সাইড) দ্রবণের ঘনমাত্রার সঙ্গে তুলনা করো’। এখন যদি যৌগ দুটির আণবিক ভর নির্ণয়ে ভুল করো, তাহলে (গ) নম্বর ও (ঘ) নম্বর উত্তর প্রশ্নের উত্তরই ভুল হবে। অসম্পৃক্ততার পরীক্ষা :- সৃজনশীল প্রশ্ন বুঝতে হলে প্রশ্নের উত্তরটি কী হতে পারে, stem থেকে ধরতে চাইলে মূল বইয়ের গুরুত্বপূর্ণ টপিকসগুলো রিডিং পড়তে হবে, ধাতু-অধাতুগুলোর ভৌত ও রাসায়নিক বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে, পর্যায় সারণি সম্পর্কে জানতে হবে। রসায়ন বিষয়ের নামটা যতই রসালো হোক না কেনো, বিষয়টা যথেষ্ট বিভীষিকাময় বলে ধারণা আমাদের ছাত্রদের। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে এই বিভীষিকা সৃষ্টির পেছনে বিশাল ভূমিকা রাখে জৈব যৌগ বা জৈব রসায়ন নামের টপিকটি। কিন্তু বিষয়টা ততটা ভয়ানক থাকে না যদি কিছু বিষয় মাথায় রাখা হয়। Asampriktatar Pariksha Asamprikta Haidrokarban Kake Ble Volte Parbe Alkin Kake Ble Volte Parbe Alkiner Parikshagar Prastuti Likhte Parbe Alkiner Shilpotpadan Bikriya Likhte Parbe Alkiner Anyanya Prastutir Bikriya Likhte Parbe Bibhinna Bikarker Sathe Alkiner Sangjojan Bikriya Likhte Parbe Bibhinna Bikarker Sathe Alkiner Sangjojan Bikriya Likhte Parbe Sangjojan Bikriyay Marakanikabh Niyam Byakhya O Pradhan Utpad Nirnay Karate Parbe Sangjojan Bikriyay Biprit Marakanikabh Niyam Byakhya O Pradhan Utpad Nirnay Karate Parbe Alkiner Ojonikaran O Jaran Bikriya Likhte Parbe Alkine Dwibandhaner Upasthiti Nirnay Tatha Asampriktatar Parikshar Bikriya Likhte Parbe Alkine Dwibandhaner Abasthan Nirnayer Bikriya Likhte Parbe Ager Parbe Samprikta Haidrokarban Alken Aare Prastuti Dharm Bikriya Ityadi Shikhechhi Amara Agei Parechhi Haidrokarbaner Mukta Karbonn Shikle Kamapakshe Ekati Karbonn Karbonn Dwibandhan Athaba Tribandhan Thakle Taderake Asamprikta Haidrokarban Ble Are Asamprikta Haidrokarban Du Shrenite Bhag Kara Hya Ca Alkin O Kh Alkain Karbonn Shikle Kamapakshe Ekati Karbonn Karbonn Dwibandhan Thakle Taderake Alkin Evan Tribandhan Thakle Tader Alkain Ble Tahle Je Sab Haidrokarbaner Mukta Karbonn Shikle Ekati Maatr Karbonn Karbonn Dwibandhan Thake Taderake Alkin Ble Alkiner Sadharan Sanket Jeman Ithin (C2H4), 2 Biutin (CH3-CH=CH-CH3) Ityadi Abashishta 25 Number Byabaharike Bishayati Mukhasthanirbhar Noy Bojhar Vysya Evan Niymit Charchar Vysya Valu Karate Hale Prathamei Parichit Maulgulor Jojni Parmanbik Sankhya Parmanbik Bhar Evan Jaugmulak Samparke Sathik Dharna Thakte Habe Jeman Srijanashil Prashner G Nambare Jodi Bala Hay—‘ Ekati Jaug Sodium Carbonate Aare Shatakara Sangjukti Nirnay Karo ’ebang Gho Nambare Bala Hay—‘ Jaugtir Drabaner Ghanamatra B Jauger Calcium Haidraksaid Drabaner Ghanamatrar Sange Tulna Karoo Ekhan Jodi Jaug Dutir Anabik Bhar Nirnaye Bhool Karo Tahle G Number O Gho Number Uttar Prashner Uttarai Bhool Habe Asampriktatar Pariksha Srijanashil Prashna Bujhte Hale Prashner Uttarati Key Hate Pare Stem Theke Dharate Chaile Mul Baiyer Gurutbapurna Tapikasagulo Reading Parate Habe Dhatu Adhatugulor Bhaut O Rasaynik Baishishtya Samparke Dharna Thakte Habe Parjay Sarni Samparke Jante Habe Rasayan Bishyer Namta Jatai Rasalo Hoek Na Keno Bishayata Jatheshta Bibhishikamay Ble Dharna Amader Chhatrader Madhyamik O Uchchamadhyamik Parjaye AE Bibhishika Srishtir Pechhne Vishal Bhumika Rakhe Jaib Jaug Ba Jaib Rasayan Namer Tapikati Kintu Bishayata Tatata Bhayanak Thake Na Jodi Kichhu Bishay Mathay Rakha Hay
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon
500000+ दिलचस्प सवाल जवाब सुनिये 😊

Similar Questions

More Answers


বেয়ারের পরীক্ষা হল জৈব রসায়নে অসম্পৃক্ততার পরীক্ষা , যেমন দ্বিবন্ধন বা ত্রিবন্ধন শনাক্তকরণের বহুল ব্যবহৃত পরীক্ষা । জার্মান জৈব রসায়নবিদ অ্যাডলফ ভন বেয়ারের নামাঙ্কিত এই বিক্রিয়া গুণগত বিশ্লেষণের একটি গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা । বেয়ারের পরীক্ষা এর বিকারক হিসেবে শীতল ক্ষারীয় পটাশিয়াম পারম্যাঙ্গানেট দ্রবণ ব্যবহৃত হয়। অসম্পৃক্ততার পরীক্ষা সম্পর্কে বেয়ার বলে এটি একটি শক্তিশালী জারক পদার্থ হিসেবে জারণ ঘটায়, সেই সাথে নিজে বিজারিত হয়। কোনো যৌগে দ্বিবন্ধন বা ত্রিবন্ধন (-C=C- or -C≡C-) উপস্থিত থাকলে তা দ্রবণের বর্ণ গোলাপি থেকে বর্ণহীন করে দেয়। এটি একটি ইলেকট্রনাকর্ষী যুত বিক্রিয়া। অ্যালডিহাইডসমূহ এবং ফরমিক এসিড ( এই বিক্রিয়ায় অনুরূপ ফলাফল প্রদর্শন করে।
Romanized Version
বেয়ারের পরীক্ষা হল জৈব রসায়নে অসম্পৃক্ততার পরীক্ষা , যেমন দ্বিবন্ধন বা ত্রিবন্ধন শনাক্তকরণের বহুল ব্যবহৃত পরীক্ষা । জার্মান জৈব রসায়নবিদ অ্যাডলফ ভন বেয়ারের নামাঙ্কিত এই বিক্রিয়া গুণগত বিশ্লেষণের একটি গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা । বেয়ারের পরীক্ষা এর বিকারক হিসেবে শীতল ক্ষারীয় পটাশিয়াম পারম্যাঙ্গানেট দ্রবণ ব্যবহৃত হয়। অসম্পৃক্ততার পরীক্ষা সম্পর্কে বেয়ার বলে এটি একটি শক্তিশালী জারক পদার্থ হিসেবে জারণ ঘটায়, সেই সাথে নিজে বিজারিত হয়। কোনো যৌগে দ্বিবন্ধন বা ত্রিবন্ধন (-C=C- or -C≡C-) উপস্থিত থাকলে তা দ্রবণের বর্ণ গোলাপি থেকে বর্ণহীন করে দেয়। এটি একটি ইলেকট্রনাকর্ষী যুত বিক্রিয়া। অ্যালডিহাইডসমূহ এবং ফরমিক এসিড ( এই বিক্রিয়ায় অনুরূপ ফলাফল প্রদর্শন করে। Beyarer Pariksha Hall Jaib Rasayane Asampriktatar Pariksha , Jeman Dwibandhan Ba Tribandhan Shanaktakaraner Bahul Byabahrit Pariksha Jarman Jaib Rasayanabid Adalaf Bhan Beyarer Namankit AE Bikriya Gunagat Bishleshaner Ekati Gurutbapurna Pariksha Beyarer Pariksha Aare Bikarak Hisebe Sheetal Xariya Patashiyam Paramyanganet Draban Byabahrit Hay Asampriktatar Pariksha Samparke Bare Ble AT Ekati Shaktishali Zarqa Padartha Hisebe Jaran Ghatay Sei Sathe Nije Bijarit Hay Kono Jauge Dwibandhan Ba Tribandhan (-C=C- Or ≡ Upasthit Thakle Ta Drabaner Burn Golapi Theke Barnahin Kare Dey AT Ekati Ilekatranakarshi Jut Bikriya Aldihaidasamuh Evan Faramik Esid ( AE Bikriyay Anurup Falafal Pradarshan Kare
Likes  0  Dislikes
WhatsApp_icon

Vokal is India's Largest Knowledge Sharing Platform. Send Your Questions to Experts.

Related Searches:Asampriktatar Pariksha Ki ,What Is The Test Of Impersonation?,


vokalandroid